০৭:৪৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজয় দিবসে মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণ করলেন মোদী

স্বাধীন বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে অবদান রাখায় মুক্তিযোদ্ধাদের পাশাপাশি, সব বীরাঙ্গনা ও ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যের বীরত্বের কথা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেছেন তিনি।

এক টুইটে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ৫০তম বিজয় দিবসে আমি মুক্তিযোদ্ধা, বীরাঙ্গনা এবং ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীর সাহসী সদস্যদের মহান বীরত্ব ও আত্মত্যাগের কথা স্মরণ করছি। আমরা একসঙ্গে অত্যাচারী শক্তির বিরুদ্ধে লড়েছি এবং পরাজিত করেছি। ঢাকায় রাষ্ট্রপতিজির উপস্থিতি প্রত্যেক ভারতীয়র কাছে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ।”

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তী, মুজিববর্ষের সমাপ্তি এবং বাংলাদেশ-ভারত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের ৫০ বছরপূর্তি উপলক্ষ্যে সস্ত্রীক ঢাকা সফরে এসেছেন ভারতীয় রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। এছাড়াও, বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে বাংলাদেশকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী, প্রতিরক্ষামন্ত্রী সহ অন্য নেতৃবৃন্দও।

বিজয় দিবস নিয়ে একাধিক টুইট করেছেন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। মুক্তিযুদ্ধে ভারতীয় সেনাদের অংশগ্রহণের বেশ কিছু ছবি শেয়ার করেছেন তিনি। একের পর এক টুইটবার্তায় ৭১ এর যুদ্ধকে ভারতের সামরিক ইতিহাসের সোনালী অধ্যায় বলে অভিহিত করেছেন তিনি।

টুইটে রাজনাথ লিখেন, “স্বর্ণিম বিজয় দিবসে আমরা ১৯৭১ সালের যুদ্ধে আমাদের সশস্ত্র বাহিনীর সাহস এবং আত্মত্যাগকে স্মরণ করি। আমরা আমাদের সশস্ত্র বাহিনী এবং তাদের অর্জনের জন্য গর্বিত।”

বাংলায় লেখা এক টুইটে ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর বলেছেন, “৫০তম বিজয় দিবস উদযাপনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন এবং বাংলাদেশের সরকার ও জনগণকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাই। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে নিপীড়ন ও গণহত্যার বিরুদ্ধে বাংলাদেশের জনগণের বীরত্বপূর্ণ লড়াই আমাদের সবসময় অনুপ্রাণিত করবে।”

ভিন্ন এক টুইটবার্তায় জয়শঙ্কর লিখেছেন, “রাষ্ট্রপতিজির সফর আমাদের গভীর বন্ধুত্ব এবং অভিন্ন আত্মত্যাগের মাধ্যমে তৈরি বিশেষ বন্ধনকে প্রতিফলিত করে।” খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

বিজয় দিবসে মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণ করলেন মোদী

প্রকাশ: ০১:৫৭:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০২১

স্বাধীন বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে অবদান রাখায় মুক্তিযোদ্ধাদের পাশাপাশি, সব বীরাঙ্গনা ও ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যের বীরত্বের কথা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেছেন তিনি।

এক টুইটে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ৫০তম বিজয় দিবসে আমি মুক্তিযোদ্ধা, বীরাঙ্গনা এবং ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীর সাহসী সদস্যদের মহান বীরত্ব ও আত্মত্যাগের কথা স্মরণ করছি। আমরা একসঙ্গে অত্যাচারী শক্তির বিরুদ্ধে লড়েছি এবং পরাজিত করেছি। ঢাকায় রাষ্ট্রপতিজির উপস্থিতি প্রত্যেক ভারতীয়র কাছে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ।”

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তী, মুজিববর্ষের সমাপ্তি এবং বাংলাদেশ-ভারত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের ৫০ বছরপূর্তি উপলক্ষ্যে সস্ত্রীক ঢাকা সফরে এসেছেন ভারতীয় রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। এছাড়াও, বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে বাংলাদেশকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী, প্রতিরক্ষামন্ত্রী সহ অন্য নেতৃবৃন্দও।

বিজয় দিবস নিয়ে একাধিক টুইট করেছেন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। মুক্তিযুদ্ধে ভারতীয় সেনাদের অংশগ্রহণের বেশ কিছু ছবি শেয়ার করেছেন তিনি। একের পর এক টুইটবার্তায় ৭১ এর যুদ্ধকে ভারতের সামরিক ইতিহাসের সোনালী অধ্যায় বলে অভিহিত করেছেন তিনি।

টুইটে রাজনাথ লিখেন, “স্বর্ণিম বিজয় দিবসে আমরা ১৯৭১ সালের যুদ্ধে আমাদের সশস্ত্র বাহিনীর সাহস এবং আত্মত্যাগকে স্মরণ করি। আমরা আমাদের সশস্ত্র বাহিনী এবং তাদের অর্জনের জন্য গর্বিত।”

বাংলায় লেখা এক টুইটে ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর বলেছেন, “৫০তম বিজয় দিবস উদযাপনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন এবং বাংলাদেশের সরকার ও জনগণকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাই। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে নিপীড়ন ও গণহত্যার বিরুদ্ধে বাংলাদেশের জনগণের বীরত্বপূর্ণ লড়াই আমাদের সবসময় অনুপ্রাণিত করবে।”

ভিন্ন এক টুইটবার্তায় জয়শঙ্কর লিখেছেন, “রাষ্ট্রপতিজির সফর আমাদের গভীর বন্ধুত্ব এবং অভিন্ন আত্মত্যাগের মাধ্যমে তৈরি বিশেষ বন্ধনকে প্রতিফলিত করে।” খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক