০৯:৪২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাজে সময় পার করছে ভারত-চীন সম্পর্ক: জয়শঙ্কর

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর বলেছেন, ভারত ও চীন নিজেদের সম্পর্কে খারাপ চক্রের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। এর কারণ হিসেবে তিনি অভিযোগ করেন, বেইজিং চুক্তি ভঙ্গের একাধিক পদক্ষেপ নেওয়ার পরও কোনও বিশ্বাসযোগ্য ব্যাখ্যা দেয়নি।
দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক কোথায় নিতে চায় সেই প্রশ্নের উত্তর চীনের নেতৃত্বকেই দিতে হবে বলে দাবি করেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী।
১৯ নভেম্বর, শুক্রবার, সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত ব্লুমবার্গ নিউ ইকোনমিক ফোরামে ‘গ্রেটার পাওয়ার কম্পিটিশন: দ্য ইমার্জিং ওয়ার্ল্ড অর্ডার’ শীর্ষক এক প্যানেল আলোচনায় অংশ নেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর।
সেখানে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি না আমাদের সম্পর্ক কোথায় দাঁড়িয়ে এবং এতে কোনটা ঠিক হচ্ছে না তা চীন জানে না। আমার কাউন্টারপার্ট ওয়াং ই’র  সঙ্গে বেশ কয়েকবার বৈঠক করেছি। আপনারা প্রত্যক্ষ করেছেন, আমি স্পষ্টভাবে বলেছি, যৌক্তিকভাবে বুঝিয়েছি স্পষ্টতার কোনও ঘাটতি নেই, ফলে তারা যদি এটা শুনতে চায় তাহলে নিশ্চিতভাবে আমি তাদের শুনিয়ে দেবো।’
পূর্ব লাদাখে চীনের সঙ্গে সেনা সংঘাতের দিকে ইঙ্গিত করে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা আমাদের সম্পর্কের মধ্যে বিশেষ খারাপ চক্রের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। কারণ, তারা চুক্তিভঙ্গের একঝাঁক পদক্ষেপ নিয়েছে, যার জন্য তারা এখনও কোনও বিশ্বাসযোগ্য ব্যাখ্যাও দেয়নি। আর সেই কারণে তারা আমাদের সম্পর্ক কোথায় নিতে চায় তা পুনর্বিবেচনা করতে হচ্ছে, কিন্তু সেই উত্তর তাদেরই দিতে হবে।’
পানগং লেক এলাকায় সহিংস সংঘাতের পর গত বছরের মে মাসে পূর্ব লাদাখ সীমান্তে ভারত ও চীনের মধ্যে অচলাবস্থা তৈরি হয়। উভয় পক্ষই পর্যায়ক্রমে ওই এলাকায় সেনা ও সামরিক সরঞ্জাম মোতায়েন বাড়ায়।
ওই উত্তেজনার জেরে গত বছরের জুনে গালওয়ান উপত্যকায় প্রাণঘাতী সহিংসতায় জড়ায় দুই দেশের সেনারা। কয়েক দফা সামরিক ও কূটনৈতিক আলোচনার পর উভয় পক্ষ পানগং লেকের উত্তর ও দক্ষিণ প্রান্ত থেকে সেনা প্রত্যাহার শুরু করে। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক
ট্যাগ:

বাজে সময় পার করছে ভারত-চীন সম্পর্ক: জয়শঙ্কর

প্রকাশ: ০৩:১৬:১৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ নভেম্বর ২০২১
ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর বলেছেন, ভারত ও চীন নিজেদের সম্পর্কে খারাপ চক্রের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। এর কারণ হিসেবে তিনি অভিযোগ করেন, বেইজিং চুক্তি ভঙ্গের একাধিক পদক্ষেপ নেওয়ার পরও কোনও বিশ্বাসযোগ্য ব্যাখ্যা দেয়নি।
দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক কোথায় নিতে চায় সেই প্রশ্নের উত্তর চীনের নেতৃত্বকেই দিতে হবে বলে দাবি করেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী।
১৯ নভেম্বর, শুক্রবার, সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত ব্লুমবার্গ নিউ ইকোনমিক ফোরামে ‘গ্রেটার পাওয়ার কম্পিটিশন: দ্য ইমার্জিং ওয়ার্ল্ড অর্ডার’ শীর্ষক এক প্যানেল আলোচনায় অংশ নেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর।
সেখানে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি না আমাদের সম্পর্ক কোথায় দাঁড়িয়ে এবং এতে কোনটা ঠিক হচ্ছে না তা চীন জানে না। আমার কাউন্টারপার্ট ওয়াং ই’র  সঙ্গে বেশ কয়েকবার বৈঠক করেছি। আপনারা প্রত্যক্ষ করেছেন, আমি স্পষ্টভাবে বলেছি, যৌক্তিকভাবে বুঝিয়েছি স্পষ্টতার কোনও ঘাটতি নেই, ফলে তারা যদি এটা শুনতে চায় তাহলে নিশ্চিতভাবে আমি তাদের শুনিয়ে দেবো।’
পূর্ব লাদাখে চীনের সঙ্গে সেনা সংঘাতের দিকে ইঙ্গিত করে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা আমাদের সম্পর্কের মধ্যে বিশেষ খারাপ চক্রের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। কারণ, তারা চুক্তিভঙ্গের একঝাঁক পদক্ষেপ নিয়েছে, যার জন্য তারা এখনও কোনও বিশ্বাসযোগ্য ব্যাখ্যাও দেয়নি। আর সেই কারণে তারা আমাদের সম্পর্ক কোথায় নিতে চায় তা পুনর্বিবেচনা করতে হচ্ছে, কিন্তু সেই উত্তর তাদেরই দিতে হবে।’
পানগং লেক এলাকায় সহিংস সংঘাতের পর গত বছরের মে মাসে পূর্ব লাদাখ সীমান্তে ভারত ও চীনের মধ্যে অচলাবস্থা তৈরি হয়। উভয় পক্ষই পর্যায়ক্রমে ওই এলাকায় সেনা ও সামরিক সরঞ্জাম মোতায়েন বাড়ায়।
ওই উত্তেজনার জেরে গত বছরের জুনে গালওয়ান উপত্যকায় প্রাণঘাতী সহিংসতায় জড়ায় দুই দেশের সেনারা। কয়েক দফা সামরিক ও কূটনৈতিক আলোচনার পর উভয় পক্ষ পানগং লেকের উত্তর ও দক্ষিণ প্রান্ত থেকে সেনা প্রত্যাহার শুরু করে। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক