০৬:০০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তিন দিনের সফরে নেপালের প্রধানমন্ত্রী ভারতে

গত বছর জুন মাসে নেপালের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর প্রথমবারের মতো ভারত সফরে এসেছেন শের বাহাদুর দেউবা। ০১ এপ্রিল, শুক্রবার, তিনদিনের রাষ্ট্রীয় সফরে নয়াদিল্লী এসে পৌঁছান তিনি। দেউবার সফর সঙ্গী হিসেবে রয়েছেন তাঁর স্ত্রী আরজু দেউবা এবং একটি উচ্চ পর্যায়ের সরকারি প্রতিনিধি দল।

সফরের প্রথম দিনেই ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সাথে সাক্ষাৎ করেছেন দেউবা। এসময়, দু দেশের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও জোরালো এবং গভীর করার বিষয়ে আলোচনা করেন তারা। পরবর্তীতে এক টুইটবার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন জয়শঙ্কর নিজেই।

এর আগে এক বিবৃতিতে দেউবার বিষয়টি জানিয়েছিলো ভারতীয় পররাষ্ট্র দপ্তর। দ্বিপাক্ষিক অংশীদারিত্বের সার্বিক অবস্থা পর্যালোচনা করতে এই সফরটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে ধারণা করছে বোদ্ধামহল।

সফরকালে ভারতের উপ-রাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে সাক্ষাতের কথা রয়েছে দেউবার। একই সাথে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের সাথেও সাক্ষাৎ করবেন তিনি।

উত্তর প্রদেশের বারানসীতেও যাবার কথা রয়েছে তাঁর। উল্লেখ্য, ধর্মীয় মেলবন্ধন সহ ঐতিহাসিকভাবে দৃঢ় সম্পর্ক রয়েছে ভারত ও নেপালের। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে এই সম্পর্ক আরও উন্নত হয়েছে।

পুরো করোনাকালীন সময়ে নেপালের পাশে বন্ধুত্বের হাত দিয়ে দাঁড়িয়েছিলো ভারত। আসন্ন সফরটিকে তাই গুরুত্বপূর্ণ বলে আখ্যা দিচ্ছে বোদ্ধামহল।  খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

তিন দিনের সফরে নেপালের প্রধানমন্ত্রী ভারতে

প্রকাশ: ০২:৫৭:৪৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ এপ্রিল ২০২২

গত বছর জুন মাসে নেপালের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর প্রথমবারের মতো ভারত সফরে এসেছেন শের বাহাদুর দেউবা। ০১ এপ্রিল, শুক্রবার, তিনদিনের রাষ্ট্রীয় সফরে নয়াদিল্লী এসে পৌঁছান তিনি। দেউবার সফর সঙ্গী হিসেবে রয়েছেন তাঁর স্ত্রী আরজু দেউবা এবং একটি উচ্চ পর্যায়ের সরকারি প্রতিনিধি দল।

সফরের প্রথম দিনেই ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সাথে সাক্ষাৎ করেছেন দেউবা। এসময়, দু দেশের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও জোরালো এবং গভীর করার বিষয়ে আলোচনা করেন তারা। পরবর্তীতে এক টুইটবার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন জয়শঙ্কর নিজেই।

এর আগে এক বিবৃতিতে দেউবার বিষয়টি জানিয়েছিলো ভারতীয় পররাষ্ট্র দপ্তর। দ্বিপাক্ষিক অংশীদারিত্বের সার্বিক অবস্থা পর্যালোচনা করতে এই সফরটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে ধারণা করছে বোদ্ধামহল।

সফরকালে ভারতের উপ-রাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে সাক্ষাতের কথা রয়েছে দেউবার। একই সাথে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের সাথেও সাক্ষাৎ করবেন তিনি।

উত্তর প্রদেশের বারানসীতেও যাবার কথা রয়েছে তাঁর। উল্লেখ্য, ধর্মীয় মেলবন্ধন সহ ঐতিহাসিকভাবে দৃঢ় সম্পর্ক রয়েছে ভারত ও নেপালের। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে এই সম্পর্ক আরও উন্নত হয়েছে।

পুরো করোনাকালীন সময়ে নেপালের পাশে বন্ধুত্বের হাত দিয়ে দাঁড়িয়েছিলো ভারত। আসন্ন সফরটিকে তাই গুরুত্বপূর্ণ বলে আখ্যা দিচ্ছে বোদ্ধামহল।  খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক