০৯:১৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মানবতার সেবায় মহানুভব একজন মেয়র টিটু

এনামুল হক ছোটনঃ ময়মনসিংহের আনন্দমোহন কলেজ গোটা বাংলাদেশের মাঝে একটি প্রাচীনতম বিদ্যাপীঠ । হাজার হাজার শিক্ষার্থীর পদচারণায় মুখরিত থাকে এই প্রতিষ্ঠানটি, কিন্তু গত ১৭ মার্চ থেকে করোনার ভয়াল থাবা থেকে শিক্ষার্থীদের মুক্ত রাখতে বন্ধ রাখা হয় সকল ক্লাস কার্যক্রম। থমকে গেছে কলেজ কার্যক্রম ও সেই সাথে কলেজ আজ শিক্ষার্থীমুক্ত । কিন্তু শিক্ষার্থীমুক্ত কলেজেও প্রতিনিয়তই অবকাঠামোগত সবকিছু গুছিয়ে রাখার জন্য কাজ করে যাচ্ছে একদল সাহসী মানুষ।

করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সেইসব সাহসী মানুষদের নিয়ে এক ভিন্নধর্মী চিন্তাভাবনা নিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, আনন্দ মোহন কলেজ শাখার আয়োজনে, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মহোদয়ের সার্বিক সহযোগিতায় আসন্ন ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষ্যে আনন্দ মোহন কলেজের প্রায় ২০০ জন কর্মচারীদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ করেন ।

উল্লেখ্য যে এই করুণা কালীন সময় থেকে অদ্যবধি ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মহোদয়ের উদ্যোগে প্রায় লক্ষাধীক নগরীর মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। উক্ত আয়োজনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ আনন্দ মোহন কলেজ শাখার আহবায়ক মোঃ মাহমুদুল হাসান সবুজ ,যুগ্ম-আহ্বায়ক ইয়াসিন আরাফাত খোকন, মোঃ শেখ সজল, মোঃ মাহফুজুল আলম ফাহাদ, মোঃ রেদুয়ানুল হুদা আজাদ, মোঃ জুনায়েদ হোসেন টিপু , ছাত্রনেতা ওমর,তানভীর,শৈবাল,নাজমুল সহ আরো অনেক কর্মীই উপস্থিত থেকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ঈদ উপহার বিতরণ কার্যক্রমকে সফল করে।

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু ঈদ উপহার বিতরণের সময় বলেন ,

‘এই উপহার আমাদের নয়; এই উপহার প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে আপনাদের জন্য উপহার। বিশ্ব যতদিন করোনামুক্ত না হবে আমরা ততদিন আপনাদের পাশে থেকে যাবো, আপনাদের কাছে জননেত্রী শেখ হাসিনা’র উপহার সামগ্রী পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা করবো ।’

অন্যদিকে কলেজের কর্মচারীরাও ঈদ উপহার পেয়ে আনন্দিত। ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মহোদয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে কর্মচারীদের নেতা সায়ীদুল ইসলাম ভূঁইয়া বলেন,

“তিনি যে আমাদের কথা মনে রেখেছেন তাতেই আমরা মহা খুশি।”

আনন্দ মোহন কলেজ ছাত্রলীগের আহব্বায়ক বলেন,

“আপনি (মেয়র) ভালো থাকলে ভালো থাকবে ময়মনসিংহ নগরবাসী, আপনি সুস্থ থাকলে সুস্থ থাকবে ময়মনসিংহ নগরবাসী আর তাই কায়মনোবাক্যে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের নিকট প্রার্থনা করি সৃষ্টিকর্তা যেন আপনাকে আমৃত্যু সুস্থতা দান করেন। সেই সাথে এই ক্রান্তিলগ্নে সময়ে আমাদের কর্মচারী ভাইদের প্রতি আপনার উদার মানসিকতা প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।”

ট্যাগ:

মানবতার সেবায় মহানুভব একজন মেয়র টিটু

প্রকাশ: ১০:৩২:০৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ মে ২০২০

এনামুল হক ছোটনঃ ময়মনসিংহের আনন্দমোহন কলেজ গোটা বাংলাদেশের মাঝে একটি প্রাচীনতম বিদ্যাপীঠ । হাজার হাজার শিক্ষার্থীর পদচারণায় মুখরিত থাকে এই প্রতিষ্ঠানটি, কিন্তু গত ১৭ মার্চ থেকে করোনার ভয়াল থাবা থেকে শিক্ষার্থীদের মুক্ত রাখতে বন্ধ রাখা হয় সকল ক্লাস কার্যক্রম। থমকে গেছে কলেজ কার্যক্রম ও সেই সাথে কলেজ আজ শিক্ষার্থীমুক্ত । কিন্তু শিক্ষার্থীমুক্ত কলেজেও প্রতিনিয়তই অবকাঠামোগত সবকিছু গুছিয়ে রাখার জন্য কাজ করে যাচ্ছে একদল সাহসী মানুষ।

করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সেইসব সাহসী মানুষদের নিয়ে এক ভিন্নধর্মী চিন্তাভাবনা নিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, আনন্দ মোহন কলেজ শাখার আয়োজনে, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মহোদয়ের সার্বিক সহযোগিতায় আসন্ন ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষ্যে আনন্দ মোহন কলেজের প্রায় ২০০ জন কর্মচারীদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ করেন ।

উল্লেখ্য যে এই করুণা কালীন সময় থেকে অদ্যবধি ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মহোদয়ের উদ্যোগে প্রায় লক্ষাধীক নগরীর মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। উক্ত আয়োজনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ আনন্দ মোহন কলেজ শাখার আহবায়ক মোঃ মাহমুদুল হাসান সবুজ ,যুগ্ম-আহ্বায়ক ইয়াসিন আরাফাত খোকন, মোঃ শেখ সজল, মোঃ মাহফুজুল আলম ফাহাদ, মোঃ রেদুয়ানুল হুদা আজাদ, মোঃ জুনায়েদ হোসেন টিপু , ছাত্রনেতা ওমর,তানভীর,শৈবাল,নাজমুল সহ আরো অনেক কর্মীই উপস্থিত থেকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ঈদ উপহার বিতরণ কার্যক্রমকে সফল করে।

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু ঈদ উপহার বিতরণের সময় বলেন ,

‘এই উপহার আমাদের নয়; এই উপহার প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে আপনাদের জন্য উপহার। বিশ্ব যতদিন করোনামুক্ত না হবে আমরা ততদিন আপনাদের পাশে থেকে যাবো, আপনাদের কাছে জননেত্রী শেখ হাসিনা’র উপহার সামগ্রী পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা করবো ।’

অন্যদিকে কলেজের কর্মচারীরাও ঈদ উপহার পেয়ে আনন্দিত। ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মহোদয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে কর্মচারীদের নেতা সায়ীদুল ইসলাম ভূঁইয়া বলেন,

“তিনি যে আমাদের কথা মনে রেখেছেন তাতেই আমরা মহা খুশি।”

আনন্দ মোহন কলেজ ছাত্রলীগের আহব্বায়ক বলেন,

“আপনি (মেয়র) ভালো থাকলে ভালো থাকবে ময়মনসিংহ নগরবাসী, আপনি সুস্থ থাকলে সুস্থ থাকবে ময়মনসিংহ নগরবাসী আর তাই কায়মনোবাক্যে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের নিকট প্রার্থনা করি সৃষ্টিকর্তা যেন আপনাকে আমৃত্যু সুস্থতা দান করেন। সেই সাথে এই ক্রান্তিলগ্নে সময়ে আমাদের কর্মচারী ভাইদের প্রতি আপনার উদার মানসিকতা প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।”