০৭:১৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

জঙ্গিদের সুরক্ষায় বৈশ্বিক মঞ্চের অপব্যবহার হচ্ছে: জয়শংকর

‘জঙ্গিদের সুরক্ষা দিতে বহুপাক্ষিক সংগঠনের অপব্যবহার হচ্ছে’, রাষ্ট্রসংঘে চীনের নাম না করেই এমনই তোপ দাগলেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর। রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে এক বৈঠকের সময় এই মন্তব্য করেন তিনি। তাঁর নিশানায় ছিল পাকিস্তানকে মদদ প্রদানকারী চীন।

‘আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তার রক্ষণাবেক্ষণ: বহুপাক্ষিকতার সংস্কারের জন্য নতুন অভিযোজন’ -শীর্ষক এই আলোচনায় জয়শংকর আরও বলেন, সংঘাতের পরিস্থিতিতে এই ধরনের কর্মকাণ্ডের নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। তাঁর মতে, বহুপাক্ষিক সংগঠনে এমনটা চলতে থাকতে পারে না।

জয়শংকর বুধবার বলেন, ‘সন্ত্রাসবাদের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় গোটা বিশ্ব যখন আরও সম্মিলিত ভাবে কাজ করছে এবং একত্রিত হচ্ছে, তখন অপরাধীদের সুরক্ষা দিতে এবং তাদের ন্যায্য প্রমাণ করতে বহুপাক্ষিক প্ল্যাটফর্মের অপব্যবহার করা হচ্ছে।’

উল্লেখ্য, বিগত দিনে একাধিকবার পাকিস্তানি জঙ্গিদের ওপর নিষেধাজ্ঞার প্রশ্নে ভেটো দিয়ে ইসলামাবাদকে সাহায্য করেছে বেজিং। এই আবহে চীনের নাম না নিলেও জয়শংকরের নিশানায় যে চীন ছিল, তা বলাই বাহুল্য।

জয়শংকরের কথায়, ‘উপযুক্ত ফোরামে প্রাসঙ্গিক সমস্যাগুলো সমাধান করার পরিবর্তে আমাদের বিভ্রান্ত এবং বিমুখ করার প্রচেষ্টা চলছে। বহুপাক্ষিক প্রতিষ্ঠানের কার্যকারিতা সম্পর্কে সৎ আলোচনার জন্য আজ আমরা এখানে বৈঠকের আহ্বান করেছি। রাষ্ট্রসংঘ তৈরি হওয়ার ৭৫ বছরেরও বেশি সময় পরে আজ এই আলোচনা হচ্ছে। আমাদের সামনে প্রশ্ন হল, কীভাবে সর্বোত্তমভাবে এই সংগঠনের সংস্কার করা যেতে পারে।’

মোদী মন্ত্রীসভার গুরুত্বপূর্ণ এই সদস্য বলেন, ‘যত সময় যাচ্ছে, ততই এই সংস্কারের প্রয়োজনীয়তা আরও বেশি করে অনুভব করা যাচ্ছে। একদিকে, তারা (বহুপাক্ষিক সংগঠন) বৈষম্যকে তুলে এনেছে। অন্যদিকে, তারা এটাও তুলে ধরেছে যে সমাধান খুঁজে বের করার জন্য একটি বৃহত্তর এবং গভীর পারস্পরিক সহযোগিতা প্রয়োজন। আরও বিস্তৃত বৈশ্বিক শাসনের প্রয়োজনীয়তার উপর জোর দিতে হবে আমাদের।’

জয়শংকর এদিন অভিযোগ করেন, ‘খাদ্য, সার এবং জ্বালানি নিরাপত্তা নিয়ে সাম্প্রতিককালে যথাযথ পদক্ষেপ করা হয়নি সংগঠনের সর্বোচ্চ সিদ্ধান্তকারী কাউন্সিলে।’ খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:
জনপ্রিয়

জঙ্গিদের সুরক্ষায় বৈশ্বিক মঞ্চের অপব্যবহার হচ্ছে: জয়শংকর

প্রকাশ: ০২:২৮:১৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০২২

‘জঙ্গিদের সুরক্ষা দিতে বহুপাক্ষিক সংগঠনের অপব্যবহার হচ্ছে’, রাষ্ট্রসংঘে চীনের নাম না করেই এমনই তোপ দাগলেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর। রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে এক বৈঠকের সময় এই মন্তব্য করেন তিনি। তাঁর নিশানায় ছিল পাকিস্তানকে মদদ প্রদানকারী চীন।

‘আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তার রক্ষণাবেক্ষণ: বহুপাক্ষিকতার সংস্কারের জন্য নতুন অভিযোজন’ -শীর্ষক এই আলোচনায় জয়শংকর আরও বলেন, সংঘাতের পরিস্থিতিতে এই ধরনের কর্মকাণ্ডের নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। তাঁর মতে, বহুপাক্ষিক সংগঠনে এমনটা চলতে থাকতে পারে না।

জয়শংকর বুধবার বলেন, ‘সন্ত্রাসবাদের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় গোটা বিশ্ব যখন আরও সম্মিলিত ভাবে কাজ করছে এবং একত্রিত হচ্ছে, তখন অপরাধীদের সুরক্ষা দিতে এবং তাদের ন্যায্য প্রমাণ করতে বহুপাক্ষিক প্ল্যাটফর্মের অপব্যবহার করা হচ্ছে।’

উল্লেখ্য, বিগত দিনে একাধিকবার পাকিস্তানি জঙ্গিদের ওপর নিষেধাজ্ঞার প্রশ্নে ভেটো দিয়ে ইসলামাবাদকে সাহায্য করেছে বেজিং। এই আবহে চীনের নাম না নিলেও জয়শংকরের নিশানায় যে চীন ছিল, তা বলাই বাহুল্য।

জয়শংকরের কথায়, ‘উপযুক্ত ফোরামে প্রাসঙ্গিক সমস্যাগুলো সমাধান করার পরিবর্তে আমাদের বিভ্রান্ত এবং বিমুখ করার প্রচেষ্টা চলছে। বহুপাক্ষিক প্রতিষ্ঠানের কার্যকারিতা সম্পর্কে সৎ আলোচনার জন্য আজ আমরা এখানে বৈঠকের আহ্বান করেছি। রাষ্ট্রসংঘ তৈরি হওয়ার ৭৫ বছরেরও বেশি সময় পরে আজ এই আলোচনা হচ্ছে। আমাদের সামনে প্রশ্ন হল, কীভাবে সর্বোত্তমভাবে এই সংগঠনের সংস্কার করা যেতে পারে।’

মোদী মন্ত্রীসভার গুরুত্বপূর্ণ এই সদস্য বলেন, ‘যত সময় যাচ্ছে, ততই এই সংস্কারের প্রয়োজনীয়তা আরও বেশি করে অনুভব করা যাচ্ছে। একদিকে, তারা (বহুপাক্ষিক সংগঠন) বৈষম্যকে তুলে এনেছে। অন্যদিকে, তারা এটাও তুলে ধরেছে যে সমাধান খুঁজে বের করার জন্য একটি বৃহত্তর এবং গভীর পারস্পরিক সহযোগিতা প্রয়োজন। আরও বিস্তৃত বৈশ্বিক শাসনের প্রয়োজনীয়তার উপর জোর দিতে হবে আমাদের।’

জয়শংকর এদিন অভিযোগ করেন, ‘খাদ্য, সার এবং জ্বালানি নিরাপত্তা নিয়ে সাম্প্রতিককালে যথাযথ পদক্ষেপ করা হয়নি সংগঠনের সর্বোচ্চ সিদ্ধান্তকারী কাউন্সিলে।’ খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক