০৬:৩২ অপরাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ভারত সফরে আসছেন ইউক্রেনের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ভারত সফরে আসছেন ইউক্রেনের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী এমিন জাপারোভা। ইউক্রেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আগামী রোববার (৯ এপ্রিল) নয়াদিল্লি পৌঁছবেন তিনি।

গত বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ সেনার হামলা শুরুর পরে এই প্রথম ইউক্রেনের কোনও মন্ত্রী ভারত সফরে আসছেন।

চার দিনের সফরে জাপারোভা ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বিনয়মোহন কাওয়াত্রা, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মীনাক্ষী লেখি, উপ-জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা বিক্রম মিসরিসহ গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের সঙ্গে বৈঠক করবেন।

জাপারোভা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে কিয়েভ সফরের আমন্ত্রণ জানাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। কূটনৈতিক সূত্রের খবর, রুশ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ভারতের নৈতিক সমর্থন এবং মানবিক সহায়তাও চাইতে পারেন তিনি।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনে সেনা অভিযানের নির্দেশ দেওয়ার এক মাস পরেই ভারত সফরে এসেছিলেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শঙ্করের সঙ্গে বৈঠক হয়েছিল তার।তাৎপর্যপূর্ণভাবে এখনও যুদ্ধ নিয়ে মস্কোর বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপের দেশগুলোর জাতিসংঘে আনা কোনও প্রস্তাবই সমর্থন করেনি ভারত।

যুদ্ধ পরিস্থিতিতে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সঙ্গে একাধিকবার ফোনে প্রধানমন্ত্রী মোদির কথা হয়েছে। যুদ্ধ থামানোর জন্য ভারতের সহায়তাও চেয়েছেন জেলেনস্কি।

প্রায় তিন দশক আগে সোভিয়েত প্রজাতন্ত্র ভেঙে নতুন রাষ্ট্র হিসাবে ইউক্রেনের আত্মপ্রকাশের পর থেকেই কিয়েভের সঙ্গে নয়াদিল্লির সুসম্পর্ক রয়েছে।

কিন্তু প্রতিরক্ষাসহ একাধিক ক্ষেত্রে রাশিয়ার নির্ভরতার কথা মাথায় রেখেই যুদ্ধ নিয়ে ভারসাম্যের কূটনীতিতেই সাউথ ব্লকে হাঁটবে নয়াদিল্লি। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:
জনপ্রিয়

ভারত সফরে আসছেন ইউক্রেনের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশ: ০৫:৩৭:১২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৮ এপ্রিল ২০২৩

ভারত সফরে আসছেন ইউক্রেনের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী এমিন জাপারোভা। ইউক্রেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আগামী রোববার (৯ এপ্রিল) নয়াদিল্লি পৌঁছবেন তিনি।

গত বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ সেনার হামলা শুরুর পরে এই প্রথম ইউক্রেনের কোনও মন্ত্রী ভারত সফরে আসছেন।

চার দিনের সফরে জাপারোভা ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বিনয়মোহন কাওয়াত্রা, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মীনাক্ষী লেখি, উপ-জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা বিক্রম মিসরিসহ গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের সঙ্গে বৈঠক করবেন।

জাপারোভা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে কিয়েভ সফরের আমন্ত্রণ জানাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। কূটনৈতিক সূত্রের খবর, রুশ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ভারতের নৈতিক সমর্থন এবং মানবিক সহায়তাও চাইতে পারেন তিনি।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনে সেনা অভিযানের নির্দেশ দেওয়ার এক মাস পরেই ভারত সফরে এসেছিলেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শঙ্করের সঙ্গে বৈঠক হয়েছিল তার।তাৎপর্যপূর্ণভাবে এখনও যুদ্ধ নিয়ে মস্কোর বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপের দেশগুলোর জাতিসংঘে আনা কোনও প্রস্তাবই সমর্থন করেনি ভারত।

যুদ্ধ পরিস্থিতিতে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সঙ্গে একাধিকবার ফোনে প্রধানমন্ত্রী মোদির কথা হয়েছে। যুদ্ধ থামানোর জন্য ভারতের সহায়তাও চেয়েছেন জেলেনস্কি।

প্রায় তিন দশক আগে সোভিয়েত প্রজাতন্ত্র ভেঙে নতুন রাষ্ট্র হিসাবে ইউক্রেনের আত্মপ্রকাশের পর থেকেই কিয়েভের সঙ্গে নয়াদিল্লির সুসম্পর্ক রয়েছে।

কিন্তু প্রতিরক্ষাসহ একাধিক ক্ষেত্রে রাশিয়ার নির্ভরতার কথা মাথায় রেখেই যুদ্ধ নিয়ে ভারসাম্যের কূটনীতিতেই সাউথ ব্লকে হাঁটবে নয়াদিল্লি। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক