০৮:২১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নয়া সাত প্রকল্প বাস্তবায়নে চুক্তি ভারত-মালদ্বীপের

নতুন সাতটি উচ্চ পর্যায়ের প্রকল্প বাস্তবায়নে ১৩২ মিলিয়ন রুপির চুক্তি করলো ভারত ও মালদ্বীপ। সোমবার, সমঝোতা স্মারকে সই করেন মালদ্বীপে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার মুনু মাহাওয়ার এবং মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল্লাহ শহীদ (ডানে)।

নতুন এসব প্রকল্পের জন্য চুক্তি স্বাক্ষরের ঘোষণা দিয়ে মালদ্বীপের ভারতীয় হাইকমিশন এক টুইটবার্তায় জানিয়েছে, “মালদ্বীপের সাথে ১৩২ মিলিয়ন রুপি মূল্যের ০৭ টি নতুন চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়েছে। মার্চে মালদ্বীপের আদ্দু শহরে ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সফরকালে এই প্রকল্পগুলো ঘোষণা করা হয়। স্বাস্থ্যসেবা, খেলাধুলা, যুব ও ঐতিহ্য সংরক্ষণে চুক্তিগুলো কাজ করবে।”

জানা গিয়েছে, উক্ত ০৭ টি প্রকল্প মালদ্বীপের ০৭ টি প্রবাল প্রাচীর জুড়ে বিস্তৃত হবে। সেগুলো যথাক্রমে, হা ধালু, নুনু, কাফু, আলিফ ধালু, থা, গাফু আলিফু এবং সেনু৷

মালদ্বীপ সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “মালদ্বীপ সরকার এবং ভারত সরকারের মধ্যে সাতটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠান সোমবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। এই সমঝোতা স্মারকগুলো স্থানীয় সংস্থাসমূহের (এইচআইসিডিপি) মাধ্যমে উচ্চ প্রভাব সম্প্রদায় উন্নয়ন প্রকল্পের জন্য ভারতীয় অনুদান সহায়তা প্রকল্পের অধীনে বাস্তবায়িত হবে।”

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, “ভারত সরকারের পক্ষে ভারতের হাইকমিশনার মুনু মাহাওয়ার এবং মালদ্বীপ সরকার ও সংশ্লিষ্ট বাস্তবায়নকারী সংস্থার পক্ষে বিদেশ বিষয়ক মন্ত্রী আবদুল্লাহ শহীদ সমঝোতা স্মারকগুলো স্বাক্ষর করেছেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সংশ্লিষ্ট অঞ্চলগুলোর সংসদ সদস্য, দ্বীপ পরিষদ, মালদ্বীপ সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এবং ভারতের হাইকমিশনের কর্মকর্তাগণ।”

অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শহীদ উল্লেখ করেন, “সমঝোতা স্মারকের অধীনে চালু করা প্রকল্পগুলো স্বাস্থ্য ও সুস্থতা, যুবদের ক্ষমতায়ন এবং সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য সংরক্ষণ ও সুরক্ষার মাধ্যমে স্থানীয় সম্প্রদায়ের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে সরকারের প্রচেষ্টাকে শক্তিশালী করবে।”

এসময়, মালদ্বীপের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ভারত যে ভূমিকা পালন করছে তার জন্য ভারত সরকারের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

প্রসঙ্গত, নতুন স্বাক্ষরিত প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে, আদ্দু নিরক্ষীয় হাসপাতালে একটি মানসিক স্বাস্থ্য কেন্দ্র স্থাপন, কুলহুধুফুশি আঞ্চলিক হাসপাতালে একটি থেরাপি ইউনিট, হুলহুমলে হাসপাতালে প্রস্থেটিক্স এবং অর্থোটিক্স তৈরির কর্মশালা, নুনু ল্যান্ডহু মাবুধুগে সাংস্কৃতিক স্থান সংরক্ষণ এবং থা ধিয়ামিগিলি গান্ডুভারু, বহুমুখী উন্নয়ন। নুনু মানাধুতে স্পোর্টস কমপ্লেক্স এবং গাফু আলিফ গেমানাফুশি এবং আলিফ ধালু ধিগুরাতে যুব কেন্দ্র উন্নয়নশীল। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

 

ট্যাগ:

নয়া সাত প্রকল্প বাস্তবায়নে চুক্তি ভারত-মালদ্বীপের

প্রকাশ: ০৯:৪০:০৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ এপ্রিল ২০২২

নতুন সাতটি উচ্চ পর্যায়ের প্রকল্প বাস্তবায়নে ১৩২ মিলিয়ন রুপির চুক্তি করলো ভারত ও মালদ্বীপ। সোমবার, সমঝোতা স্মারকে সই করেন মালদ্বীপে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার মুনু মাহাওয়ার এবং মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল্লাহ শহীদ (ডানে)।

নতুন এসব প্রকল্পের জন্য চুক্তি স্বাক্ষরের ঘোষণা দিয়ে মালদ্বীপের ভারতীয় হাইকমিশন এক টুইটবার্তায় জানিয়েছে, “মালদ্বীপের সাথে ১৩২ মিলিয়ন রুপি মূল্যের ০৭ টি নতুন চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়েছে। মার্চে মালদ্বীপের আদ্দু শহরে ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সফরকালে এই প্রকল্পগুলো ঘোষণা করা হয়। স্বাস্থ্যসেবা, খেলাধুলা, যুব ও ঐতিহ্য সংরক্ষণে চুক্তিগুলো কাজ করবে।”

জানা গিয়েছে, উক্ত ০৭ টি প্রকল্প মালদ্বীপের ০৭ টি প্রবাল প্রাচীর জুড়ে বিস্তৃত হবে। সেগুলো যথাক্রমে, হা ধালু, নুনু, কাফু, আলিফ ধালু, থা, গাফু আলিফু এবং সেনু৷

মালদ্বীপ সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “মালদ্বীপ সরকার এবং ভারত সরকারের মধ্যে সাতটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠান সোমবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। এই সমঝোতা স্মারকগুলো স্থানীয় সংস্থাসমূহের (এইচআইসিডিপি) মাধ্যমে উচ্চ প্রভাব সম্প্রদায় উন্নয়ন প্রকল্পের জন্য ভারতীয় অনুদান সহায়তা প্রকল্পের অধীনে বাস্তবায়িত হবে।”

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, “ভারত সরকারের পক্ষে ভারতের হাইকমিশনার মুনু মাহাওয়ার এবং মালদ্বীপ সরকার ও সংশ্লিষ্ট বাস্তবায়নকারী সংস্থার পক্ষে বিদেশ বিষয়ক মন্ত্রী আবদুল্লাহ শহীদ সমঝোতা স্মারকগুলো স্বাক্ষর করেছেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সংশ্লিষ্ট অঞ্চলগুলোর সংসদ সদস্য, দ্বীপ পরিষদ, মালদ্বীপ সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এবং ভারতের হাইকমিশনের কর্মকর্তাগণ।”

অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শহীদ উল্লেখ করেন, “সমঝোতা স্মারকের অধীনে চালু করা প্রকল্পগুলো স্বাস্থ্য ও সুস্থতা, যুবদের ক্ষমতায়ন এবং সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য সংরক্ষণ ও সুরক্ষার মাধ্যমে স্থানীয় সম্প্রদায়ের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে সরকারের প্রচেষ্টাকে শক্তিশালী করবে।”

এসময়, মালদ্বীপের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ভারত যে ভূমিকা পালন করছে তার জন্য ভারত সরকারের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

প্রসঙ্গত, নতুন স্বাক্ষরিত প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে, আদ্দু নিরক্ষীয় হাসপাতালে একটি মানসিক স্বাস্থ্য কেন্দ্র স্থাপন, কুলহুধুফুশি আঞ্চলিক হাসপাতালে একটি থেরাপি ইউনিট, হুলহুমলে হাসপাতালে প্রস্থেটিক্স এবং অর্থোটিক্স তৈরির কর্মশালা, নুনু ল্যান্ডহু মাবুধুগে সাংস্কৃতিক স্থান সংরক্ষণ এবং থা ধিয়ামিগিলি গান্ডুভারু, বহুমুখী উন্নয়ন। নুনু মানাধুতে স্পোর্টস কমপ্লেক্স এবং গাফু আলিফ গেমানাফুশি এবং আলিফ ধালু ধিগুরাতে যুব কেন্দ্র উন্নয়নশীল। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক