শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৮:৩৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম
ন্যাশনাল প্রেস সোসাইটি গন্যমাধম ও মানবাধিকার সংস্থা ময়মনসিংহ জেলা শাখার নবগঠিত কমিটির পরিচিত সভা দৈনিক সকালের সময় সম্পাদকসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে ময়মনসিংহে মানববন্ধন ফুলবাড়িয়া ২ টাকার খাবার বিতরণ বৃক্ষের সাথে সখ্যতা প্রকৃতিপ্রেমী বৃক্ষ বন্ধু অধ্যাপক আকবর আলী আহসান ১নং ফাঁড়ি পুলিশের অভিযানে এক ওয়ারেন্টভূক্ত আসামি গ্রেফতার ডেঙ্গু প্রতিরোধে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন এর উদ্যোগে মশক নিধন অভিযান শুরু পরিচ্ছন্ন ময়মনসিংহ নগরী গড়ার লক্ষ্যে বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় আধুনিকায়ন শিশুদের মনে গ্রাম বাংলার প্রতিচ্ছবি সঞ্জীবনের উদ্যোগে চড়ুইভাতি-২০২০ ময়মনসিংহ মহানগর যুবদলের উদ্যোগে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫৬ তম জন্মদিন পালিত

মৎস্য খাতই বর্তমান সময়ে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খাত-মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম

মৎস্য খাতই বর্তমান সময়ে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খাত-মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম

এনামুল হক ছোটন  : “বর্তমান সরকার জনগণের সাংবিধানিক মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করতে বদ্ধ পরিকর।বৈশ্বিক মহামারি করোনা পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ কোন মানুষ না খেয়ে মারা যায় নি।কারণ প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সুপরিকল্পিত চিন্তাভাবনার কারণে। আর এই করোনা প্রতিরোধের জন্য আমিষের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিলো। মানুষের আমিষ ও পুষ্টির চাহিদা মেটাতে বর্তমান সরকার মৎস্য খাতকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন। তাই বিলুপ্তি প্রজাতির দেশীই মাছ আমরা এ খাতের মাধ্যমে ফিরিয়ে আনছি।দেশীয় প্রজাতির মাছ যেমন পুটি,শৌল,কৈ,শিং,মাগুর,টেংরা,চিংড়ি ইত্যাদি প্রজাতির মাছ এ খাতের মাধ্যমে ফিরিয়ে আনছি।এর মাধ্যমে আমারা মৎস্য চাষ ও বাজারজাত এবং রপ্তানির মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করতে পারছি।ফলে মানুষের বেকারত্ব দূর হচ্ছে কর্মসংস্থান বাড়ছে ও দক্ষতা সৃষ্টির মাধ্যমে ও অর্থ উপার্জনের মাধ্যমে গ্রামীণ কাঠামোর পরিবর্তন হচ্ছে। এখন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বড় বড়ো ডিগ্রি নিয়ে চাকরির চিন্তা না করে খামারি বা মৎস্য চাষের চিন্তা করে।ফলে মৎস্য খাতে বৈপ্লবিক পরিবর্তন সাধিত হয়েছে আর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে এ খাত বর্তমান সময়ে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।যারা এ খাতে বিনিয়োগ করবে আমরা তাদেরকে সল্প ঋণে পুঁজি দিবো।

দেশের মৎস্য সম্পদের উন্নয়নের ক্ষেত্রে প্রযুক্তির ব্যবহার অনস্বীকার্য। বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট এ ক্ষেত্রে যথেষ্ট অবদান রেখে চলছে।এখানে উৎপাদিত গবেষণালবদ্ধ সম্পদ আমরা সারা দেশে পৌঁছে দিছি এই মন্ত্রনালয়ের মাধ্যমে।সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে এই খাতের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। আর গণমাধ্যম হলো রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ। তাই আপনাদের মাধ্যমে বা সহযোগিতায় সহজে উক্ত খাতের সফলতা বা গবেষণা দ্রুত প্রান্তিক মানুষের কাছে পৌঁছে যাবে এবং মানুষ মৎস্য খাতে আগ্রহী হবে”।ময়মনসিংহে বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটে প্রথম দেশের একমাত্র দেশিয় মাছের লাইভ জীন ব্যাংকের উদ্বোধন ও বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট কর্তৃক উদ্ভাধিত উন্নত জাতের কৈ, তেলাপিয়া ও সাদা পাঙ্গাস মাছের জার্মপ্লাজম হস্তান্তরের সময় এসব কথা বলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। গতকাল শনিবার সকালে ময়মনসিংহে বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের একটি পুকুরে ১৪৩ প্রজাতির দেশিয় মাছের লাইভ জীন ব্যাংকটি উদ্বোধন করেন মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। পরে মন্ত্রী দুপুরে ময়মনসিংহে বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট কর্তৃক উদ্ভাবিত উন্নত জাতের কৈ, তেলাপিয়া ও সাদা পাঙ্গাস মাছের জার্মপ্লাজম মৎস্য অধিদপ্তরের নিকট হস্তান্তর করেন। ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. ইয়াহিয়া মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য অধিদপ্তরের সচিব রওনক মাহমুদ ও সম্মানিত অতিথি হিসেবে অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার ও মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কাজী শামস আফরোজ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© ২০১৯ দৈনিক নবযুগ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Designed and developed by Smk Ishtiak