০১:১১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে বিশ্বকে পথ দেখাচ্ছে ভারত: জি-২০-তে মোদী

বিশ্বের অর্থনীতি যাতে সব প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে আবার ঘুরে দাঁড়ায়, সেই বার্তাই দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। অর্থনীতিতে স্থায়ীত্ব, আত্মবিশ্বাস আর অগ্রগতি আনার জন্য বিশ্বের সমস্ত বৃহত্তর অর্থনীতির দেশগুলিকে দায়িত্ব নিতে হবে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। চলতি বছরে ভারতের সভাপতিত্বে আয়োজিত হতে চলেছে জি ২০ সম্মেলন।

তার আগে প্রথমবার জি ২০-র সদস্য দেশগুলির অর্থমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের গভর্নরদের নিয়ে ছিল এই বৈঠক। শুক্রবার সকালে বেঙ্গালুরুতে আয়োজিত সেই বৈঠকে ভিডিয়ো বার্তায় ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। অর্থনীতির ক্ষেত্রে কোন কোন বিষয়ে গুরুত্ব দেওয়া উচিত সে বিষয়েই বক্তব্য রাখেন তিনি। জি-২০ বৈঠকের আগে এটাই ছিল প্রথম মন্ত্রী স্তরের বৈঠক।

এদিন বক্তব্যের শুরুতেই প্রধানমন্ত্রী মনে করিয়ে দেন, এমন একটা সময়ে এই বৈঠক হচ্ছে, যখন বিশ্ব একটা কঠিন অবস্থার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। এই প্রসঙ্গে তিনি উল্লেখ করেন কোভিডের পর এমনিতেই বড় ধাক্কা খেয়েছে অর্থনীতি। এছাড়া বর্তমানে যেভাবে মূল্যবৃদ্ধি মাথাচাড়া দিয়েছে, বছরের পর বছর ধরে বাড়তে থাকা ঋণ, অর্থনৈতিক সংস্কারের অভাবকেও বর্তমান পরিস্থিতির কারণ হিসেবে উল্লেখ করেন মোদী।

সদস্য দেশগুলির অর্থমন্ত্রীদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের সবথেকে পিছিয়ে পড়া মানুষগুলোর দিকে নজর দিন। আর সার্বিক উন্নয়নের কথা ভাবুন। ভারতের সভাপতিত্বে যে জি ২০ সম্মেলনের আয়োজন হতে চলেছে, তার মূল উপজীব্যই যে সার্বিক উন্নয়ন, সে কথাই বলেন প্রধানমন্ত্রী। এই সম্মেলনের থিম, ‘ওয়ান আর্থ, ওয়ান ফ্যামিলি, ওয়ান ফিউচার’ (এক বিশ্ব, এক পরিবার, এক ভবিষ্যৎ)।

করোনা অতিমারির সময় ডিজিটাল পেমেন্ট পদ্ধতি কতটা জনপ্রিয় হয়েছে, সে কথাও এদিন মনে করিয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। তিনি উল্লেখ করেন, প্রযুক্তি আরও বেশি করে ব্যবহার করতে হবে। আর ডিজিটাল পেমেন্টের অপব্যবহার রুখতে হবে। অন্যান্য দেশের প্রতিনিধিদের মোদী জানান, ভারত কতটা সুরক্ষিত ও বিশ্বাসযোগ্য লেনদেনের পদ্ধতি চালু করেছে।

ভারতের প্রযুক্তির শহর বেঙ্গালুরুতে এই বৈঠক হচ্ছে। তাই প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করেন এখানে প্রতিনিধিরা সহজেই বুঝতে পারবে লেনদেন ক্ষেত্রে ভারতীয় প্রযুক্তিতে কতটা অগ্রগতি হয়েছে।

ভারতের ইউপিআই পদ্ধতি অনেক দেশের কাছেই উদাহরণ হয়ে উঠতে পারে বলে মন্তব্য করেন মোদী। তিনি বলেন, ‘আমরা আমাদের অভিজ্ঞতা অন্যদের সঙ্গে ভাগ করে নিতে পারলে খুশি হব। আর জি ২০-র মাধ্যমেই সেটা সম্ভব।’ খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:
জনপ্রিয়

ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে বিশ্বকে পথ দেখাচ্ছে ভারত: জি-২০-তে মোদী

প্রকাশ: ০১:৪৭:১৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

বিশ্বের অর্থনীতি যাতে সব প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে আবার ঘুরে দাঁড়ায়, সেই বার্তাই দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। অর্থনীতিতে স্থায়ীত্ব, আত্মবিশ্বাস আর অগ্রগতি আনার জন্য বিশ্বের সমস্ত বৃহত্তর অর্থনীতির দেশগুলিকে দায়িত্ব নিতে হবে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। চলতি বছরে ভারতের সভাপতিত্বে আয়োজিত হতে চলেছে জি ২০ সম্মেলন।

তার আগে প্রথমবার জি ২০-র সদস্য দেশগুলির অর্থমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের গভর্নরদের নিয়ে ছিল এই বৈঠক। শুক্রবার সকালে বেঙ্গালুরুতে আয়োজিত সেই বৈঠকে ভিডিয়ো বার্তায় ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। অর্থনীতির ক্ষেত্রে কোন কোন বিষয়ে গুরুত্ব দেওয়া উচিত সে বিষয়েই বক্তব্য রাখেন তিনি। জি-২০ বৈঠকের আগে এটাই ছিল প্রথম মন্ত্রী স্তরের বৈঠক।

এদিন বক্তব্যের শুরুতেই প্রধানমন্ত্রী মনে করিয়ে দেন, এমন একটা সময়ে এই বৈঠক হচ্ছে, যখন বিশ্ব একটা কঠিন অবস্থার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। এই প্রসঙ্গে তিনি উল্লেখ করেন কোভিডের পর এমনিতেই বড় ধাক্কা খেয়েছে অর্থনীতি। এছাড়া বর্তমানে যেভাবে মূল্যবৃদ্ধি মাথাচাড়া দিয়েছে, বছরের পর বছর ধরে বাড়তে থাকা ঋণ, অর্থনৈতিক সংস্কারের অভাবকেও বর্তমান পরিস্থিতির কারণ হিসেবে উল্লেখ করেন মোদী।

সদস্য দেশগুলির অর্থমন্ত্রীদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের সবথেকে পিছিয়ে পড়া মানুষগুলোর দিকে নজর দিন। আর সার্বিক উন্নয়নের কথা ভাবুন। ভারতের সভাপতিত্বে যে জি ২০ সম্মেলনের আয়োজন হতে চলেছে, তার মূল উপজীব্যই যে সার্বিক উন্নয়ন, সে কথাই বলেন প্রধানমন্ত্রী। এই সম্মেলনের থিম, ‘ওয়ান আর্থ, ওয়ান ফ্যামিলি, ওয়ান ফিউচার’ (এক বিশ্ব, এক পরিবার, এক ভবিষ্যৎ)।

করোনা অতিমারির সময় ডিজিটাল পেমেন্ট পদ্ধতি কতটা জনপ্রিয় হয়েছে, সে কথাও এদিন মনে করিয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। তিনি উল্লেখ করেন, প্রযুক্তি আরও বেশি করে ব্যবহার করতে হবে। আর ডিজিটাল পেমেন্টের অপব্যবহার রুখতে হবে। অন্যান্য দেশের প্রতিনিধিদের মোদী জানান, ভারত কতটা সুরক্ষিত ও বিশ্বাসযোগ্য লেনদেনের পদ্ধতি চালু করেছে।

ভারতের প্রযুক্তির শহর বেঙ্গালুরুতে এই বৈঠক হচ্ছে। তাই প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করেন এখানে প্রতিনিধিরা সহজেই বুঝতে পারবে লেনদেন ক্ষেত্রে ভারতীয় প্রযুক্তিতে কতটা অগ্রগতি হয়েছে।

ভারতের ইউপিআই পদ্ধতি অনেক দেশের কাছেই উদাহরণ হয়ে উঠতে পারে বলে মন্তব্য করেন মোদী। তিনি বলেন, ‘আমরা আমাদের অভিজ্ঞতা অন্যদের সঙ্গে ভাগ করে নিতে পারলে খুশি হব। আর জি ২০-র মাধ্যমেই সেটা সম্ভব।’ খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক