০৬:৩৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ভারতে আইপিইএফ বৈঠক ফেব্রুয়ারীতে

আগামী ফেব্রুয়ারীতে ইন্দো-প্যাসিফিক অর্থনৈতিক কাঠামোর (আইপিইএফ) বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে ভারতে। তথ্যটি বুধবার নিশ্চিত করেছেন ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল।

এদিকে, ফোরামটিতে যোগ দেওয়া প্রশ্নের সম্ভাব্য সুবিধা ও অসুবিধা বিবেচনা করছে বাংলাদেশ। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন গতকাল মঙ্গলবার ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে এ কথা জানান। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ (বিআইআইএসএস) তার নিজস্ব মিলনায়তনে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

আইপিইএফ প্রসঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সম্প্রতি, কোয়াড এবং ইন্দো-প্যাসিফিক অর্থনৈতিক কাঠামো নিয়ে বিতর্ক হয়েছে। সমস্যাটি বোঝার জন্য আমরা বিআইআইএসএসকে অনুরোধ করেছি। আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। তারা এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন জমা দিয়েছে।’

উল্লেখ্য, কোয়াড হলো অস্ট্রেলিয়া, ভারত, জাপান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে একটি কৌশলগত নিরাপত্তা সংলাপ। কোয়াড সম্প্রসারিত হলে বাংলাদেশ যদি তাতে যোগ দেয় তাহলে সম্পর্ক নষ্ট হবে বলে চীন সতর্ক করেছে। গত জুনে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশকে আইপিইএফ সম্পর্কে অবহিত করে।

ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাস সম্প্রতি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ও ১৩টি অংশীদারি দেশ আইপিইএফ নিয়ে আলোচনা শুরু করেছে। এটি একটি অভিনব অর্থনৈতিক ব্যবস্থা। তিনি এ বিষয়ে কাজ চালিয়ে যাওয়ার এবং বাংলাদেশসহ সব দেশের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের অংশীদারি বৃদ্ধির ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:
জনপ্রিয়

ভারতে আইপিইএফ বৈঠক ফেব্রুয়ারীতে

প্রকাশ: ১০:০০:৩১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২১ ডিসেম্বর ২০২২

আগামী ফেব্রুয়ারীতে ইন্দো-প্যাসিফিক অর্থনৈতিক কাঠামোর (আইপিইএফ) বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে ভারতে। তথ্যটি বুধবার নিশ্চিত করেছেন ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল।

এদিকে, ফোরামটিতে যোগ দেওয়া প্রশ্নের সম্ভাব্য সুবিধা ও অসুবিধা বিবেচনা করছে বাংলাদেশ। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন গতকাল মঙ্গলবার ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে এ কথা জানান। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ (বিআইআইএসএস) তার নিজস্ব মিলনায়তনে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

আইপিইএফ প্রসঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সম্প্রতি, কোয়াড এবং ইন্দো-প্যাসিফিক অর্থনৈতিক কাঠামো নিয়ে বিতর্ক হয়েছে। সমস্যাটি বোঝার জন্য আমরা বিআইআইএসএসকে অনুরোধ করেছি। আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। তারা এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন জমা দিয়েছে।’

উল্লেখ্য, কোয়াড হলো অস্ট্রেলিয়া, ভারত, জাপান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে একটি কৌশলগত নিরাপত্তা সংলাপ। কোয়াড সম্প্রসারিত হলে বাংলাদেশ যদি তাতে যোগ দেয় তাহলে সম্পর্ক নষ্ট হবে বলে চীন সতর্ক করেছে। গত জুনে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশকে আইপিইএফ সম্পর্কে অবহিত করে।

ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাস সম্প্রতি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ও ১৩টি অংশীদারি দেশ আইপিইএফ নিয়ে আলোচনা শুরু করেছে। এটি একটি অভিনব অর্থনৈতিক ব্যবস্থা। তিনি এ বিষয়ে কাজ চালিয়ে যাওয়ার এবং বাংলাদেশসহ সব দেশের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের অংশীদারি বৃদ্ধির ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক