০৯:১২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিশ্ব আয়ুষ বিনিয়োগ ও উদ্ভাবনের উদ্বোধন করবেন মোদী

আগামী ২০ এপ্রিল গুজরাটের গান্ধীনগরে অনুষ্ঠিতব্য তিনদিনব্যাপী ‘গ্লোবাল আয়ুষ বিনিয়োগ ও উদ্ভাবন’ -শীর্ষক শীর্ষ সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী মোদী। এক বিবৃতিতে তথ্যটি নিশ্চিত করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় আয়ুশ মন্ত্রণালয়। সেখানে বলা হয়েছে, “ভারতের ঐতিহ্যগত ওষুধ এবং সিস্টেমকে প্রচার করার উপায় নিয়ে চিন্তাভাবনা করার জন্য এই শীর্ষ সম্মেলনে শিল্প নেতা, শিক্ষাবিদ এবং পণ্ডিতদের অংশগ্রহণের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।”

জানা গিয়েছে, শীর্ষ সম্মেলনে ৫টি পূর্ণাঙ্গ অধিবেশন, ৮টি গোলটেবিল, ৬টি কর্মশালা, ২টি সিম্পোজিয়াম এর আয়োজন করা হবে। গোটা আয়োজনে ৯০ জন বিশিষ্ট বক্তা এবং ১০০ জন প্রদর্শক উপস্থিত থাকবেন। এর মাঝে ভারতে অবস্থিত বিভিন্ন দূতাবাসের কর্মকর্তা, শিল্প এবং শীর্ষ কর্পোরেশন এর স্পিকার এবং নেতারা উপস্থিত থাকবেন।

মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, শীর্ষ সম্মেলনের অন্যতম লক্ষ্য হল ভারতকে বিশ্বব্যাপী আয়ুষ গন্তব্য হিসেবে গড়ে তোলা। আন্তর্জাতিক বাজারে আয়ুশ রপ্তানিকে উদ্দীপিত করার জন্য আরও একাধিক উদ্যোগ নেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ব্যাপক পরিমাণ বিদেশী বিনিয়োগ করা হচ্ছে ভারত জুড়ে। তাই আয়ুষ মন্ত্রণালয়ও চাচ্ছে, আয়ুর্বেদিক ঔষধকে বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় করে তুলতে। উক্ত বৈঠকে যোগ দিতে আগামীকাল ভারতে আসবেন মরিশাসের প্রধানমন্ত্রী জগনাথও।

এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় আয়ুষ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল বলেছেন, “আমরা গ্লোবাল আয়ুশ ইনভেস্টমেন্ট অ্যান্ড ইনোভেশন সামিট ২০২২ ঘোষণা করতে পেরে গর্বিত। দেশের শীর্ষস্থানীয় স্টার্ট-আপ, উদ্যোক্তা, বিনিয়োগকারী, নীতিনির্ধারক এবং অন্যান্যদের আমরা একত্রিত করবে। ভারতকে একটি গ্লোবাল আয়ুশ গন্তব্যে পরিণত করতে সাহায্য করার জন্য উদ্ভাবন এবং উদ্যোক্তা সম্পর্কে একটি বিশেষভাবে কিউরেটেড ইভেন্টের জন্য আমরা প্রস্তুত।” খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

বিশ্ব আয়ুষ বিনিয়োগ ও উদ্ভাবনের উদ্বোধন করবেন মোদী

প্রকাশ: ০৮:৪০:৩৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২২

আগামী ২০ এপ্রিল গুজরাটের গান্ধীনগরে অনুষ্ঠিতব্য তিনদিনব্যাপী ‘গ্লোবাল আয়ুষ বিনিয়োগ ও উদ্ভাবন’ -শীর্ষক শীর্ষ সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী মোদী। এক বিবৃতিতে তথ্যটি নিশ্চিত করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় আয়ুশ মন্ত্রণালয়। সেখানে বলা হয়েছে, “ভারতের ঐতিহ্যগত ওষুধ এবং সিস্টেমকে প্রচার করার উপায় নিয়ে চিন্তাভাবনা করার জন্য এই শীর্ষ সম্মেলনে শিল্প নেতা, শিক্ষাবিদ এবং পণ্ডিতদের অংশগ্রহণের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।”

জানা গিয়েছে, শীর্ষ সম্মেলনে ৫টি পূর্ণাঙ্গ অধিবেশন, ৮টি গোলটেবিল, ৬টি কর্মশালা, ২টি সিম্পোজিয়াম এর আয়োজন করা হবে। গোটা আয়োজনে ৯০ জন বিশিষ্ট বক্তা এবং ১০০ জন প্রদর্শক উপস্থিত থাকবেন। এর মাঝে ভারতে অবস্থিত বিভিন্ন দূতাবাসের কর্মকর্তা, শিল্প এবং শীর্ষ কর্পোরেশন এর স্পিকার এবং নেতারা উপস্থিত থাকবেন।

মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, শীর্ষ সম্মেলনের অন্যতম লক্ষ্য হল ভারতকে বিশ্বব্যাপী আয়ুষ গন্তব্য হিসেবে গড়ে তোলা। আন্তর্জাতিক বাজারে আয়ুশ রপ্তানিকে উদ্দীপিত করার জন্য আরও একাধিক উদ্যোগ নেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ব্যাপক পরিমাণ বিদেশী বিনিয়োগ করা হচ্ছে ভারত জুড়ে। তাই আয়ুষ মন্ত্রণালয়ও চাচ্ছে, আয়ুর্বেদিক ঔষধকে বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় করে তুলতে। উক্ত বৈঠকে যোগ দিতে আগামীকাল ভারতে আসবেন মরিশাসের প্রধানমন্ত্রী জগনাথও।

এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় আয়ুষ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল বলেছেন, “আমরা গ্লোবাল আয়ুশ ইনভেস্টমেন্ট অ্যান্ড ইনোভেশন সামিট ২০২২ ঘোষণা করতে পেরে গর্বিত। দেশের শীর্ষস্থানীয় স্টার্ট-আপ, উদ্যোক্তা, বিনিয়োগকারী, নীতিনির্ধারক এবং অন্যান্যদের আমরা একত্রিত করবে। ভারতকে একটি গ্লোবাল আয়ুশ গন্তব্যে পরিণত করতে সাহায্য করার জন্য উদ্ভাবন এবং উদ্যোক্তা সম্পর্কে একটি বিশেষভাবে কিউরেটেড ইভেন্টের জন্য আমরা প্রস্তুত।” খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক