০৪:৪৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দোহায় তালেবান নেতার সঙ্গে ভারতীয় কূটনীতিকের বৈঠক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের কূটনীতিকরা কাতারের রাজধানী দোহায় তালেবানের একজন শীর্ষ নেতার সঙ্গে বৈঠক করেছেন। গত ১৫ আগস্ট তালেবান কর্তৃক আফগানিস্তান দখলের পর এটিই ভারতের সঙ্গে তাঁদের প্রথম আনুষ্ঠানিক বৈঠক। (তথ্যসূত্রঃ ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক)

এক বিবৃতিতে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দোহায় ভারতীয় রাষ্ট্রদূত দীপক মিত্তাল তালেবান নেতা শের মোহাম্মদ আব্বাস স্টেনেকজাইয়ের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। দোহায় ভারতের দূতাবাসের ভেতরে এই বৈঠক হয়।

বৈঠকে ভারত কূটনীতিক আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও সুরক্ষা এবং আফগানিস্তানে আটকে পড়া নাগরিকদের দ্রুত দেশে ফেরার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। এছাড়া আফগানিস্তানের সংখ্যালঘু নাগরিক যারা ইন্ডিয়ায় ভ্রমণ করতে চায় তাদের বিষয়েও কথা বলেছে ভারত।

তালেবান নেতার সঙ্গে সাক্ষাতের পর রাষ্ট্রদূত মিত্তাল বলেন, “ভারতবিরোধী কর্মকাণ্ড এবং সন্ত্রাসবাদের জন্য আফগানিস্তানের মাটি ব্যবহার করতে দেয়া হবেনা।” জবাবে তালেবান নেতা এসব বিষয় ইতিবাচকভাবে সমাধান করা হবে বলে আশ্বাস দেন।

প্রসঙ্গত, আফগানিস্তানের অবকাঠামোগত উন্নয়নে ৩০০ কোটি ডলারেরও বেশি বিনিয়োগ করেছে ভারত। এই মুহূর্তে প্রতিবেশী আফগানিস্তানে তালেবান ক্ষমতায় আসার কারণে চরম দুশ্চিন্তার মধ্যে রয়েছে নরেন্দ্র মোদীর সরকার।

আফগানিস্তানে তালেবান সরকার গঠন করতে যাচ্ছে। কিন্তু ভারত এই নতুন সরকারকে স্বীকৃতি দেবে কিনা তা নিয়েও বিভিন্ন মহলে কৌতূহল রয়েছে।

আফগানিস্তানের নতুন সরকারকে ভারত স্বীকৃতি দেবে কিনা? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে সম্প্রতি ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি বলেন, আফগানিস্তানের পরিস্থিতি অনিশ্চিত। সরকার গঠন নিয়েও কোনো পরিষ্কার ছবি পাওয়া যাচ্ছে না। সুতরাং স্বীকৃতির ব্যাপারে তাড়াহুড়ো করে বলা যাচ্ছে না।

ট্যাগ:

দোহায় তালেবান নেতার সঙ্গে ভারতীয় কূটনীতিকের বৈঠক

প্রকাশ: ০৩:২৭:০১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ অগাস্ট ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের কূটনীতিকরা কাতারের রাজধানী দোহায় তালেবানের একজন শীর্ষ নেতার সঙ্গে বৈঠক করেছেন। গত ১৫ আগস্ট তালেবান কর্তৃক আফগানিস্তান দখলের পর এটিই ভারতের সঙ্গে তাঁদের প্রথম আনুষ্ঠানিক বৈঠক। (তথ্যসূত্রঃ ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক)

এক বিবৃতিতে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দোহায় ভারতীয় রাষ্ট্রদূত দীপক মিত্তাল তালেবান নেতা শের মোহাম্মদ আব্বাস স্টেনেকজাইয়ের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। দোহায় ভারতের দূতাবাসের ভেতরে এই বৈঠক হয়।

বৈঠকে ভারত কূটনীতিক আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও সুরক্ষা এবং আফগানিস্তানে আটকে পড়া নাগরিকদের দ্রুত দেশে ফেরার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। এছাড়া আফগানিস্তানের সংখ্যালঘু নাগরিক যারা ইন্ডিয়ায় ভ্রমণ করতে চায় তাদের বিষয়েও কথা বলেছে ভারত।

তালেবান নেতার সঙ্গে সাক্ষাতের পর রাষ্ট্রদূত মিত্তাল বলেন, “ভারতবিরোধী কর্মকাণ্ড এবং সন্ত্রাসবাদের জন্য আফগানিস্তানের মাটি ব্যবহার করতে দেয়া হবেনা।” জবাবে তালেবান নেতা এসব বিষয় ইতিবাচকভাবে সমাধান করা হবে বলে আশ্বাস দেন।

প্রসঙ্গত, আফগানিস্তানের অবকাঠামোগত উন্নয়নে ৩০০ কোটি ডলারেরও বেশি বিনিয়োগ করেছে ভারত। এই মুহূর্তে প্রতিবেশী আফগানিস্তানে তালেবান ক্ষমতায় আসার কারণে চরম দুশ্চিন্তার মধ্যে রয়েছে নরেন্দ্র মোদীর সরকার।

আফগানিস্তানে তালেবান সরকার গঠন করতে যাচ্ছে। কিন্তু ভারত এই নতুন সরকারকে স্বীকৃতি দেবে কিনা তা নিয়েও বিভিন্ন মহলে কৌতূহল রয়েছে।

আফগানিস্তানের নতুন সরকারকে ভারত স্বীকৃতি দেবে কিনা? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে সম্প্রতি ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি বলেন, আফগানিস্তানের পরিস্থিতি অনিশ্চিত। সরকার গঠন নিয়েও কোনো পরিষ্কার ছবি পাওয়া যাচ্ছে না। সুতরাং স্বীকৃতির ব্যাপারে তাড়াহুড়ো করে বলা যাচ্ছে না।