০৫:২৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

‘ওমিক্রন’ ঠেকাতে জরুরী বৈঠক দিল্লীর

করোনা ভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন নিয়ে আতঙ্ক বাড়ছে বিশ্বজুড়ে! ভাইরাসের এই নতুন প্রজাতি আগের তুলনায় অনেক বেশি সংক্রামক বলে ইতোমধ্যে সতর্কবার্তা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। প্রচলিত আরটি-পিসিআর পদ্ধতিতে নতুন ভাইরাস ধরা না পড়ার সম্ভাবনা প্রবল, তাই আশঙ্কায় রয়েছেন খোদ চিকিত্সকগণও। এমতাবস্থায় ওমিক্রন ঠেকাতে জরুরী বৈঠক আয়োজন করলো ভারত।

২৮ নভেম্বর, রবিবার, করোনার এই নতুন ধরণ ঠেকাতে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব অজয় কুমার ভাল্লার সভাপতিত্বে একটি বৈঠক আয়োজন করা হয়েছে। ইতোপূর্বে গতকাল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যেখানে প্রধানমন্ত্রীকে ওমিক্রনের ভয়াবহতার বিষয়ে ধারণা দেয়া হয়েছিলো। এর ঠিক একদিন পরই বৈঠক ডাকলেন ভাল্লা।

পরবর্তীতে এক টুইটবার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র। পাশাপাশি বৈঠকের আলোচ্য সূচি সম্পর্কেও সবাইকে অবহিত করেন তিনি। টুইটে বলা হয়েছে- “সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, সরকার ভারতে আগত আন্তর্জাতিক যাত্রীদের পরীক্ষা এবং নজরদারির বিষয়ে স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং পদ্ধতি পর্যালোচনা করবে, বিশেষ করে সেই দেশগুলোর জন্য এটি অবশ্যই কার্যকর হবে, যারা ‘ঝুঁকি’ বিভাগে চিহ্নিত হয়েছে।” দেশের আভ্যন্তরীণ পরিস্থিতিও সমানভাবে নজরদারিতে রাখা হবে বলে জানানো হয়েছে টুইটে।

বৈঠকে ভাল্লা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ডা. ভি কে পল, সদস্য (স্বাস্থ্য), নীতি আয়োগ; ডক্টর বিজয় রাঘবন, প্রধানমন্ত্রীর প্রধান বৈজ্ঞানিক উপদেষ্টা এবং স্বাস্থ্য, বেসামরিক বিমান চলাচল এবং অন্যান্য মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

‘ওমিক্রন’ ঠেকাতে জরুরী বৈঠক দিল্লীর

প্রকাশ: ০৮:০০:৫৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১

করোনা ভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন নিয়ে আতঙ্ক বাড়ছে বিশ্বজুড়ে! ভাইরাসের এই নতুন প্রজাতি আগের তুলনায় অনেক বেশি সংক্রামক বলে ইতোমধ্যে সতর্কবার্তা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। প্রচলিত আরটি-পিসিআর পদ্ধতিতে নতুন ভাইরাস ধরা না পড়ার সম্ভাবনা প্রবল, তাই আশঙ্কায় রয়েছেন খোদ চিকিত্সকগণও। এমতাবস্থায় ওমিক্রন ঠেকাতে জরুরী বৈঠক আয়োজন করলো ভারত।

২৮ নভেম্বর, রবিবার, করোনার এই নতুন ধরণ ঠেকাতে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব অজয় কুমার ভাল্লার সভাপতিত্বে একটি বৈঠক আয়োজন করা হয়েছে। ইতোপূর্বে গতকাল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যেখানে প্রধানমন্ত্রীকে ওমিক্রনের ভয়াবহতার বিষয়ে ধারণা দেয়া হয়েছিলো। এর ঠিক একদিন পরই বৈঠক ডাকলেন ভাল্লা।

পরবর্তীতে এক টুইটবার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র। পাশাপাশি বৈঠকের আলোচ্য সূচি সম্পর্কেও সবাইকে অবহিত করেন তিনি। টুইটে বলা হয়েছে- “সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, সরকার ভারতে আগত আন্তর্জাতিক যাত্রীদের পরীক্ষা এবং নজরদারির বিষয়ে স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং পদ্ধতি পর্যালোচনা করবে, বিশেষ করে সেই দেশগুলোর জন্য এটি অবশ্যই কার্যকর হবে, যারা ‘ঝুঁকি’ বিভাগে চিহ্নিত হয়েছে।” দেশের আভ্যন্তরীণ পরিস্থিতিও সমানভাবে নজরদারিতে রাখা হবে বলে জানানো হয়েছে টুইটে।

বৈঠকে ভাল্লা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ডা. ভি কে পল, সদস্য (স্বাস্থ্য), নীতি আয়োগ; ডক্টর বিজয় রাঘবন, প্রধানমন্ত্রীর প্রধান বৈজ্ঞানিক উপদেষ্টা এবং স্বাস্থ্য, বেসামরিক বিমান চলাচল এবং অন্যান্য মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক