০৯:২০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৭২% গ্রহণযোগ্যতায় বিশ্বসেরা মোদী

বিশ্বের সবথেকে জনপ্রিয় সরকার প্রধান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। অ্যাপ্রুভাল রেটিং বা গ্রহণযোগ্যতার হারের নিরিখে মোদী পিছনে ফেলেছেন আমেরিকার রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন, কানাডার রাষ্ট্রনেতা জাস্টিন ট্রুডোর মতো তাবড় বিশ্বনেতাদের।

মার্কিন ডেটা ইন্টেজিলেন্স সংস্থা ‘মর্নিং কনসাল্ট পলিটিক্যাল ইন্টেলিজেন্স’ -এর পরিচালনা করা এক সমীক্ষায় জানানো হয়েছে, ৭২ শতাংশ মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে নরেন্দ্র মোদীর। বিশ্বে আর কোনও রাষ্ট্রনেতার গ্রহণযোগ্যতা এত বেশি নয়।

সমীক্ষা অনুযায়ী, ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর পরই সবথেকে বেশি গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে মেক্সিকোর রাষ্ট্রপতি লোপেজ ওব্রাদরের। ৬৪ শতাংশ মানুষ ওব্রাদরকে গ্রহণযোগ্য বলে মেনে নিয়েছেন। তারপরই তালিকায় আছেন ইতালির প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘি। তাঁর গ্রহণযোগ্যতার হার ৫৭ শতাংশ।

বিশ্বের ১৩ জন শীর্ষনেতার গ্রহণযোগ্যতার সমীক্ষা করে এই তালিকা তৈরি করা হয়েছে। অস্ট্রেলিয়া, ব্রাজিল, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ভারত, ইতালি, জাপান, মেক্সিকো, দক্ষিণ কোরিয়া, স্পেন, ব্রিটেন ও আমেরিকায় এই সমীক্ষা চালিয়ে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী বা প্রেসিডেন্টের গ্রহণযোগ্যতা প্রকাশ করা হয়েছে।

এই তালিকায় চতুর্থ স্থানে রয়েছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা। তাঁর গ্রহণযোগ্যতা ৪৭ শতাংশ। এরপরই রয়েছেন জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ স্কলজ্। তাঁর গ্রহণযোগ্যতা ৪২ শতাংশ। তালিকায় এরপর রয়েছেন যথাক্রমে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইন, কানাডার প্রেসিডেন্ট জাস্টিন ট্রুডো এবং অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। তাঁদের গ্রহণযোগ্যতা ৪১ শতাংশ করে।

স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ (৩৭ শতাংশ), ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো, ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ (৩৫ শতাংশ) তালিকার নিচের দিকে স্থান পেয়েছেন। তালিকায় সবচেয়ে নিচে অবশ্য রয়েছেন লকডাউন পার্টি বিতর্কে জর্জরিত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

‘মর্নিং কনসাল্ট পলিটিক্যাল ইন্টেলিজেন্স’ তাদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে, চলতি মাসের শুরু থেকে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের, নানা সামাজিক অবস্থানের মানুষের মতামত গ্রহণ করেই এই জনপ্রিয়তার তালিকা তৈরি করা হয়েছে।

ওয়েবসাইটে এও বলা হয়েছে এই প্রথমবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বিশ্বের সবথেকে জনপ্রিয় নেতা হিসাবে নির্বাচিত হননি। এর আগে ২০২০ সালের মে মাসেও তিনি এই তালিকায় শীর্ষস্থান দখল করেছিলেন। সেই সময় তার জনপ্রিয়তা ছিল ৮৪ শতাংশ। তবে ২০২১ সালের মে মাসে সেই জনপ্রিয়তার হার অনেকটাই কমে যায়, ৬৩ শতাংশে নেমে আসে। তবে ফের ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর মাসে সবথেকে গ্রহণযোগ্য নেতা হিসাবে শীর্ষ স্থানে উঠে আসেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এরপর গত জানুয়ারী মাসেও বিশ্বের সর্বোচ্চ গ্রহণযোগ্যতা প্রাপ্ত নেতা নির্বাচিত হোন মোদী। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

৭২% গ্রহণযোগ্যতায় বিশ্বসেরা মোদী

প্রকাশ: ০৩:৪৬:১২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৮ ফেব্রুয়ারী ২০২২

বিশ্বের সবথেকে জনপ্রিয় সরকার প্রধান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। অ্যাপ্রুভাল রেটিং বা গ্রহণযোগ্যতার হারের নিরিখে মোদী পিছনে ফেলেছেন আমেরিকার রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন, কানাডার রাষ্ট্রনেতা জাস্টিন ট্রুডোর মতো তাবড় বিশ্বনেতাদের।

মার্কিন ডেটা ইন্টেজিলেন্স সংস্থা ‘মর্নিং কনসাল্ট পলিটিক্যাল ইন্টেলিজেন্স’ -এর পরিচালনা করা এক সমীক্ষায় জানানো হয়েছে, ৭২ শতাংশ মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে নরেন্দ্র মোদীর। বিশ্বে আর কোনও রাষ্ট্রনেতার গ্রহণযোগ্যতা এত বেশি নয়।

সমীক্ষা অনুযায়ী, ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর পরই সবথেকে বেশি গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে মেক্সিকোর রাষ্ট্রপতি লোপেজ ওব্রাদরের। ৬৪ শতাংশ মানুষ ওব্রাদরকে গ্রহণযোগ্য বলে মেনে নিয়েছেন। তারপরই তালিকায় আছেন ইতালির প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘি। তাঁর গ্রহণযোগ্যতার হার ৫৭ শতাংশ।

বিশ্বের ১৩ জন শীর্ষনেতার গ্রহণযোগ্যতার সমীক্ষা করে এই তালিকা তৈরি করা হয়েছে। অস্ট্রেলিয়া, ব্রাজিল, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ভারত, ইতালি, জাপান, মেক্সিকো, দক্ষিণ কোরিয়া, স্পেন, ব্রিটেন ও আমেরিকায় এই সমীক্ষা চালিয়ে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী বা প্রেসিডেন্টের গ্রহণযোগ্যতা প্রকাশ করা হয়েছে।

এই তালিকায় চতুর্থ স্থানে রয়েছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা। তাঁর গ্রহণযোগ্যতা ৪৭ শতাংশ। এরপরই রয়েছেন জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ স্কলজ্। তাঁর গ্রহণযোগ্যতা ৪২ শতাংশ। তালিকায় এরপর রয়েছেন যথাক্রমে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইন, কানাডার প্রেসিডেন্ট জাস্টিন ট্রুডো এবং অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। তাঁদের গ্রহণযোগ্যতা ৪১ শতাংশ করে।

স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ (৩৭ শতাংশ), ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো, ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ (৩৫ শতাংশ) তালিকার নিচের দিকে স্থান পেয়েছেন। তালিকায় সবচেয়ে নিচে অবশ্য রয়েছেন লকডাউন পার্টি বিতর্কে জর্জরিত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

‘মর্নিং কনসাল্ট পলিটিক্যাল ইন্টেলিজেন্স’ তাদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে, চলতি মাসের শুরু থেকে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের, নানা সামাজিক অবস্থানের মানুষের মতামত গ্রহণ করেই এই জনপ্রিয়তার তালিকা তৈরি করা হয়েছে।

ওয়েবসাইটে এও বলা হয়েছে এই প্রথমবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বিশ্বের সবথেকে জনপ্রিয় নেতা হিসাবে নির্বাচিত হননি। এর আগে ২০২০ সালের মে মাসেও তিনি এই তালিকায় শীর্ষস্থান দখল করেছিলেন। সেই সময় তার জনপ্রিয়তা ছিল ৮৪ শতাংশ। তবে ২০২১ সালের মে মাসে সেই জনপ্রিয়তার হার অনেকটাই কমে যায়, ৬৩ শতাংশে নেমে আসে। তবে ফের ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর মাসে সবথেকে গ্রহণযোগ্য নেতা হিসাবে শীর্ষ স্থানে উঠে আসেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এরপর গত জানুয়ারী মাসেও বিশ্বের সর্বোচ্চ গ্রহণযোগ্যতা প্রাপ্ত নেতা নির্বাচিত হোন মোদী। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক