০১:১৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

টেকসই আগামীর জন্য ঐক্য চাই: জি২০-তে মোদী

প্রযুক্তির গণতন্ত্রীকরণের আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সোমবার (১২ জুন) থেকে বারাণসীতে জি২০ গোষ্ঠীর ডেভেলপমেন্ট মিনিস্টারদের সম্মেলন শুরু হল। ভিডিয়ো কনফারেন্সিং-এর মাধ্যমে এই সম্মেলনে উদ্বোধনী ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। সেখানেই তিনি তথ্য বন্টনের ক্ষেত্রে কোনও দেশ বা গোষ্ঠীর মধ্যে যাতে বিভাজন না থাকে, তার জন্য প্রযুক্তির গণতন্ত্রীকরণের আহ্বান জানান।

একই সঙ্গে তিনি বলেন, ভারতে বৈপ্লবিক পরিবর্তন এনেছে ডিজিটালাইজেশন। মিত্র দেশগুলির সঙ্গে এই অভিজ্ঞতা ভাগ করে নিতে ইচ্ছুক ভারত। একইসঙ্গে, অভাবী দেশগুলির যাতে প্রয়োজনের সময় অর্থ সহায়তার অভাব না হয়, তার জন্য বহুপাক্ষিক আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলির সংস্কার করার, তাদের যোগ্যতার মাপকাঠিগুলি আরও প্রসারিত করার উপরও জোর দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী।

প্রধানমন্ত্রী জানান, তথ্য বন্টনের ক্ষেত্রে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মধ্যে ক্রমে বিভাজন বাড়ছে। জি২০ গোষ্ঠীর ডেভেলপমেন্ট মিনিস্টারদের সামনে তিনি বলেন, সরকারি নীতি-নির্ধারণ এবং দক্ষতার সঙ্গে জন পরিষেবা দানের ক্ষেত্রে তথ্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। তিনি জানান, ভারতে প্রায় ১০০-রও বেশি অনুন্নত জেলা ছিল। এই জেলাগুলিতে সরকারি পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা নিয়েছে ডিজিটালাইজশন।

প্রধানমন্ত্রী আরও জানান, এই জেলাগুলি দেশের বৃদ্ধির ক্ষেত্রে অনুঘটক হিসাবে কাজ করেছে। তিনি বলেন, “ভারতে ডিজিটালাইজেশন একটি বৈপ্লবিক পরিবর্তন এনেছে। মানুষের ক্ষমতায়নের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে প্রযুক্তিকে।” জি২০ সম্মেলনে অংশ নেওয়া প্রতিনিধিদের তিনি ভারতের এই ডিজিটালাইজেশনের মাধ্যমে সার্বিক উন্নয়নের মডেলটি অধ্যয়নের অনুরোধ জানিয়েছেন। জি২০ ডেভেলপমেন্ট মন্ত্রীদের সম্মেলনের ক্ষেত্রে এটা প্রাসঙ্গিক হতে পরে বলে, মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী

‘গ্লোবাল সাউথ’, অর্থাৎ, ল্যাটিন আমেরিকা, আফ্রিকা, এশিয়া এবং ওশিয়ানিয়া অঞ্চলের জন্য উন্নয়নই মূল সমস্যা বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। বিশ্বব্যাপী কোভিড মহামারির কারণে এই অঞ্চলের দেশগুলি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। ভূ-রাজনৈতিক উত্তেজনার কারণে এই দেশগুলিতে বর্তমানে খাদ্য, জ্বালানি এবং সারের সঙ্কট দেখা দিয়েছে। তাতে ফের ধাক্কা খেয়েছে গ্লোবাল সাউথ।

জি২০ সম্মেলনের প্রতিনিধিদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন, “এই পরিস্থিতিতে, আপনাদের সিদ্ধান্তগুলি সামগ্রিকভাবে মানব সভ্যতার জন্য অত্যন্ত তাৎপর্পূর্ণ। আমার দৃঢ় বিশ্বাস, স্থিতিশীল উন্নয়নে লক্ষ্যগুলি যাতে পিছিয়ে না পড়ে, তা নিশ্চিত করাটা আমাদের সম্মিলিত দায়িত্ব। আমাদের দেখতে হবে, যাতে কেউ পিছিয়ে না পড়ে। আর এই লক্ষ্য অর্জনের জন্য, একটা কর্ম পরিকল্পনা তৈরি করতে হবে এই গোষ্ঠীকে।” খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:
জনপ্রিয়

টেকসই আগামীর জন্য ঐক্য চাই: জি২০-তে মোদী

প্রকাশ: ০৬:৩১:০৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১২ জুন ২০২৩

প্রযুক্তির গণতন্ত্রীকরণের আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সোমবার (১২ জুন) থেকে বারাণসীতে জি২০ গোষ্ঠীর ডেভেলপমেন্ট মিনিস্টারদের সম্মেলন শুরু হল। ভিডিয়ো কনফারেন্সিং-এর মাধ্যমে এই সম্মেলনে উদ্বোধনী ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। সেখানেই তিনি তথ্য বন্টনের ক্ষেত্রে কোনও দেশ বা গোষ্ঠীর মধ্যে যাতে বিভাজন না থাকে, তার জন্য প্রযুক্তির গণতন্ত্রীকরণের আহ্বান জানান।

একই সঙ্গে তিনি বলেন, ভারতে বৈপ্লবিক পরিবর্তন এনেছে ডিজিটালাইজেশন। মিত্র দেশগুলির সঙ্গে এই অভিজ্ঞতা ভাগ করে নিতে ইচ্ছুক ভারত। একইসঙ্গে, অভাবী দেশগুলির যাতে প্রয়োজনের সময় অর্থ সহায়তার অভাব না হয়, তার জন্য বহুপাক্ষিক আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলির সংস্কার করার, তাদের যোগ্যতার মাপকাঠিগুলি আরও প্রসারিত করার উপরও জোর দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী।

প্রধানমন্ত্রী জানান, তথ্য বন্টনের ক্ষেত্রে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মধ্যে ক্রমে বিভাজন বাড়ছে। জি২০ গোষ্ঠীর ডেভেলপমেন্ট মিনিস্টারদের সামনে তিনি বলেন, সরকারি নীতি-নির্ধারণ এবং দক্ষতার সঙ্গে জন পরিষেবা দানের ক্ষেত্রে তথ্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। তিনি জানান, ভারতে প্রায় ১০০-রও বেশি অনুন্নত জেলা ছিল। এই জেলাগুলিতে সরকারি পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা নিয়েছে ডিজিটালাইজশন।

প্রধানমন্ত্রী আরও জানান, এই জেলাগুলি দেশের বৃদ্ধির ক্ষেত্রে অনুঘটক হিসাবে কাজ করেছে। তিনি বলেন, “ভারতে ডিজিটালাইজেশন একটি বৈপ্লবিক পরিবর্তন এনেছে। মানুষের ক্ষমতায়নের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে প্রযুক্তিকে।” জি২০ সম্মেলনে অংশ নেওয়া প্রতিনিধিদের তিনি ভারতের এই ডিজিটালাইজেশনের মাধ্যমে সার্বিক উন্নয়নের মডেলটি অধ্যয়নের অনুরোধ জানিয়েছেন। জি২০ ডেভেলপমেন্ট মন্ত্রীদের সম্মেলনের ক্ষেত্রে এটা প্রাসঙ্গিক হতে পরে বলে, মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী

‘গ্লোবাল সাউথ’, অর্থাৎ, ল্যাটিন আমেরিকা, আফ্রিকা, এশিয়া এবং ওশিয়ানিয়া অঞ্চলের জন্য উন্নয়নই মূল সমস্যা বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। বিশ্বব্যাপী কোভিড মহামারির কারণে এই অঞ্চলের দেশগুলি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। ভূ-রাজনৈতিক উত্তেজনার কারণে এই দেশগুলিতে বর্তমানে খাদ্য, জ্বালানি এবং সারের সঙ্কট দেখা দিয়েছে। তাতে ফের ধাক্কা খেয়েছে গ্লোবাল সাউথ।

জি২০ সম্মেলনের প্রতিনিধিদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন, “এই পরিস্থিতিতে, আপনাদের সিদ্ধান্তগুলি সামগ্রিকভাবে মানব সভ্যতার জন্য অত্যন্ত তাৎপর্পূর্ণ। আমার দৃঢ় বিশ্বাস, স্থিতিশীল উন্নয়নে লক্ষ্যগুলি যাতে পিছিয়ে না পড়ে, তা নিশ্চিত করাটা আমাদের সম্মিলিত দায়িত্ব। আমাদের দেখতে হবে, যাতে কেউ পিছিয়ে না পড়ে। আর এই লক্ষ্য অর্জনের জন্য, একটা কর্ম পরিকল্পনা তৈরি করতে হবে এই গোষ্ঠীকে।” খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক