০৪:২১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ভর্তিচ্ছুদের পাশে জাবির মীর মশাররফ হোসেন হল ছাত্রলীগ

ফাহিম আহম্মেদ মন্ডল: ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের সহায়তায় ক্যাম্পাস জুড়ে ‘জয় বাংলা বাইক সার্ভিস’ পরিচালনা করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মীর মশাররফ হোসেন হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। ২১ নভেম্বর, রবিবার, বিশ্ববিদ্যালয়ের গাণিতিক ও পদার্থ বিষয়ক অনুষদের (এ ইউনিট) ভর্তি পরীক্ষা চলাকালে উক্ত কার্যক্রমটি পরিচালনা করেন তাঁরা।

ব্যতিক্রমধর্মী এই সেবা উদ্যোগের বিষয়ে জানতে চাইলে মীর মশাররফ হোসেন হলের আবাসিক ছাত্র, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সদ্য বিলুপ্ত কমিটির সহ-সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন বলেন, “জাবি ছাত্রলীগের শক্তিশালী সাংগঠনিক ভিত্তির অন্যতম প্রধান উৎস মীর মশাররফ হোসেন হলের নিবেদিত প্রাণ নেতাকর্মীগণ। বঙ্গবন্ধুর আদর্শিক সৈনিক হিসেবে এই হলের নেতৃবৃন্দ সর্বদা সৃজনশীল কাজের সাথে একাত্মতা পোষণ করে এসেছে। এরই ধারাবাহিকতায় ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের ক্রান্তিকালীন সময়ে জয় বাংলা বাইক সেবা সহ ভর্তি পরীক্ষার্থীদের সহায়তায় তথ্য কেন্দ্র স্থাপন, সুপেয় পানি সরবরাহ করা, জরুরী প্রয়োজনে মেডিকেল টিমের ব্যবস্থা করা, অসহায়দের নিরাপদ আবাসন প্রদান সহ আগত শিক্ষার্থীদের সব রকমের সমস্যা সমাধানে আমরা ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টা অব্যহত রেখেছি।”

তিনি আরও বলেন, “পূর্ণাঙ্গ গণতান্ত্র চর্চায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নবীন শিক্ষার্থীদের সবসময়ই স্বাগত জানাবে। সবুজ-শ্যামল এই ক্যাম্পাসে যারা নবীন হয়ে এসেছে তাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা করতে আমরা অঙ্গীকারবদ্ধ।”

একই বিষয়ে বলতে গিয়ে শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক মো. সামিন ইয়াসির শাফিন বলেন, “আজ থেকে ৩ বছর আগে আমরা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে জয় বাংলা বাইক সেবার মাধ্যমে ভর্তিচ্ছু ভাই-বোনদের সাহায্য করার উদ্যোগ গ্রহণ করি। জয় বাংলা বাইক সেবার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে, ভর্তিচ্ছু যেসকল ভাই/বোনের কোনো কারণে পরীক্ষার কেন্দ্রে যেতে দেরী হয়ে যায়, তাদের স্বল্প সময়ে কেন্দ্রে পৌছে দেয়া, যেনো সে মানসিকভাবে শক্ত থেকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারে । আমাদের সামান্য সহযোগীতা যদি পরীক্ষার্থীদের স্বপ্নের পথের নিরাপদ যাত্রা সুনিশ্চিত করে, তবে সেখানেই আমাদের সার্থকতা।”

এ প্রসঙ্গে মীর মশাররফ হোসেন হল ছাত্রনেতা আব্দুল্লাহ আল ফারুক ইমরান বলেন, “বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা প্রদানে আমাদের অঙ্গীকার রয়েছে। যার ধারাবাহিকতায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ এর অন্যতম ইউনিট মীর মশাররফ হোসেন হল ছাত্রলীগ বিভিন্ন সেবা নিয়ে এগিয়ে এসেছে। অতীত ও বর্তমান এর ন্যায় ভবিষ্যতেও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে বঙ্গবন্ধু তনয়া দেশরত্ন শেখ হাসিনার পথচলা মসৃণ রাখতে কাজ করে যাবো আমরা।”

এসময়, একই হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ৪৪ তম আর্বতনের আবুল কালাম আজাদ বলেন, “জয় বাংলা বাইক সার্ভিস এর মাধ্যমে আমরা শিক্ষার্থীদের অতি স্বল্প সময়ের মধ্যে স্বীয় কেন্দ্রে পৌঁছে দিয়ে নিজেরা যেমন আনন্দিত, একই সাথে শিক্ষার্থীরাও উপকৃত হচ্ছে। আমরা এই ধারা অব্যাহত রাখতে চাই।”

দিনব্যাপি পরিচালিত এ সহায়তা কার্যক্রম পরিচালনা ও তত্ত্বাবধানে ছিলেন, মীর মশাররফ হোসেন হল ছাত্রলীগের নেতা ৪২ ব্যাচের ইসমাইল হোসেন, মোঃ আলী, কানন সরকার, ৪৩ ব্যাচের বিপ্লব হোসেন, প্রনয়, রিদম, লায়েব, প্রীতম আরিফ, আল আমিন, ৪৪ ব্যাচের দেলোয়ার হোসেন, আবুল কালাম আজাদ, রাশেদ আল নাঈম, মুবতাসিম ফুয়াদ রুহিন, লেলিন মাহবুব, সামিন ইয়াসির শাফিন, আকন্দ, সজীব হোসেন, ইমরান, ফরিদ এবং পিযুষ।

উদ্যোগটি বাস্তবায়নে সহযোগীতা করেন ৪৫ ব্যাচের হল ছাত্রলীগ নেতা ওমর সানী রাজু, ফারহান রহমান অনিম, আমিরুল ইসলাম সুজন, রিজন বড়ুয়া, মোস্তাফিজুর রহমান, রাকিবুল হাসান, গৌতম কুমার দাশ, সনজিত মাহাতো রনি, মিরাজ এবং রাব্বি।

এছাড়াও মীর মশাররফ হোসেন হল ছাত্রলীগ কর্মী ৪৬ ব্যাচের শিক্ষার্থী সাগর, তাপস সোহেল, সায়েদ, পুলক, সাদ, জনি, তারেক, দিপু ও নাজমুল সহ হল ছাত্রলীগের প্রায় দেড় শতাধিক কর্মী এ কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেন।

এদিকে, জয় বাংলা বাইক সার্ভিস পরিচালনা ছাড়াও ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে আনন্দ মিছিল করেছে মীর মশাররফ হোসেন হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

ট্যাগ:

ভর্তিচ্ছুদের পাশে জাবির মীর মশাররফ হোসেন হল ছাত্রলীগ

প্রকাশ: ০৬:১৫:১৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ নভেম্বর ২০২১

ফাহিম আহম্মেদ মন্ডল: ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের সহায়তায় ক্যাম্পাস জুড়ে ‘জয় বাংলা বাইক সার্ভিস’ পরিচালনা করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মীর মশাররফ হোসেন হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। ২১ নভেম্বর, রবিবার, বিশ্ববিদ্যালয়ের গাণিতিক ও পদার্থ বিষয়ক অনুষদের (এ ইউনিট) ভর্তি পরীক্ষা চলাকালে উক্ত কার্যক্রমটি পরিচালনা করেন তাঁরা।

ব্যতিক্রমধর্মী এই সেবা উদ্যোগের বিষয়ে জানতে চাইলে মীর মশাররফ হোসেন হলের আবাসিক ছাত্র, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সদ্য বিলুপ্ত কমিটির সহ-সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন বলেন, “জাবি ছাত্রলীগের শক্তিশালী সাংগঠনিক ভিত্তির অন্যতম প্রধান উৎস মীর মশাররফ হোসেন হলের নিবেদিত প্রাণ নেতাকর্মীগণ। বঙ্গবন্ধুর আদর্শিক সৈনিক হিসেবে এই হলের নেতৃবৃন্দ সর্বদা সৃজনশীল কাজের সাথে একাত্মতা পোষণ করে এসেছে। এরই ধারাবাহিকতায় ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের ক্রান্তিকালীন সময়ে জয় বাংলা বাইক সেবা সহ ভর্তি পরীক্ষার্থীদের সহায়তায় তথ্য কেন্দ্র স্থাপন, সুপেয় পানি সরবরাহ করা, জরুরী প্রয়োজনে মেডিকেল টিমের ব্যবস্থা করা, অসহায়দের নিরাপদ আবাসন প্রদান সহ আগত শিক্ষার্থীদের সব রকমের সমস্যা সমাধানে আমরা ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টা অব্যহত রেখেছি।”

তিনি আরও বলেন, “পূর্ণাঙ্গ গণতান্ত্র চর্চায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নবীন শিক্ষার্থীদের সবসময়ই স্বাগত জানাবে। সবুজ-শ্যামল এই ক্যাম্পাসে যারা নবীন হয়ে এসেছে তাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা করতে আমরা অঙ্গীকারবদ্ধ।”

একই বিষয়ে বলতে গিয়ে শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক মো. সামিন ইয়াসির শাফিন বলেন, “আজ থেকে ৩ বছর আগে আমরা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে জয় বাংলা বাইক সেবার মাধ্যমে ভর্তিচ্ছু ভাই-বোনদের সাহায্য করার উদ্যোগ গ্রহণ করি। জয় বাংলা বাইক সেবার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে, ভর্তিচ্ছু যেসকল ভাই/বোনের কোনো কারণে পরীক্ষার কেন্দ্রে যেতে দেরী হয়ে যায়, তাদের স্বল্প সময়ে কেন্দ্রে পৌছে দেয়া, যেনো সে মানসিকভাবে শক্ত থেকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারে । আমাদের সামান্য সহযোগীতা যদি পরীক্ষার্থীদের স্বপ্নের পথের নিরাপদ যাত্রা সুনিশ্চিত করে, তবে সেখানেই আমাদের সার্থকতা।”

এ প্রসঙ্গে মীর মশাররফ হোসেন হল ছাত্রনেতা আব্দুল্লাহ আল ফারুক ইমরান বলেন, “বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা প্রদানে আমাদের অঙ্গীকার রয়েছে। যার ধারাবাহিকতায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ এর অন্যতম ইউনিট মীর মশাররফ হোসেন হল ছাত্রলীগ বিভিন্ন সেবা নিয়ে এগিয়ে এসেছে। অতীত ও বর্তমান এর ন্যায় ভবিষ্যতেও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে বঙ্গবন্ধু তনয়া দেশরত্ন শেখ হাসিনার পথচলা মসৃণ রাখতে কাজ করে যাবো আমরা।”

এসময়, একই হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ৪৪ তম আর্বতনের আবুল কালাম আজাদ বলেন, “জয় বাংলা বাইক সার্ভিস এর মাধ্যমে আমরা শিক্ষার্থীদের অতি স্বল্প সময়ের মধ্যে স্বীয় কেন্দ্রে পৌঁছে দিয়ে নিজেরা যেমন আনন্দিত, একই সাথে শিক্ষার্থীরাও উপকৃত হচ্ছে। আমরা এই ধারা অব্যাহত রাখতে চাই।”

দিনব্যাপি পরিচালিত এ সহায়তা কার্যক্রম পরিচালনা ও তত্ত্বাবধানে ছিলেন, মীর মশাররফ হোসেন হল ছাত্রলীগের নেতা ৪২ ব্যাচের ইসমাইল হোসেন, মোঃ আলী, কানন সরকার, ৪৩ ব্যাচের বিপ্লব হোসেন, প্রনয়, রিদম, লায়েব, প্রীতম আরিফ, আল আমিন, ৪৪ ব্যাচের দেলোয়ার হোসেন, আবুল কালাম আজাদ, রাশেদ আল নাঈম, মুবতাসিম ফুয়াদ রুহিন, লেলিন মাহবুব, সামিন ইয়াসির শাফিন, আকন্দ, সজীব হোসেন, ইমরান, ফরিদ এবং পিযুষ।

উদ্যোগটি বাস্তবায়নে সহযোগীতা করেন ৪৫ ব্যাচের হল ছাত্রলীগ নেতা ওমর সানী রাজু, ফারহান রহমান অনিম, আমিরুল ইসলাম সুজন, রিজন বড়ুয়া, মোস্তাফিজুর রহমান, রাকিবুল হাসান, গৌতম কুমার দাশ, সনজিত মাহাতো রনি, মিরাজ এবং রাব্বি।

এছাড়াও মীর মশাররফ হোসেন হল ছাত্রলীগ কর্মী ৪৬ ব্যাচের শিক্ষার্থী সাগর, তাপস সোহেল, সায়েদ, পুলক, সাদ, জনি, তারেক, দিপু ও নাজমুল সহ হল ছাত্রলীগের প্রায় দেড় শতাধিক কর্মী এ কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেন।

এদিকে, জয় বাংলা বাইক সার্ভিস পরিচালনা ছাড়াও ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে আনন্দ মিছিল করেছে মীর মশাররফ হোসেন হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।