১২:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ভারতীয় সংবিধানের চেতনা যুবকেন্দ্রিক: মোদী

চারটি ডিজিটাল আদালতের উদ্যোগের সূচনা করে এদিন সংবিধানকে দেশের সবথেকে বড় শক্তি হিসেবে অভিহিত করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সংবিধান দিবস উপলক্ষে সুপ্রিম কোর্টে অনুষ্ঠিত এক অনু্ষ্ঠানে দেশের প্রধান বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড়ের উপস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দেশের অগ্রগতির সবচেয়ে বড় শক্তি সংবিধান।’

মোদীর কথায়, ‘আমাদের সংবিধানের চেতনা যুবকেন্দ্রিক। আমি সরকারি প্রতিষ্ঠান এবং বিচার বিভাগকে অনুরোধ করব যাতে তারা আমাদের দেশের তরুণদের মধ্যে আরও সচেতনতা তৈরি করার প্রচেষ্টা করে।’

এদিনের অনুষ্ঠানে ই-কোর্ট প্রকল্পের আওতায় ভার্চুয়াল জাস্টিস ক্লক, জাস্টিস মোবাইল অ্যাপ ২.০, ডিজিটাল কোর্ট এবং S3WAS ওয়েবসাইট চালু করেন মোদী। মোদী আজকের দিনে ২৬/১১ হামলার কথা স্মরণ করে বলেন, ‘আজ ২৬/১১ মুম্বাই জঙ্গি হামলার দিন। ১৪ বছর আগে যখন ভারতে সংবিধান দিবস পালন করা হচ্ছিল, ঠিক সেই দিনেই সবচেয়ে বড় সন্ত্রাসবাদী হামলার সাক্ষী থাকে দেশবাসী। সেদিনের সেই হামলায় যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাই।’

মোদী বলেন, ‘দেশের অগ্রগতির পেছনে আমাদের সবচেয়ে বড় শক্তি আমাদের সংবিধান। আমাদের সংবিধানের প্রস্তাবনার শুরুতে ‘উই দ্য পিপল’ লেখা আছে, এটা কোন শব্দ নয়, এটা একটা অনুভূতি।’

এদিকে আইনের সরলীকরণের পক্ষে সওয়াল করে মোদী এদিন বলেন, ‘দেশের সমস্ত সংস্কৃতি ও চেতনা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে ভারতের সংবিধানে। আমি এটা ভেবে সন্তুষ্ট যে, আজ গণতন্ত্রের প্রতীক হিসেবে দেশ তার আদর্শ ও সংবিধানের চেতনাকে আরও শক্তিশালী করছে। দেশের মা-বোনদের ক্ষমতায়ন করা হচ্ছে। আজ সাধারণ মানুষের জন্য আইন আরও সহজ করা হচ্ছে। অতীতের তুলনায় আমাদের ন্যায়বিচারের জন্য অনেক পদক্ষেপ করছে বিচার ব্যবস্থা। আমি এই প্রচেষ্টার জন্য সবাইকে অভিনন্দন জানাতে চাই। আমাদের কর্তব্যের পথে হাঁটতে হাঁটতে দেশকে এগিয় নিয়ে যেতে হবে। উন্নয়নের নতুন উচ্চতায় পৌঁছে দিতে হবে দেশকে। আজ ভারতের সামনে একাধিক নতুন সুযোগ তৈরি হচ্ছে।’ খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:
জনপ্রিয়

ভারতীয় সংবিধানের চেতনা যুবকেন্দ্রিক: মোদী

প্রকাশ: ০১:১৬:২৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২

চারটি ডিজিটাল আদালতের উদ্যোগের সূচনা করে এদিন সংবিধানকে দেশের সবথেকে বড় শক্তি হিসেবে অভিহিত করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সংবিধান দিবস উপলক্ষে সুপ্রিম কোর্টে অনুষ্ঠিত এক অনু্ষ্ঠানে দেশের প্রধান বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড়ের উপস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দেশের অগ্রগতির সবচেয়ে বড় শক্তি সংবিধান।’

মোদীর কথায়, ‘আমাদের সংবিধানের চেতনা যুবকেন্দ্রিক। আমি সরকারি প্রতিষ্ঠান এবং বিচার বিভাগকে অনুরোধ করব যাতে তারা আমাদের দেশের তরুণদের মধ্যে আরও সচেতনতা তৈরি করার প্রচেষ্টা করে।’

এদিনের অনুষ্ঠানে ই-কোর্ট প্রকল্পের আওতায় ভার্চুয়াল জাস্টিস ক্লক, জাস্টিস মোবাইল অ্যাপ ২.০, ডিজিটাল কোর্ট এবং S3WAS ওয়েবসাইট চালু করেন মোদী। মোদী আজকের দিনে ২৬/১১ হামলার কথা স্মরণ করে বলেন, ‘আজ ২৬/১১ মুম্বাই জঙ্গি হামলার দিন। ১৪ বছর আগে যখন ভারতে সংবিধান দিবস পালন করা হচ্ছিল, ঠিক সেই দিনেই সবচেয়ে বড় সন্ত্রাসবাদী হামলার সাক্ষী থাকে দেশবাসী। সেদিনের সেই হামলায় যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাই।’

মোদী বলেন, ‘দেশের অগ্রগতির পেছনে আমাদের সবচেয়ে বড় শক্তি আমাদের সংবিধান। আমাদের সংবিধানের প্রস্তাবনার শুরুতে ‘উই দ্য পিপল’ লেখা আছে, এটা কোন শব্দ নয়, এটা একটা অনুভূতি।’

এদিকে আইনের সরলীকরণের পক্ষে সওয়াল করে মোদী এদিন বলেন, ‘দেশের সমস্ত সংস্কৃতি ও চেতনা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে ভারতের সংবিধানে। আমি এটা ভেবে সন্তুষ্ট যে, আজ গণতন্ত্রের প্রতীক হিসেবে দেশ তার আদর্শ ও সংবিধানের চেতনাকে আরও শক্তিশালী করছে। দেশের মা-বোনদের ক্ষমতায়ন করা হচ্ছে। আজ সাধারণ মানুষের জন্য আইন আরও সহজ করা হচ্ছে। অতীতের তুলনায় আমাদের ন্যায়বিচারের জন্য অনেক পদক্ষেপ করছে বিচার ব্যবস্থা। আমি এই প্রচেষ্টার জন্য সবাইকে অভিনন্দন জানাতে চাই। আমাদের কর্তব্যের পথে হাঁটতে হাঁটতে দেশকে এগিয় নিয়ে যেতে হবে। উন্নয়নের নতুন উচ্চতায় পৌঁছে দিতে হবে দেশকে। আজ ভারতের সামনে একাধিক নতুন সুযোগ তৈরি হচ্ছে।’ খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক