০৫:২৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রাশিয়ার যুদ্ধবিরতি ঘোষণা, মানবিক করিডর তৈরির ডাক

ইউক্রেনের সুমিতে আটকে থাকা ভারতীয় শিক্ষার্থীদের সুরক্ষিতভাবে দেশে ফেরানোর জন্য ইউক্রেনে আবার সাময়িক যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছে রাশিয়া। এছাড়া কিয়েভ, খারকিভ, মারিউপোল এবং চারনিগিভ শহরের শিক্ষার্থীদের ইউক্রেন ছাড়ার জন্যও এই যুদ্ধবিরতি ঘোযণা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

সোমবার (৭ মার্চ) খারকিভ, মারিউপুল এবং সুমি শহরে এই যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করা হয়। মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তথ্যটি পুনরায় নিশ্চিত করে ভারতে নিযুক্ত রুশ দূতাবাস।

এর আগেও মানবিক করিডর তৈরি করে দিতে ইউক্রেনের একধিক শহরে সাময়িক যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছে রাশিয়া। তবে এ সবই রাশিয়ার ‘নাটক’ বলে দাবি করেছে ইউক্রেন।

জানা গেছে, ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোর অনুরোধেই এই সিদ্ধান্ত নেন রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন। এর আগে ম্যাক্রোর সঙ্গে ফোনে কথা হয় পুতিনের। মনে করা হয়, তার জেরেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ক্রেমলিন।

এদিকে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলনস্কির অভিযোগ, এর আগে দু’বার ইউক্রেনের মারিউপোল ও ভলনোভাখা শহরে সাময়িক যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে রাশিয়া। কিন্তু প্রতিবারই সেই বিরতি ভেঙে হামলা চালিয়েছে রাশিয়া।

প্রসঙ্গত, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে উত্তর, দক্ষিণ ও পূর্ব দিক থেকে রাশিয়া ইউক্রেনে আক্রমণ করে। এই আক্রমণের ফলে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এই প্রথম ইউরোপজুড়ে ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। সব মহলে রাশিয়ার আক্রমণ সমোলোচিত হয়েছে। ইউরোপের বিভিন্ন দেশ রাশিয়ার ওপর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

রাশিয়ার যুদ্ধবিরতি ঘোষণা, মানবিক করিডর তৈরির ডাক

প্রকাশ: ০১:৪৮:৪৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৮ মার্চ ২০২২

ইউক্রেনের সুমিতে আটকে থাকা ভারতীয় শিক্ষার্থীদের সুরক্ষিতভাবে দেশে ফেরানোর জন্য ইউক্রেনে আবার সাময়িক যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছে রাশিয়া। এছাড়া কিয়েভ, খারকিভ, মারিউপোল এবং চারনিগিভ শহরের শিক্ষার্থীদের ইউক্রেন ছাড়ার জন্যও এই যুদ্ধবিরতি ঘোযণা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

সোমবার (৭ মার্চ) খারকিভ, মারিউপুল এবং সুমি শহরে এই যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করা হয়। মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তথ্যটি পুনরায় নিশ্চিত করে ভারতে নিযুক্ত রুশ দূতাবাস।

এর আগেও মানবিক করিডর তৈরি করে দিতে ইউক্রেনের একধিক শহরে সাময়িক যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছে রাশিয়া। তবে এ সবই রাশিয়ার ‘নাটক’ বলে দাবি করেছে ইউক্রেন।

জানা গেছে, ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোর অনুরোধেই এই সিদ্ধান্ত নেন রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন। এর আগে ম্যাক্রোর সঙ্গে ফোনে কথা হয় পুতিনের। মনে করা হয়, তার জেরেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ক্রেমলিন।

এদিকে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলনস্কির অভিযোগ, এর আগে দু’বার ইউক্রেনের মারিউপোল ও ভলনোভাখা শহরে সাময়িক যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে রাশিয়া। কিন্তু প্রতিবারই সেই বিরতি ভেঙে হামলা চালিয়েছে রাশিয়া।

প্রসঙ্গত, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে উত্তর, দক্ষিণ ও পূর্ব দিক থেকে রাশিয়া ইউক্রেনে আক্রমণ করে। এই আক্রমণের ফলে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এই প্রথম ইউরোপজুড়ে ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। সব মহলে রাশিয়ার আক্রমণ সমোলোচিত হয়েছে। ইউরোপের বিভিন্ন দেশ রাশিয়ার ওপর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক