শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৭:৪২ অপরাহ্ন

শিরোনাম
ন্যাশনাল প্রেস সোসাইটি গন্যমাধম ও মানবাধিকার সংস্থা ময়মনসিংহ জেলা শাখার নবগঠিত কমিটির পরিচিত সভা দৈনিক সকালের সময় সম্পাদকসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে ময়মনসিংহে মানববন্ধন ফুলবাড়িয়া ২ টাকার খাবার বিতরণ বৃক্ষের সাথে সখ্যতা প্রকৃতিপ্রেমী বৃক্ষ বন্ধু অধ্যাপক আকবর আলী আহসান ১নং ফাঁড়ি পুলিশের অভিযানে এক ওয়ারেন্টভূক্ত আসামি গ্রেফতার ডেঙ্গু প্রতিরোধে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন এর উদ্যোগে মশক নিধন অভিযান শুরু পরিচ্ছন্ন ময়মনসিংহ নগরী গড়ার লক্ষ্যে বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় আধুনিকায়ন শিশুদের মনে গ্রাম বাংলার প্রতিচ্ছবি সঞ্জীবনের উদ্যোগে চড়ুইভাতি-২০২০ ময়মনসিংহ মহানগর যুবদলের উদ্যোগে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫৬ তম জন্মদিন পালিত

লাল কার্ড দেখানোয় রেফারিকে বেদম মার

লাল কার্ড দেখানোয় রেফারিকে বেদম মার

লাল কার্ড দেখানোয় রেফারিকে মারধর করে খবরের শিরোনামে রাশিয়ার সাবেক অধিনায়ক এবং জেনিথ সেন্ট পিটার্সবার্গের আইকনিক ফুটবলার রোমান শিরোকোভ।

সোমবার (১০ আগস্ট) রাশিয়ার অ্যামেচার লিগ মস্কো সেলিব্রিটি কাপ টুর্নামেন্টে এমন ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটে।

আক্রমণ এতোটাই গুরুতর ছিল যে ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্বে থাকা রেফারি নিকিতা দানচেঙ্কোকে হাসপাতালের এমার্জেন্সি বিভাগে কাটাতে হয়। এ ঘটনায় ক্রিমিনাল প্রোসিকিউশনের মুখোমুখি হওয়ার আশঙ্কা শিরোকোভের।

যদিও ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করেছেন রাশিয়ার সাবেক অধিনায়ক। সোশ্যাল মিডিয়ায় এক বার্তায় তিনি লিখেছেন, নিকিতার সঙ্গে যে অসঙ্গত কাজটা আমি করেছি তার জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখপ্রকাশ করছি। পেনাল্টি না দেওয়া কিংবা লাল কার্ড দেখানো কখনোই রেফারির গায়ে হাত তোলার কারণ হতে পারে না। আশা করি নিকিতা খুব শীঘ্রই ফের নিজের কাজে ফিরবেন।

কোয়ার্টার ফাইনালের খেলা চলাকালীন বিপক্ষ বক্সে তাকে ফাউল করায় পেনাল্টির দাবিতে রেফারির সঙ্গে তর্ক জুড়ে দেন শিরিকোভ। যদিও রেফারি তাতে কর্ণপাত করেননি। এরপর ক্রমাগত উত্যক্ত করতে থাকায় শিরিকোভকে লাল কার্ড দেখাতে কার্পণ্য করেননি রেফারি। আর এতেই মেজাজ হারিয়ে তার উপর চড়াও হন শিরিকোভ।

আক্রমণের শুরুতে মুখে ঘুষি মেরে দানচেঙ্কোকে মাটিতে ফেলে দেন দেশের জার্সি গায়ে ৫৭ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা শিরিকোভ। মাটিতে পড়ে থাকা অবস্থায় রেফারির পেটে-বুকে চলতে থাকে দেদার লাথি। এরপর বাকি ফুটবলাররা এগিয়ে এসে শিরিকোভকে সরিয়ে নিয়ে যান। তবে আক্রমণে গুরুতর আহত রেফারি মাঠে পড়ে থেকে কাতরাতে থাকেন। চিকিৎসার কাজে নিযুক্ত হন মেডিকেল স্টাফেরা প্রাথমিক চিকিৎসা চালালেও বাম চোখে গুরুতর আঘাত নিয়ে দানচেঙ্কোকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঘটনায় ম্যাচটি সেখানেই পরিত্যক্ত হয়ে যায়।

পরে ঘটনার ভয়াবহতা প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে রেফারি দানচেঙ্কো জানিয়েছেন, তাকে সাড়ে ১২ ঘন্টা হাসপাতালে কাটাতে হয়েছে। যার মধ্যে কিছু সময় জরুরি বিভাগেও থাকতে হয়। প্রচুর পরীক্ষার পাশাপাশি শরীরে সেলাই পড়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© ২০১৯ দৈনিক নবযুগ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Designed and developed by Smk Ishtiak