১২:২৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ভারত-মিশরের বিশেষ সামরিক মহড়া শুরু

প্রথমবারের মতো যৌথ মহড়ায় নেমেছে ভারত ও মিশরের বিশেষ বাহিনী। ১৪ জানুয়ারী, রাজস্থানের জয়সলমীরে অনুশীলন ‘সাইক্লোন-আই’ নামের এই মহড়াটি শুরু হয়েছে। শুক্রবার, তথ্যটি নিশ্চিত করে বিবৃতি দিয়েছে ভারতের প্রতিরক্ষা দপ্তর।

জানা গিয়েছে, এই মহড়ার লক্ষ্য দুই দেশের মধ্যে প্রতিরক্ষা সহযোগিতা জোরদার করা এবং মরুভূমিতে বিশেষ বাহিনীর আন্তঃকার্যক্ষমতা ভাগ করে নেওয়ার উপর ফোকাস করা, সন্ত্রাস দমন, পুনরুদ্ধার, অভিযান এবং অন্যান্য বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা।

মন্ত্রণালয় সূত্রে বলা হয়েছে, ১৪-দিনব্যাপী এই মহড়ার সময় উভয় দলই স্নাইপিং, কমব্যাট ফ্রি ফল, রিকনেসান্স, নজরদারি এবং লক্ষ্য উপাধি, অস্ত্র, সরঞ্জাম, উদ্ভাবন, কৌশল, কৌশল এবং পদ্ধতি সম্পর্কিত তথ্য আদান-প্রদানের মতো বিশেষ বাহিনীর দক্ষতা বাড়াতে নিযুক্ত হবে।

অংশগ্রহণকারীরা একটি যান্ত্রিক যুদ্ধ ব্যবস্থায় বিশেষ বাহিনী অভিযানের জন্য যৌথ পরিকল্পনা এবং মহড়ার পাশাপাশি সন্ত্রাসী শিবির এবং গোপন আস্তানায় সার্জিক্যাল স্ট্রাইক পরিচালনা করবে, যাতে উচ্চ মূল্যের লক্ষ্যবস্তুগুলির স্নিপিং অন্তর্ভুক্ত থাকে।

প্রসঙ্গত, ২০২২ সালে ভারত এবং মিশর প্রতিরক্ষা সহযোগিতার বিষয়ে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছিল। ফলত, এই মহড়াটি অনুষ্ঠিত হলো। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:
জনপ্রিয়

ভারত-মিশরের বিশেষ সামরিক মহড়া শুরু

প্রকাশ: ০২:৪০:৪২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২০ জানুয়ারী ২০২৩

প্রথমবারের মতো যৌথ মহড়ায় নেমেছে ভারত ও মিশরের বিশেষ বাহিনী। ১৪ জানুয়ারী, রাজস্থানের জয়সলমীরে অনুশীলন ‘সাইক্লোন-আই’ নামের এই মহড়াটি শুরু হয়েছে। শুক্রবার, তথ্যটি নিশ্চিত করে বিবৃতি দিয়েছে ভারতের প্রতিরক্ষা দপ্তর।

জানা গিয়েছে, এই মহড়ার লক্ষ্য দুই দেশের মধ্যে প্রতিরক্ষা সহযোগিতা জোরদার করা এবং মরুভূমিতে বিশেষ বাহিনীর আন্তঃকার্যক্ষমতা ভাগ করে নেওয়ার উপর ফোকাস করা, সন্ত্রাস দমন, পুনরুদ্ধার, অভিযান এবং অন্যান্য বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা।

মন্ত্রণালয় সূত্রে বলা হয়েছে, ১৪-দিনব্যাপী এই মহড়ার সময় উভয় দলই স্নাইপিং, কমব্যাট ফ্রি ফল, রিকনেসান্স, নজরদারি এবং লক্ষ্য উপাধি, অস্ত্র, সরঞ্জাম, উদ্ভাবন, কৌশল, কৌশল এবং পদ্ধতি সম্পর্কিত তথ্য আদান-প্রদানের মতো বিশেষ বাহিনীর দক্ষতা বাড়াতে নিযুক্ত হবে।

অংশগ্রহণকারীরা একটি যান্ত্রিক যুদ্ধ ব্যবস্থায় বিশেষ বাহিনী অভিযানের জন্য যৌথ পরিকল্পনা এবং মহড়ার পাশাপাশি সন্ত্রাসী শিবির এবং গোপন আস্তানায় সার্জিক্যাল স্ট্রাইক পরিচালনা করবে, যাতে উচ্চ মূল্যের লক্ষ্যবস্তুগুলির স্নিপিং অন্তর্ভুক্ত থাকে।

প্রসঙ্গত, ২০২২ সালে ভারত এবং মিশর প্রতিরক্ষা সহযোগিতার বিষয়ে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছিল। ফলত, এই মহড়াটি অনুষ্ঠিত হলো। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক