০৪:৫৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

‘সঞ্জীবন সম্মাননা পদক – ২০২০’ পেলেন যাঁরা

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রতিষ্ঠার চতুর্থ বর্ষে এসে প্রথমবারের মতো সংগঠনের সদস্যদের জন্য “সঞ্জীবন সম্মাননা পদক” ঘোষণা করলো সমাজসেবামূলক সংগঠন সঞ্জীবন। গত ৩১ মে, ২০২০ ইং, রবিবার, সঞ্জীবন, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে “সঞ্জীবন সম্মাননা পদক – ২০২০” শিরোনামে পদক প্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশ করা হয়।

পদক

সঞ্জীবন সম্মাননা পদক – ২০২০” প্রাপ্তদের মাঝে, আজীবন সম্মাননায় রয়েছেন, বঙ্গবন্ধু শিশু একাডেমী, ময়মনসিংহ জেলা শাখার সম্মানিত সভাপতি অধ্যাপক দিলরুবা শারমিন (সমাজসেবা), সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা (অব.) হাজেরা খাতুন (শিক্ষা),  ফুলবাড়িয়ার আছিম ইউনিয়নস্থ গ্রাম পাঠাগার জঙ্গলবাড়ী বাতিঘর (সমাজগঠন), বঙ্গবন্ধু শিশু একাডেমীর সম্মানিত সাধারণ সম্পাদক কবি শরীফুল ইসলাম সরকার (সাহিত্য) এবং ময়মনসিংহ প্রধান ডাকঘরে কর্মরত রাজিয়া বেগম (সমাজসেবা)।

২০১৯-২০ সাংগঠনিক বর্ষে গোটা সংগঠনের সেরা সদস্য হিসেবে প্রেসিডেনশিয়াল এওয়ার্ডে ভূষিত হয়েছেন, সঞ্জীবনের চীন শাখার জয়েন্ট কান্ট্রি কো-অর্ডিনেটর অশির মনসুর তালুকদার।

বিগত সাংগঠনিক বর্ষে সেরা সাংগঠনিক নেতৃত্বের ক্যাটাগরিতে জেলা পর্যায়ের সেরা সাংগঠনিক নির্বাচিত হয়েছেন, ময়মনসিংহ জেলা সঞ্জীবনের সভাপতি গোবিন্দ মোদক, বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর শাখার সভাপতি নাজমুল হুদা অর্ক এবং উপজেলা পর্যায়ের সেরা নেতৃত্ব নির্বাচিত হয়েছেন গৌরীপুর উপজেলা শাখার সভাপতি ইয়াসিন আরাফাত ও ত্রিশাল উপজেলা শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম শাকিল।

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সেরা এম্বাসেডর নির্বাচিত হয়েছেন চীন শাখার জয়েন্ট কান্ট্রি কো-অর্ডিনেটর অশির মনসুর তালুকদার।

সেরা ভলান্টিয়ারর ক্যাটাগরিতে, স্বাস্থ্য ও সেবা বিভাগে সেরা নির্বাচিত হয়েছেন সঞ্জীবন, স্বাস্থ্য ও সেবা প্রকল্পের প্রধান দৌলত আহম্মেদ শাকিল। অনুদান বিভাগে সেরা হয়েছেন, সঞ্জীবন, চীন শাখা; নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাদিয়া রহমান, চীনের হারবিন মেডিকেল কলেজ এর শিক্ষার্থী ইশরাত জাহান নিশি। গ্রাফিক্স এন্ড ডিজাইন বিভাগে সেরা নির্বাচিত হয়েছেন, সঞ্জীবনের স্কিল ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্টের চীফ ইনস্ট্রাক্টর সুদীপ্ত রায়।

উপস্থিতি ক্ষেত্রে সেরা ভলান্টিয়ার নির্বাচিত হয়েছেন সঞ্জীবন, ময়মনসিংহ জেলা শাখার সাবেক সহ সভাপতি ফারজানা ইসলাম এবং ত্রিশাল উপজেলা শাখার বর্তমান সভাপতি রুবায়েত হোসাইন রুসাত।

এ প্রসঙ্গে সংগঠনের শিক্ষা দপ্তরের পরিচালক নুসরাত রহমান মীম বলেন,

“আমাদের সারাদেশে আল্লাহর রহমতে ৩৬ টি শাখা রয়েছে। ইনশাআল্লাহ আমরা দ্রুতই সমগ্র দেশের সর্বত্র আমাদের শাখা স্থাপন করতে সক্ষম হবো। এর মূলে রয়েছে আমাদের সংগঠনের অক্লান্ত পরিশ্রমী ভলান্টিয়ারগণ এবং আমাদের শুভাকাঙ্ক্ষীগণ। আমরা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিধায় তাঁদেরকে সম্মান করার জন্য “সঞ্জীবন সম্মাননা পদক” এর চেয়ে ভালো অন্য কোনো পন্থাও আমাদের জানা নেই। আমরা চেষ্টা করেছি এত বছর যারা সমাজের উন্নতিতে তাঁদের মেধা ও শ্রম দিয়েছেন, ভূমিকা রেখেছেন, সংগঠনে যারা শ্রম দিয়েছেন, ভলান্টিয়ারি কাজ করেছেন, তাঁদের সবাইকে আমাদের অবস্থান থেকে সর্বোচ্চ সম্মান জানাতে। পাশাপাশি আমাদের সদস্যগণও এতে আরও অনুপ্রানিত ও উৎসাহিত হবেন বলে আমাদের বিশ্বাস। তাই আমরা আশা করি পদক প্রাপ্ত সকলেই খুশির সঙ্গে তা গ্রহণ করবেন এবং যারা পদক প্রত্যাশী ছিলেন কিন্তু পাননি, তাঁরাও আরও উতসাহের সাথে পরবর্তী বছরের জন্য কাজ এগিয়ে নিবেন।”

আরও পড়ুন, প্রথমবারের মতো ‘সঞ্জীবন সম্মাননা পদক’ প্রদান,

ট্যাগ:

‘সঞ্জীবন সম্মাননা পদক – ২০২০’ পেলেন যাঁরা

প্রকাশ: ০৪:৪৭:৫০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৩১ মে ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রতিষ্ঠার চতুর্থ বর্ষে এসে প্রথমবারের মতো সংগঠনের সদস্যদের জন্য “সঞ্জীবন সম্মাননা পদক” ঘোষণা করলো সমাজসেবামূলক সংগঠন সঞ্জীবন। গত ৩১ মে, ২০২০ ইং, রবিবার, সঞ্জীবন, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে “সঞ্জীবন সম্মাননা পদক – ২০২০” শিরোনামে পদক প্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশ করা হয়।

পদক

সঞ্জীবন সম্মাননা পদক – ২০২০” প্রাপ্তদের মাঝে, আজীবন সম্মাননায় রয়েছেন, বঙ্গবন্ধু শিশু একাডেমী, ময়মনসিংহ জেলা শাখার সম্মানিত সভাপতি অধ্যাপক দিলরুবা শারমিন (সমাজসেবা), সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা (অব.) হাজেরা খাতুন (শিক্ষা),  ফুলবাড়িয়ার আছিম ইউনিয়নস্থ গ্রাম পাঠাগার জঙ্গলবাড়ী বাতিঘর (সমাজগঠন), বঙ্গবন্ধু শিশু একাডেমীর সম্মানিত সাধারণ সম্পাদক কবি শরীফুল ইসলাম সরকার (সাহিত্য) এবং ময়মনসিংহ প্রধান ডাকঘরে কর্মরত রাজিয়া বেগম (সমাজসেবা)।

২০১৯-২০ সাংগঠনিক বর্ষে গোটা সংগঠনের সেরা সদস্য হিসেবে প্রেসিডেনশিয়াল এওয়ার্ডে ভূষিত হয়েছেন, সঞ্জীবনের চীন শাখার জয়েন্ট কান্ট্রি কো-অর্ডিনেটর অশির মনসুর তালুকদার।

বিগত সাংগঠনিক বর্ষে সেরা সাংগঠনিক নেতৃত্বের ক্যাটাগরিতে জেলা পর্যায়ের সেরা সাংগঠনিক নির্বাচিত হয়েছেন, ময়মনসিংহ জেলা সঞ্জীবনের সভাপতি গোবিন্দ মোদক, বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর শাখার সভাপতি নাজমুল হুদা অর্ক এবং উপজেলা পর্যায়ের সেরা নেতৃত্ব নির্বাচিত হয়েছেন গৌরীপুর উপজেলা শাখার সভাপতি ইয়াসিন আরাফাত ও ত্রিশাল উপজেলা শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম শাকিল।

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সেরা এম্বাসেডর নির্বাচিত হয়েছেন চীন শাখার জয়েন্ট কান্ট্রি কো-অর্ডিনেটর অশির মনসুর তালুকদার।

সেরা ভলান্টিয়ারর ক্যাটাগরিতে, স্বাস্থ্য ও সেবা বিভাগে সেরা নির্বাচিত হয়েছেন সঞ্জীবন, স্বাস্থ্য ও সেবা প্রকল্পের প্রধান দৌলত আহম্মেদ শাকিল। অনুদান বিভাগে সেরা হয়েছেন, সঞ্জীবন, চীন শাখা; নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাদিয়া রহমান, চীনের হারবিন মেডিকেল কলেজ এর শিক্ষার্থী ইশরাত জাহান নিশি। গ্রাফিক্স এন্ড ডিজাইন বিভাগে সেরা নির্বাচিত হয়েছেন, সঞ্জীবনের স্কিল ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্টের চীফ ইনস্ট্রাক্টর সুদীপ্ত রায়।

উপস্থিতি ক্ষেত্রে সেরা ভলান্টিয়ার নির্বাচিত হয়েছেন সঞ্জীবন, ময়মনসিংহ জেলা শাখার সাবেক সহ সভাপতি ফারজানা ইসলাম এবং ত্রিশাল উপজেলা শাখার বর্তমান সভাপতি রুবায়েত হোসাইন রুসাত।

এ প্রসঙ্গে সংগঠনের শিক্ষা দপ্তরের পরিচালক নুসরাত রহমান মীম বলেন,

“আমাদের সারাদেশে আল্লাহর রহমতে ৩৬ টি শাখা রয়েছে। ইনশাআল্লাহ আমরা দ্রুতই সমগ্র দেশের সর্বত্র আমাদের শাখা স্থাপন করতে সক্ষম হবো। এর মূলে রয়েছে আমাদের সংগঠনের অক্লান্ত পরিশ্রমী ভলান্টিয়ারগণ এবং আমাদের শুভাকাঙ্ক্ষীগণ। আমরা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিধায় তাঁদেরকে সম্মান করার জন্য “সঞ্জীবন সম্মাননা পদক” এর চেয়ে ভালো অন্য কোনো পন্থাও আমাদের জানা নেই। আমরা চেষ্টা করেছি এত বছর যারা সমাজের উন্নতিতে তাঁদের মেধা ও শ্রম দিয়েছেন, ভূমিকা রেখেছেন, সংগঠনে যারা শ্রম দিয়েছেন, ভলান্টিয়ারি কাজ করেছেন, তাঁদের সবাইকে আমাদের অবস্থান থেকে সর্বোচ্চ সম্মান জানাতে। পাশাপাশি আমাদের সদস্যগণও এতে আরও অনুপ্রানিত ও উৎসাহিত হবেন বলে আমাদের বিশ্বাস। তাই আমরা আশা করি পদক প্রাপ্ত সকলেই খুশির সঙ্গে তা গ্রহণ করবেন এবং যারা পদক প্রত্যাশী ছিলেন কিন্তু পাননি, তাঁরাও আরও উতসাহের সাথে পরবর্তী বছরের জন্য কাজ এগিয়ে নিবেন।”

আরও পড়ুন, প্রথমবারের মতো ‘সঞ্জীবন সম্মাননা পদক’ প্রদান,