০৪:২৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মহামারীতেও বর্ধনশীল ভারতের অর্থনীতি; প্রশংসায় আইএমএফ প্রধান

করোনা মহামারীতে ব্যাপক আর্থিক বিপর্যয় ও চ্যালেঞ্জের পরও বিশ্বজুড়ে দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হওয়ায় ভারতের প্রশংসা করেছেন আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্রিস্টালিনা জর্জিভা। পাশাপাশি, আইএমএফ-এর সক্ষমতা উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে অবদানের জন্য ভারতের নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন অভিজ্ঞ এই অর্থনীতিবিদ।

মূলত, ১৯ এপ্রিল, মঙ্গলবার, ওয়াশিংটন ডিসিতে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল-বিশ্ব ব্যাঙ্ক (আইএমএফ-ডব্লিউবি) বসন্ত বৈঠকের ফাঁকে এক দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে ভারতের কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী সীতারামনের সাথে মিলিত হোন আইএমএফ এর এমডি। সেখানেই পূর্বোক্ত মন্তব্যগুলো করতে দেখা যায় তাঁকে। পরবর্তীতে ভারতীয় অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে তথ্যটি জনসম্মখে প্রকাশ করা হয়।

সীতারামন ও জর্জিভার উক্ত দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন ভারত সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয়ের মুখ্য অর্থনৈতিক উপদেষ্টা অনন্ত ভি. নাগেশ্বরন এবং আইএমএফ এর এফডিএমডি এর সিনিয়র কর্মকর্তা গীতা গোপীনাথ।

অর্থমন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বৈঠক চলাকালীন সীতারামন ও জর্জিভা বর্তমানে বৈশ্বিক এবং আঞ্চলিক অর্থনীতির মুখোমুখি হওয়া বেশ কয়েকটি সমস্যা ছাড়াও ভারতের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছে। আইএমএফ প্রধান ভারতের টিকাকরণ কর্মসূচি এবং তার প্রতিবেশী এবং অন্যান্য দুর্বল অর্থনীতির জন্য প্রসারিত সহায়তার প্রশংসা করেছেন বলেও জানানো হয়েছে।

বিশেষ করে শ্রীলঙ্কাকে কঠিন অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যেও ভারত যে সহায়তা দিচ্ছে, তাঁর ভূয়সী প্রশংসা করেন আইএমএফের এমডি। এসময়, সীতারামনও শ্রীলঙ্কার পাশে দাঁড়ানোর জন্য আইএমএফ প্রধানকে অনুরোধ করেন।

তাঁর এই অনুরোধের প্রেক্ষিতে আইএমএফ ব্যবস্থাপনা পরিচালক আশ্বস্ত করেছেন যে, আইএমএফ শ্রীলঙ্কার সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত থাকবে এবং শীঘ্রই কোনো সহায়তা পদক্ষেপ নিবে।

এছাড়া, সাম্প্রতিক ভূ-রাজনৈতিক বিশ্ব এবং এর অর্থনৈতিক প্রভাব নিয়েও মতবিনিময় করেন তারা। আলোচনাকালে, ভারতের নীতিগত পদ্ধতির ব্যাখ্যা করে সীতারামন উল্লেখ করেছেন, দেউলিয়াত্ব কোড, এমএসএমই এবং অন্যান্য দুর্বল অংশগুলোর লক্ষ্যযুক্ত সহায়তা সহ বড় কাঠামোগত সংস্কারের সাথে যে সামঞ্জস্যপূর্ণ আর্থিক অবস্থানও ছিল, এটি বজায় রাখা হয়েছে। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

মহামারীতেও বর্ধনশীল ভারতের অর্থনীতি; প্রশংসায় আইএমএফ প্রধান

প্রকাশ: ০৯:৪৭:৩৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ এপ্রিল ২০২২

করোনা মহামারীতে ব্যাপক আর্থিক বিপর্যয় ও চ্যালেঞ্জের পরও বিশ্বজুড়ে দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হওয়ায় ভারতের প্রশংসা করেছেন আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্রিস্টালিনা জর্জিভা। পাশাপাশি, আইএমএফ-এর সক্ষমতা উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে অবদানের জন্য ভারতের নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন অভিজ্ঞ এই অর্থনীতিবিদ।

মূলত, ১৯ এপ্রিল, মঙ্গলবার, ওয়াশিংটন ডিসিতে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল-বিশ্ব ব্যাঙ্ক (আইএমএফ-ডব্লিউবি) বসন্ত বৈঠকের ফাঁকে এক দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে ভারতের কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী সীতারামনের সাথে মিলিত হোন আইএমএফ এর এমডি। সেখানেই পূর্বোক্ত মন্তব্যগুলো করতে দেখা যায় তাঁকে। পরবর্তীতে ভারতীয় অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে তথ্যটি জনসম্মখে প্রকাশ করা হয়।

সীতারামন ও জর্জিভার উক্ত দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন ভারত সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয়ের মুখ্য অর্থনৈতিক উপদেষ্টা অনন্ত ভি. নাগেশ্বরন এবং আইএমএফ এর এফডিএমডি এর সিনিয়র কর্মকর্তা গীতা গোপীনাথ।

অর্থমন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বৈঠক চলাকালীন সীতারামন ও জর্জিভা বর্তমানে বৈশ্বিক এবং আঞ্চলিক অর্থনীতির মুখোমুখি হওয়া বেশ কয়েকটি সমস্যা ছাড়াও ভারতের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছে। আইএমএফ প্রধান ভারতের টিকাকরণ কর্মসূচি এবং তার প্রতিবেশী এবং অন্যান্য দুর্বল অর্থনীতির জন্য প্রসারিত সহায়তার প্রশংসা করেছেন বলেও জানানো হয়েছে।

বিশেষ করে শ্রীলঙ্কাকে কঠিন অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যেও ভারত যে সহায়তা দিচ্ছে, তাঁর ভূয়সী প্রশংসা করেন আইএমএফের এমডি। এসময়, সীতারামনও শ্রীলঙ্কার পাশে দাঁড়ানোর জন্য আইএমএফ প্রধানকে অনুরোধ করেন।

তাঁর এই অনুরোধের প্রেক্ষিতে আইএমএফ ব্যবস্থাপনা পরিচালক আশ্বস্ত করেছেন যে, আইএমএফ শ্রীলঙ্কার সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত থাকবে এবং শীঘ্রই কোনো সহায়তা পদক্ষেপ নিবে।

এছাড়া, সাম্প্রতিক ভূ-রাজনৈতিক বিশ্ব এবং এর অর্থনৈতিক প্রভাব নিয়েও মতবিনিময় করেন তারা। আলোচনাকালে, ভারতের নীতিগত পদ্ধতির ব্যাখ্যা করে সীতারামন উল্লেখ করেছেন, দেউলিয়াত্ব কোড, এমএসএমই এবং অন্যান্য দুর্বল অংশগুলোর লক্ষ্যযুক্ত সহায়তা সহ বড় কাঠামোগত সংস্কারের সাথে যে সামঞ্জস্যপূর্ণ আর্থিক অবস্থানও ছিল, এটি বজায় রাখা হয়েছে। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক