১২:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শুরু হচ্ছে ভারত-কাজাখস্তানের যৌথ মহড়া

শুরু হয়েছে ভারত ও কাজাখস্তানের যৌথ সামরিক মহড়া কাজিন্দ এর ষষ্ঠ সংস্করণ। এবারের মহড়ার নামকরণ করা হয়েছে কাজিন্দ-২০২২। প্রতিরক্ষা দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, ১৫ ডিসেম্বর হতে আগামী ২৮ ডিসেম্বর অবধি মেঘালয়ের উমরোইতে চলবে মহড়াটি।

উল্লেখ্য, কাজাখস্তানের সেনাবাহিনীর সাথে সম্পর্ক বাড়ানোর প্রয়াস হিসেবে ২০১৬ সাল থেকে নিয়মিত এই মহড়াটি আয়োজন করা হয়ে থাকে। ভারত এবং কাজাখস্তান দু দেশের নামের সাথে মিলিয়ে এর নামকরণ করা হয় কাজিন্দ।

মহড়ায় ভারতের পক্ষে অংশ নিয়েছে ১১ দক্ষিণ গোর্খা রাইফেলসের আঞ্চলিক কমান্ডার ও সেনা সদস্যগণ। মহড়াটির মূল উদ্দেশ্যে উভয় রাষ্ট্রের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও মজবুত করা এবং পারস্পরিক তথ্যাদি বিনিময়ের মাধ্যমে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আরও এক ধাপ এগিয়ে যাওয়া।

প্রতিরক্ষা দপ্তর সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, শান্তিরক্ষা মিশনে যেসব সম্ভাব্য হুমকির সম্মুখীন হতে পারে উভয় সামরিক বাহিনী, সেগুলোর উপরই মূলত এবারের মহড়ায় ফোকাস করা হবে এবং সে অনুসারে অনুশীলন করা হবে।

এছাড়া, ব্যাটালিয়ন পর্যায়ে কমান্ড পোস্ট এক্সারসাইজ এবং উপ-প্রচলিত ক্রিয়াকলাপের ক্ষেত্রে কোম্পানি পর্যায়ে একটি ফিল্ড ট্রেনিং এক্সারসাইজ পরিচালনা করা হবে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মতে, ‘কাজিন্দ মহড়া’ ভারতীয় সেনাবাহিনী এবং কাজাখস্তান সেনাবাহিনীর মধ্যে প্রতিরক্ষা সহযোগিতার স্তরকে বাড়িয়ে তুলবে, যা দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে আরও জোরদার করবে। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:
জনপ্রিয়

শুরু হচ্ছে ভারত-কাজাখস্তানের যৌথ মহড়া

প্রকাশ: ০২:৩৫:৫৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০২২

শুরু হয়েছে ভারত ও কাজাখস্তানের যৌথ সামরিক মহড়া কাজিন্দ এর ষষ্ঠ সংস্করণ। এবারের মহড়ার নামকরণ করা হয়েছে কাজিন্দ-২০২২। প্রতিরক্ষা দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, ১৫ ডিসেম্বর হতে আগামী ২৮ ডিসেম্বর অবধি মেঘালয়ের উমরোইতে চলবে মহড়াটি।

উল্লেখ্য, কাজাখস্তানের সেনাবাহিনীর সাথে সম্পর্ক বাড়ানোর প্রয়াস হিসেবে ২০১৬ সাল থেকে নিয়মিত এই মহড়াটি আয়োজন করা হয়ে থাকে। ভারত এবং কাজাখস্তান দু দেশের নামের সাথে মিলিয়ে এর নামকরণ করা হয় কাজিন্দ।

মহড়ায় ভারতের পক্ষে অংশ নিয়েছে ১১ দক্ষিণ গোর্খা রাইফেলসের আঞ্চলিক কমান্ডার ও সেনা সদস্যগণ। মহড়াটির মূল উদ্দেশ্যে উভয় রাষ্ট্রের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও মজবুত করা এবং পারস্পরিক তথ্যাদি বিনিময়ের মাধ্যমে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আরও এক ধাপ এগিয়ে যাওয়া।

প্রতিরক্ষা দপ্তর সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, শান্তিরক্ষা মিশনে যেসব সম্ভাব্য হুমকির সম্মুখীন হতে পারে উভয় সামরিক বাহিনী, সেগুলোর উপরই মূলত এবারের মহড়ায় ফোকাস করা হবে এবং সে অনুসারে অনুশীলন করা হবে।

এছাড়া, ব্যাটালিয়ন পর্যায়ে কমান্ড পোস্ট এক্সারসাইজ এবং উপ-প্রচলিত ক্রিয়াকলাপের ক্ষেত্রে কোম্পানি পর্যায়ে একটি ফিল্ড ট্রেনিং এক্সারসাইজ পরিচালনা করা হবে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মতে, ‘কাজিন্দ মহড়া’ ভারতীয় সেনাবাহিনী এবং কাজাখস্তান সেনাবাহিনীর মধ্যে প্রতিরক্ষা সহযোগিতার স্তরকে বাড়িয়ে তুলবে, যা দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে আরও জোরদার করবে। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক