০৭:৪৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লঙ্কান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে জয়শঙ্করের ‘গঠনমূলক’ আলোচনা

লঙ্কান পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিএল পেইরিসের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। ০৭ ফেব্রুয়ারী, সোমবার, নয়াদিল্লিতে উক্ত বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনাকালে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য, কূটনীতি, জ্বালানী নিরাপত্তা ও বিনিয়োগ নিয়ে মতবিনিময় করেন দুই নেতা।

পরবর্তীতে এক টুইটবার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন জয়শঙ্কর নিজেই। সেখানে পেইরিসের সাথে দ্বিপাক্ষিক বৈঠককে ‘ফলপ্রসূ’ হিসেবে আখ্যা দেন তিনি। পাশাপাশি ভারত-শ্রীলঙ্কার দ্বিপাক্ষিক সকল সম্পর্কের পর্যালোচনা পূর্বক বিদ্যমান পরিস্থিতির অগ্রগতি সাধনে গঠনমূলক আলোচনা হয়েছে বলেও জানান মোদী মন্ত্রীসভার গুরুত্বপূর্ণ এই সদস্য।

বৈঠকে পর্যটন খাতে অগ্রগতি সাধনের জন্য বিস্তর আলোচনা হয়েছে বলে জানান জয়শঙ্কর। বৃহত্তর সংযোগের ক্ষেত্রে পি২পি সংযোগের গুরুত্ব নিয়েও আলোচনা করেন তাঁরা। এছাড়াও, শ্রীলঙ্কার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কের ৭৫ বছর মহা ধুমধামের সঙ্গে উদযাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, গত রবিবার তিনদিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ভারতে এসেছেন শ্রীলঙ্কার পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিএল পেইরিস। সফরকালে পররাষ্ট্রসচিব শ্রী হর্ষবর্ধন শ্রিংলার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন তিনি।

প্রসঙ্গত, মহামারীর শুরু থেকেই অদ্যবধি শ্রীলঙ্কায় নানাবিধ সহযোগিতা পাঠিয়েছে ভারত। এর সর্বশেষ উদাহরণ লক্ষাধিক র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট কিটের চালান। গতবছর এপ্রিল-মে মাসেও শ্রীলঙ্কায় প্রায় ২৬ টন প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সামগ্রী উপহার পাঠিয়েছিলো ভারত।

তাছাড়া, লঙ্কান রাষ্ট্রপতি গোটবায়া রাজাপাক্ষের জরুরী ত্রাণ পাঠানোর ব্যক্তিগত অনুরোধের প্রতিক্রিয়ায় গত আগস্টে বিপুল পরিমাণ লিকুইড মেডিকেল অক্সিজেন পাঠায় মোদী সরকার। পাশাপাশি আর্থিক মন্দায় থাকা শ্রীলঙ্কার সহযোগিতায় প্রায় ৪০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিময়ের সুযোগও দেয় ভারত।

একই সঙ্গে, গত ২ ফেব্রুয়ারী, পেট্রোলিয়াম পণ্য ক্রয়ের জন্য ৫০০ মিলিয়ন ডলারের ক্রেডিট লাইন চুক্তি করেছে ভারতের রপ্তানী আমদানী ব্যাংক এবং শ্রীলঙ্কান সরকার। সর্বোপরি, লঙ্কান অর্থনীতির চাকা ফিরিয়ে আনতে প্রায় ৯০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার সহযোগিতায় এগিয়ে আসে ভারত। গতবছর ডিসেম্বরে লঙ্কান অর্থমন্ত্রী বাসিল রাজাপাক্ষের ভারত সফরের সময়ই এ বিষয়ে সামঞ্জস্যপূর্ণ আলোচনার সূত্রপাত হয়েছিলো।

এছাড়াও, ভারত এবং শ্রীলংকার মধ্যে গভীর দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বিদ্যমান যা বিভিন্ন বহুপাক্ষিক ফোরামেও দেখা যায়। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

 

ট্যাগ:

লঙ্কান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে জয়শঙ্করের ‘গঠনমূলক’ আলোচনা

প্রকাশ: ০৩:৩৫:২৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২২

লঙ্কান পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিএল পেইরিসের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। ০৭ ফেব্রুয়ারী, সোমবার, নয়াদিল্লিতে উক্ত বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনাকালে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য, কূটনীতি, জ্বালানী নিরাপত্তা ও বিনিয়োগ নিয়ে মতবিনিময় করেন দুই নেতা।

পরবর্তীতে এক টুইটবার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন জয়শঙ্কর নিজেই। সেখানে পেইরিসের সাথে দ্বিপাক্ষিক বৈঠককে ‘ফলপ্রসূ’ হিসেবে আখ্যা দেন তিনি। পাশাপাশি ভারত-শ্রীলঙ্কার দ্বিপাক্ষিক সকল সম্পর্কের পর্যালোচনা পূর্বক বিদ্যমান পরিস্থিতির অগ্রগতি সাধনে গঠনমূলক আলোচনা হয়েছে বলেও জানান মোদী মন্ত্রীসভার গুরুত্বপূর্ণ এই সদস্য।

বৈঠকে পর্যটন খাতে অগ্রগতি সাধনের জন্য বিস্তর আলোচনা হয়েছে বলে জানান জয়শঙ্কর। বৃহত্তর সংযোগের ক্ষেত্রে পি২পি সংযোগের গুরুত্ব নিয়েও আলোচনা করেন তাঁরা। এছাড়াও, শ্রীলঙ্কার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কের ৭৫ বছর মহা ধুমধামের সঙ্গে উদযাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, গত রবিবার তিনদিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ভারতে এসেছেন শ্রীলঙ্কার পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিএল পেইরিস। সফরকালে পররাষ্ট্রসচিব শ্রী হর্ষবর্ধন শ্রিংলার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন তিনি।

প্রসঙ্গত, মহামারীর শুরু থেকেই অদ্যবধি শ্রীলঙ্কায় নানাবিধ সহযোগিতা পাঠিয়েছে ভারত। এর সর্বশেষ উদাহরণ লক্ষাধিক র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট কিটের চালান। গতবছর এপ্রিল-মে মাসেও শ্রীলঙ্কায় প্রায় ২৬ টন প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সামগ্রী উপহার পাঠিয়েছিলো ভারত।

তাছাড়া, লঙ্কান রাষ্ট্রপতি গোটবায়া রাজাপাক্ষের জরুরী ত্রাণ পাঠানোর ব্যক্তিগত অনুরোধের প্রতিক্রিয়ায় গত আগস্টে বিপুল পরিমাণ লিকুইড মেডিকেল অক্সিজেন পাঠায় মোদী সরকার। পাশাপাশি আর্থিক মন্দায় থাকা শ্রীলঙ্কার সহযোগিতায় প্রায় ৪০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিময়ের সুযোগও দেয় ভারত।

একই সঙ্গে, গত ২ ফেব্রুয়ারী, পেট্রোলিয়াম পণ্য ক্রয়ের জন্য ৫০০ মিলিয়ন ডলারের ক্রেডিট লাইন চুক্তি করেছে ভারতের রপ্তানী আমদানী ব্যাংক এবং শ্রীলঙ্কান সরকার। সর্বোপরি, লঙ্কান অর্থনীতির চাকা ফিরিয়ে আনতে প্রায় ৯০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার সহযোগিতায় এগিয়ে আসে ভারত। গতবছর ডিসেম্বরে লঙ্কান অর্থমন্ত্রী বাসিল রাজাপাক্ষের ভারত সফরের সময়ই এ বিষয়ে সামঞ্জস্যপূর্ণ আলোচনার সূত্রপাত হয়েছিলো।

এছাড়াও, ভারত এবং শ্রীলংকার মধ্যে গভীর দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বিদ্যমান যা বিভিন্ন বহুপাক্ষিক ফোরামেও দেখা যায়। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক