রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৩:৫৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম
ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করলো প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা রাবিতে স্কাউট এর জনক লর্ড পাওয়েলের জন্মজয়ন্তী উদ্যাপন গ্রীণ লাইফ ব্লাড ফাউন্ডেশন উদ্যোগে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পিং অনুষ্ঠিত ময়মনসিংহে কাশরে জমি নিয়ে সালিশি বৈঠক ড্রীম স্কোয়ান্ডার এসোসিয়েশন এর ১ম বর্ষপূর্তি উদ্যাপন উপলক্ষ্যে সেমিনার  বিচ্ছেদের কষ্ট ভুলতে যা করছেন অভিনেত্রী সানা ইতিহাস মুছে ফেলা যায় না: প্রধানমন্ত্রী দক্ষিণ কোরিয়ায় যে সম্প্রদায় থেকে ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস সাউথ এশিয়ান ইয়ুথ ফেস্টিভালে অংশগ্রহণ করছে জাককানইবি’র চার শিক্ষার্থী মহাবিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত

তিন ধাপে পাকিস্তান সফর, খেলা হবে টেস্ট টি-টোয়েন্টি ওয়ানডে সবই

তিন ধাপে পাকিস্তান সফর, খেলা হবে টেস্ট টি-টোয়েন্টি ওয়ানডে সবই

পাকিস্তান সফরে বাংলাদেশ টেস্ট খেলবে বলে জানিয়েছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। সফরে দুইটি টেস্ট, একটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলা হবে। তবে এক সফরে এই তিন ফরমেটের খেলা শেষ হবে না। তিন ফরমেটের এ খেলা শেষ হবে একাধিক ধাপে।

পাকিস্তান সিরিজ নিয়ে শুরু থেকেই দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ডের মধ্যে দরকষাকষি চলে আসছিল। বিষয়টির সমাধানে মঙ্গলবার দুবাইয়ে আইসিসি সভাপতি শশাঙ্ক মনোহরের ‘মধ্যস্থতায়’ বসেছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন ও পিসিবির প্রধান এহসান মানি এবং দুই বোর্ডের প্রধান নির্বাহী। পিসিবি জানিয়েছে, এই বৈঠকেই বিসিবির সঙ্গে তারা ঐকমত্যে পৌঁছেছে।

নতুন সিদ্ধান্তে তিন মাসে তিনবার পাকিস্তানে যাবে বাংলাদেশ। সূচি অনুয়ায়ী লাহোরে ২৪, ২৫ ও ২৭ জানুয়ারি তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ। পরে দেশে এসে ৭ থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি প্রথম টেস্ট খেলতে পাকিস্তান যাবে বাংলাদেশ। রাওয়ালপিন্ডিতে হবে এই টেস্ট। এটি আইসিসির টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ। খেলা শেষে আবার ফেরত আসবে টাইগাররা। ফেব্রুয়ারি-মার্চে হবে পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল)। এ কারণেই টেস্ট সিরিজের মাঝে একটা লম্বা বিরতি পড়েছে বলে জানিয়েছে পিসিবি। এরপর এপ্রিলে আবার পাকিস্তানে যাবে বাংলাদেশ। সেখানে ৩ এপ্রিল একটি ওয়ানডে খেলা হবে। এরপর ৫ থেকে ৯ এপ্রিল দ্বিতীয় টেস্ট।

সফরের নতুন সূচি নিয়ে পিসিবি চেয়ারম্যান এহসান মানি বলেছেন, ‘গর্বিত দুটি ক্রিকেট খেলুড়ে দেশ ও খেলাটার বৃহৎ স্বার্থে আমরা একটা আপসে পৌঁছাতে পেরে খুশি।’ এ সিদ্ধান্তের পর মানি আইসিসি চেয়ারম্যান শশাঙ্ক মনোহরকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

পাকিস্তান সফর নিয়ে টানাপোড়েনের মধ্যে গত রবিবার (১২ জানুয়ারি) পাঁচ ঘণ্টা ব্যাপী বৈঠক করে বিসিবি। বৈঠক শেষে নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছিলেন মধ্যপ্রাচ্যের উত্তেজনায় সরকারের পক্ষ থেকে সফর সংক্ষেপ করার নির্দেশনা আসায় টেস্ট ম্যাচ খেলা সম্ভব হবে না বাংলাদেশ দলের পক্ষে। পরিস্থিতির উন্নতি হলে পরে টেস্ট ম্যাচ খেলা যাবে।

বিসিবি শুধু টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার প্রস্তাব অনেক আগেই দিয়েছিল পাকিস্তানকে। তবে পাকিস্তানের বোর্ড তাতে রাজি না হয়ে নানাভাবে চেষ্টা করে আসছিল টেস্ট ম্যাচের জন্য বাংলাদেশকে সফরে নিতে।

আইসিসির নির্ধারিত ফিউচার ট্যুর প্ল্যান অনুযায়ী, সফরে স্বাগতিক পাকিস্তানের বিপক্ষে তিনটি টি-টোয়েন্টি ও দুটি টেস্ট খেলার কথা বাংলাদেশ দলের। কিন্তু দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে দীর্ঘ সময় পাকিস্তানে অবস্থান করতে হবে বলে বাংলাদেশ সরকার ও বোর্ড টেস্ট খেলতে আপত্তি জানিয়েছে।

বিসিবি প্রধান বলেছিলেন, ‘সরকারের বার্তায় স্পষ্ট করে বলা আছে টেস্ট খেলতে সফরে না যেতে। আমরা সফরের সম্ভাব্য সূচি সরকারকে পাঠিয়েছিলাম। উনারা বলেছেন, টি-টোয়েন্টি তিনটি যতটা দ্রুত সম্ভব শেষ করে চলে আসতে। পরে পরিস্থিতি ভালো হলে টেস্ট ম্যাচ খেলা যেতে পারে।

কিন্তু সেটা মানতে রাজি হয়নি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। পাকিস্তানে পুরো দমে টেস্ট ফিরিয়ে আনতে বাংলাদেশের সফর বেশ গুরুত্বপূর্ণ বলে দাবি করে টি-টোয়েন্টি না খেলে টেস্টের দিকে মনোযোগ দিতে চান পাকিস্তান বোর্ডের হর্তাকর্তারা।

এমন পরিস্থিতিতে আইসিসির সভায় যোগ দিতে দুবাইয়ে অবস্থান করা দুই বোর্ড প্রধান বিষয়টি নিয়ে আলোচনার পর একাধিক ধাপে তিন ফরমেটের খেলা শেষ করার বিষয়টি জানানো হলো।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© ২০১৯ দৈনিক নবযুগ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Designed and developed by Smk Ishtiak