১০:৩৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতের উচ্চ প্রবৃদ্ধি, কোভিড পরবর্তী পুনরুদ্ধারের ফল: সীতারামন

চলতি বছরে শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে ভারতের অর্থনীতি, যা বিশ্বের প্রায় সমস্ত উঠতি অর্থনীতির মধ্যে সর্বোচ্চ। এমন মন্তব্য করেছেন ভারতীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। ভারতের এই দৃঢ় অবস্থান এবং স্থিতিস্থাপকতা সর্বোতভাবে মহামারী পরবর্তী শক্তিশালী পুনরুত্থানকে প্রতিফলিত করে বলেও অভিমত ব্যক্ত করেন তিনি।

২৩ এপ্রিল, শনিবার, ওয়াশিংটন ডিসিতে ডেভেলপমেন্ট কমিটি প্লেনারির ১০৫তম বৈঠকে অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন মোদী মন্ত্রীসভার গুরুত্বপূর্ণ এই সদস্য। সীতারামন বলেন, “ভারত কোভিড -১৯ মহামারী সংকটকে দুর্দান্ত সাহসিকতা ও দৃঢ়তার সাথে মোকাবেলা করেছে এবং টিকাকরণে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি করেছে। গোটা দেশব্যাপী আমরা প্রায় ১.৮৫ বিলিয়নেরও বেশি ভ্যাকসিন ডোজ পরিচালনা করেছি।”

ভারতীয় অর্থ মন্ত্রী বলেন, “ভারত স্বেচ্ছায় সমস্ত দেশকে কোভিড ভ্যাকসিন ইন্টেলিজেন্স নেটওয়ার্ক (কোউইন) প্ল্যাটফর্ম অফার করেছে এবং প্রমাণিত এবং স্কেলযোগ্য ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের প্রতিলিপির গুরুত্ব স্বীকার করে অন্যান্য পাবলিক-গুডস প্ল্যাটফর্মের জন্য সহায়তা প্রদান করতে ইচ্ছুক।”

এসময়, শ্রীলঙ্কার সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়েও মতবিনিময় করেন তিনি। পাশাপাশি বিশ্ব নেতৃত্বের কাছে শ্রীলঙ্কার জন্য সিদ্ধান্তমূলক ত্রাণ আশা করেন তিনি। একই সঙ্গে, উন্নয়নশীল দেশগুলোর ডিজিটালাইজেশন এবং উন্নয়ন, ষ্টিক অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতার জন্য ঋণের কাজ করা এবং ইউক্রেনে যুদ্ধের বৈশ্বিক প্রভাবের প্রতি বিশ্বব্যাংক গ্রুপের প্রতিক্রিয়া: একটি প্রস্তাবিত রোডম্যাপ নিয়ে আলোচনা করেন তিনি। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

ভারতের উচ্চ প্রবৃদ্ধি, কোভিড পরবর্তী পুনরুদ্ধারের ফল: সীতারামন

প্রকাশ: ০৮:৪৯:৫৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ এপ্রিল ২০২২

চলতি বছরে শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে ভারতের অর্থনীতি, যা বিশ্বের প্রায় সমস্ত উঠতি অর্থনীতির মধ্যে সর্বোচ্চ। এমন মন্তব্য করেছেন ভারতীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। ভারতের এই দৃঢ় অবস্থান এবং স্থিতিস্থাপকতা সর্বোতভাবে মহামারী পরবর্তী শক্তিশালী পুনরুত্থানকে প্রতিফলিত করে বলেও অভিমত ব্যক্ত করেন তিনি।

২৩ এপ্রিল, শনিবার, ওয়াশিংটন ডিসিতে ডেভেলপমেন্ট কমিটি প্লেনারির ১০৫তম বৈঠকে অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন মোদী মন্ত্রীসভার গুরুত্বপূর্ণ এই সদস্য। সীতারামন বলেন, “ভারত কোভিড -১৯ মহামারী সংকটকে দুর্দান্ত সাহসিকতা ও দৃঢ়তার সাথে মোকাবেলা করেছে এবং টিকাকরণে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি করেছে। গোটা দেশব্যাপী আমরা প্রায় ১.৮৫ বিলিয়নেরও বেশি ভ্যাকসিন ডোজ পরিচালনা করেছি।”

ভারতীয় অর্থ মন্ত্রী বলেন, “ভারত স্বেচ্ছায় সমস্ত দেশকে কোভিড ভ্যাকসিন ইন্টেলিজেন্স নেটওয়ার্ক (কোউইন) প্ল্যাটফর্ম অফার করেছে এবং প্রমাণিত এবং স্কেলযোগ্য ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের প্রতিলিপির গুরুত্ব স্বীকার করে অন্যান্য পাবলিক-গুডস প্ল্যাটফর্মের জন্য সহায়তা প্রদান করতে ইচ্ছুক।”

এসময়, শ্রীলঙ্কার সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়েও মতবিনিময় করেন তিনি। পাশাপাশি বিশ্ব নেতৃত্বের কাছে শ্রীলঙ্কার জন্য সিদ্ধান্তমূলক ত্রাণ আশা করেন তিনি। একই সঙ্গে, উন্নয়নশীল দেশগুলোর ডিজিটালাইজেশন এবং উন্নয়ন, ষ্টিক অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতার জন্য ঋণের কাজ করা এবং ইউক্রেনে যুদ্ধের বৈশ্বিক প্রভাবের প্রতি বিশ্বব্যাংক গ্রুপের প্রতিক্রিয়া: একটি প্রস্তাবিত রোডম্যাপ নিয়ে আলোচনা করেন তিনি। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক