০৪:৪৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে জয়শঙ্করের কথোপকথন

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র ও ব্রেক্সিট বিষয়ক মন্ত্রী লিজ ট্রাসের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। ১০ জানুয়ারী, সোমবার, দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য, বিনিয়োগ এবং নিরাপত্তা ইস্যুতে মতবিনিময় করেছেন দুই নেতা। পরবর্তীতে জয়শঙ্করের এক টুইটবার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। আলোচনার শেষে লিজ ট্রাসকে ভারত সফরের আমন্ত্রণও জানিয়েছেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

জানা গিয়েছে, উক্ত বৈঠকে গত ০৪ মে, ২০২১ ইং তারিখে অনুষ্ঠিত ভারত-ইউকে শীর্ষ ভার্চুয়াল সামিটে দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যকার কথোপকথনের পর দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের অগ্রগতি ও বর্তমান অবস্থা নিয়ে আলোচনা করেছেন ট্রাস এবং জয়শঙ্কর। তাছাড়া, নিয়মিত উচ্চ স্তরের বৈঠক এবং সফরের উপরও গুরুত্বারোপ করেন তাঁরা।

উল্লেখ্য, গত অক্টোবরে ভারতে এসেছিলেন লিজ ট্রাস এবং সেসময় রোডম্যাপ-২০৩০ নিয়ে বিস্তর আলোচনা করেছিলেন তিনি। এর অংশ হিসেবে বাণিজ্য, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, উদ্ভাবন, প্রতিরক্ষা, জলবায়ু, শিক্ষা এবং স্বাস্থ্য খাতের মতো বিভিন্ন ক্ষেত্রে অংশীদারিত্বকে আরও গভীর করার বিষয়ে পদক্ষেপ নেয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন তিনি। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে জয়শঙ্করের কথোপকথন

প্রকাশ: ০৬:০৫:১৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জানুয়ারী ২০২২

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র ও ব্রেক্সিট বিষয়ক মন্ত্রী লিজ ট্রাসের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। ১০ জানুয়ারী, সোমবার, দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য, বিনিয়োগ এবং নিরাপত্তা ইস্যুতে মতবিনিময় করেছেন দুই নেতা। পরবর্তীতে জয়শঙ্করের এক টুইটবার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। আলোচনার শেষে লিজ ট্রাসকে ভারত সফরের আমন্ত্রণও জানিয়েছেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

জানা গিয়েছে, উক্ত বৈঠকে গত ০৪ মে, ২০২১ ইং তারিখে অনুষ্ঠিত ভারত-ইউকে শীর্ষ ভার্চুয়াল সামিটে দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যকার কথোপকথনের পর দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের অগ্রগতি ও বর্তমান অবস্থা নিয়ে আলোচনা করেছেন ট্রাস এবং জয়শঙ্কর। তাছাড়া, নিয়মিত উচ্চ স্তরের বৈঠক এবং সফরের উপরও গুরুত্বারোপ করেন তাঁরা।

উল্লেখ্য, গত অক্টোবরে ভারতে এসেছিলেন লিজ ট্রাস এবং সেসময় রোডম্যাপ-২০৩০ নিয়ে বিস্তর আলোচনা করেছিলেন তিনি। এর অংশ হিসেবে বাণিজ্য, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, উদ্ভাবন, প্রতিরক্ষা, জলবায়ু, শিক্ষা এবং স্বাস্থ্য খাতের মতো বিভিন্ন ক্ষেত্রে অংশীদারিত্বকে আরও গভীর করার বিষয়ে পদক্ষেপ নেয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন তিনি। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক