ঢাকা ১১:২৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

জাতিসংঘে যোগাসন করবেন মোদী

ঐতিহাসিক মুহূর্তের সাক্ষী হতে চলেছে ভারত। চলতি বছরে আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে, রাষ্ট্রপুঞ্জের সদর দফতরে প্রথমবারের মতো যোগাভ্যাস প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রতি বছর ২১ জুন পালন করা হয় আন্তর্জাতিক যোগ দিবস। ওই দিনই চার দিনের সফরে আমেরিকা পৌঁছবেন প্রধানমন্ত্রী। সফরের প্রথম দিনই নিউ ইয়র্কে রাষ্ট্রপুঞ্জের সদর দফতরে, নবম আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উপলক্ষে আয়োজিত, বিশেষ যোগ অধিবেশনের নেতৃত্ব দেবেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর আবেদনেই ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে ২১ জুন দিনটিকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস হিসাবে ঘোষণা করেছিল রাষ্ট্রপূঞ্জ। আয়োজকদের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, “নবম আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উপলক্ষে, রাষ্ট্রপুঞ্জে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি, আপনাদের সকলকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে একটি যোগ অধিবেশনে যোগ দেওয়ার আন্তরিক আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন।”

৯ বছর আগে রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ পরিষদের পোডিয়াম থেকেই ভারতের যোগাভ্যাসের ঐতিহ্যের কথা তুলে ধরেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। রাষ্ট্রপুঞ্জের কাছে ২১ জুন তারিখটিকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস হিসেবে পালন করার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। ২০১৫ সালে প্রথম আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদযাপন করা হয়েছিল। তারপর থেকে রাষ্ট্রপুঞ্জের সদর দফতর, টাইমস স্কোয়ার-সহ বিভিন্ন বিশ্বখ্যাত স্থানগুলিতে যোগ দিবস পালন করা হয়। এই প্রথমবার রাষ্ট্রপুঞ্জের সদর দফতরে এই যোগ অধিবেশনের নেতৃত্ব দেবেন প্রধানমন্ত্রী। ২১ জুন সকাল ৮টা থেকে ৯টা পর্যন্ত, এক ঘণ্টা ধরে রাষ্ট্রপুঞ্জের সদর দফতরের উত্তর লনে এই বিশেষ যোগ অধিবেশন চলবে। প্রসঙ্গত, গত ডিসেম্বরে এই উত্তর লনেই মহাত্মা গান্ধীর একটি আবক্ষ মূর্তি স্থাপন করা হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে এই ঐতিহাসিক যোগ অধিবেশনে অংশ নেবেন রাষ্ট্রপুঞ্জের শীর্ষ কর্তারা। এছাড়া থাকবেন বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত, সদস্য রাষ্ট্রগুলির প্রতিনিধিরা পাশাপাশি প্রবাসী ভারতীয় সম্প্রদায়ের বহু বিশিষ্ট সদস্যরাও উপস্থিত থাকবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

সকল অতিথি এবং অংশগ্রহণকারীদের এই বিশেষ অধিবেশনে যোগাভ্যাসের উপযোগী পোশাক পরে যোগ দিতে বলা হয়েছে। অধিবেশন তাদের ‘যোগা ম্যাট’ দেওয়া হবে। সরবরাহ করা হবে। রাষ্ট্রপুঞ্জের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, যোগা ম্যাটগুলি স্মারক হিসেবে অংশগ্রহণকারীদের দিয়ে দেওয়া হবে। এই বিষয়ে বৃহস্পতিবার একটি টুইট করেছেন রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ পরিষদের ৭৭তম অধিবেশনের সভাপতি সাবা করোসি। প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে নিজের একটি ছবি টুইট করে সাবা করোসি জানিয়েছেন, “আগামী সপ্তাহে রাষ্ট্রপুঞ্জের সদর দফতরের নর্থ লনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে নবম আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদযাপনে অংশগ্রহণের জন্য আমি উন্মুখ হয়ে আছি।” রাষ্ট্রপুঞ্জ আরও জানিয়েছে, যোগ হল ভারতের একটি প্রাচীন শারীরিক, মানসিক এবং আধ্যাত্মিক অনুশীলন। ‘যোগ’ শব্দটি সংস্কৃত এবং এর অর্থ হল যুক্ত করা বা একত্রিত হওয়া। নিয়মিত যোগাভ্যাসে দেহ এবং মনের মিলন ঘটে। আজ বিশ্বজুড়ে বিভিন্নভাবে যোগ অনুশীলন করা হয় এবং এর জনপ্রিয়তা ক্রমে বাড়ছে।

রাষ্ট্রপুঞ্জের এই ঘোষণার পর, এই বিষয়ে টুইট করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদীও। বিভিন্ন আসনের একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, “যোগব্যায়াম শরীর এবং মন উভয়ের জন্যই উপকারী। শক্তি, নমনীয়তা এবং প্রশান্তি বৃদ্ধি করে। আসুন যোগকে আমাদের জীবনের একটি অংশ করে তুলি এবং জীবনে সুস্থতার পাশাপাশি শান্তি নিয়ে আসি।” আরও একটি টুইটে তিনি সাবা করোসির টুইটের জবাবও দিয়েছেন। আরও একটি টুইটে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, “রাষ্ট্রপুঞ্জের সদর দফতরে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদযাপনে আপনাকে দেখতে আমিও উন্মুখ হয়ে আছি। আপনার অংশগ্রহণ অনুষ্ঠানটিতে বিশেষ মাত্রা যোগ করেছে। গোটা বিশ্বকে এক করে সুস্থতার দিকে নিয়ে যায় যোগ। কতামনা করি, এটি বিশ্বব্যাপী আরও জনপ্রিয় হয়ে উঠুক।”

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেনের আমন্ত্রণে ২১ থেকে ২৪ জুন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। ২২ জুন হোয়াইট হাউসে প্রধানমন্ত্রী মোদীর সম্মানে একটি রাষ্ট্রীয় নৈশভোজের আয়োজন করা হয়েছে। ২২ জুন মার্কিন কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। ২৩ জুন, ওয়াশিংটনের রোনাল্ড রেগান ভবন এবং ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড সেন্টারে আমেরিকার প্রবাসী ভারতীয়দের এক সমাবেশে ভাষণ দেওয়ার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী মোদীর। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

Tag :

Notice: Trying to access array offset on value of type int in /home/nabajugc/public_html/wp-content/themes/NewsFlash-Pro/template-parts/common/single_two.php on line 182

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

Popular Post

জাতিসংঘে যোগাসন করবেন মোদী

Update Time : ০২:৫৪:৫১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৬ জুন ২০২৩

ঐতিহাসিক মুহূর্তের সাক্ষী হতে চলেছে ভারত। চলতি বছরে আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে, রাষ্ট্রপুঞ্জের সদর দফতরে প্রথমবারের মতো যোগাভ্যাস প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রতি বছর ২১ জুন পালন করা হয় আন্তর্জাতিক যোগ দিবস। ওই দিনই চার দিনের সফরে আমেরিকা পৌঁছবেন প্রধানমন্ত্রী। সফরের প্রথম দিনই নিউ ইয়র্কে রাষ্ট্রপুঞ্জের সদর দফতরে, নবম আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উপলক্ষে আয়োজিত, বিশেষ যোগ অধিবেশনের নেতৃত্ব দেবেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর আবেদনেই ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে ২১ জুন দিনটিকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস হিসাবে ঘোষণা করেছিল রাষ্ট্রপূঞ্জ। আয়োজকদের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, “নবম আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উপলক্ষে, রাষ্ট্রপুঞ্জে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি, আপনাদের সকলকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে একটি যোগ অধিবেশনে যোগ দেওয়ার আন্তরিক আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন।”

৯ বছর আগে রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ পরিষদের পোডিয়াম থেকেই ভারতের যোগাভ্যাসের ঐতিহ্যের কথা তুলে ধরেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। রাষ্ট্রপুঞ্জের কাছে ২১ জুন তারিখটিকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস হিসেবে পালন করার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। ২০১৫ সালে প্রথম আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদযাপন করা হয়েছিল। তারপর থেকে রাষ্ট্রপুঞ্জের সদর দফতর, টাইমস স্কোয়ার-সহ বিভিন্ন বিশ্বখ্যাত স্থানগুলিতে যোগ দিবস পালন করা হয়। এই প্রথমবার রাষ্ট্রপুঞ্জের সদর দফতরে এই যোগ অধিবেশনের নেতৃত্ব দেবেন প্রধানমন্ত্রী। ২১ জুন সকাল ৮টা থেকে ৯টা পর্যন্ত, এক ঘণ্টা ধরে রাষ্ট্রপুঞ্জের সদর দফতরের উত্তর লনে এই বিশেষ যোগ অধিবেশন চলবে। প্রসঙ্গত, গত ডিসেম্বরে এই উত্তর লনেই মহাত্মা গান্ধীর একটি আবক্ষ মূর্তি স্থাপন করা হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে এই ঐতিহাসিক যোগ অধিবেশনে অংশ নেবেন রাষ্ট্রপুঞ্জের শীর্ষ কর্তারা। এছাড়া থাকবেন বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত, সদস্য রাষ্ট্রগুলির প্রতিনিধিরা পাশাপাশি প্রবাসী ভারতীয় সম্প্রদায়ের বহু বিশিষ্ট সদস্যরাও উপস্থিত থাকবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

সকল অতিথি এবং অংশগ্রহণকারীদের এই বিশেষ অধিবেশনে যোগাভ্যাসের উপযোগী পোশাক পরে যোগ দিতে বলা হয়েছে। অধিবেশন তাদের ‘যোগা ম্যাট’ দেওয়া হবে। সরবরাহ করা হবে। রাষ্ট্রপুঞ্জের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, যোগা ম্যাটগুলি স্মারক হিসেবে অংশগ্রহণকারীদের দিয়ে দেওয়া হবে। এই বিষয়ে বৃহস্পতিবার একটি টুইট করেছেন রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ পরিষদের ৭৭তম অধিবেশনের সভাপতি সাবা করোসি। প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে নিজের একটি ছবি টুইট করে সাবা করোসি জানিয়েছেন, “আগামী সপ্তাহে রাষ্ট্রপুঞ্জের সদর দফতরের নর্থ লনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে নবম আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদযাপনে অংশগ্রহণের জন্য আমি উন্মুখ হয়ে আছি।” রাষ্ট্রপুঞ্জ আরও জানিয়েছে, যোগ হল ভারতের একটি প্রাচীন শারীরিক, মানসিক এবং আধ্যাত্মিক অনুশীলন। ‘যোগ’ শব্দটি সংস্কৃত এবং এর অর্থ হল যুক্ত করা বা একত্রিত হওয়া। নিয়মিত যোগাভ্যাসে দেহ এবং মনের মিলন ঘটে। আজ বিশ্বজুড়ে বিভিন্নভাবে যোগ অনুশীলন করা হয় এবং এর জনপ্রিয়তা ক্রমে বাড়ছে।

রাষ্ট্রপুঞ্জের এই ঘোষণার পর, এই বিষয়ে টুইট করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদীও। বিভিন্ন আসনের একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, “যোগব্যায়াম শরীর এবং মন উভয়ের জন্যই উপকারী। শক্তি, নমনীয়তা এবং প্রশান্তি বৃদ্ধি করে। আসুন যোগকে আমাদের জীবনের একটি অংশ করে তুলি এবং জীবনে সুস্থতার পাশাপাশি শান্তি নিয়ে আসি।” আরও একটি টুইটে তিনি সাবা করোসির টুইটের জবাবও দিয়েছেন। আরও একটি টুইটে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, “রাষ্ট্রপুঞ্জের সদর দফতরে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদযাপনে আপনাকে দেখতে আমিও উন্মুখ হয়ে আছি। আপনার অংশগ্রহণ অনুষ্ঠানটিতে বিশেষ মাত্রা যোগ করেছে। গোটা বিশ্বকে এক করে সুস্থতার দিকে নিয়ে যায় যোগ। কতামনা করি, এটি বিশ্বব্যাপী আরও জনপ্রিয় হয়ে উঠুক।”

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেনের আমন্ত্রণে ২১ থেকে ২৪ জুন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। ২২ জুন হোয়াইট হাউসে প্রধানমন্ত্রী মোদীর সম্মানে একটি রাষ্ট্রীয় নৈশভোজের আয়োজন করা হয়েছে। ২২ জুন মার্কিন কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। ২৩ জুন, ওয়াশিংটনের রোনাল্ড রেগান ভবন এবং ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড সেন্টারে আমেরিকার প্রবাসী ভারতীয়দের এক সমাবেশে ভাষণ দেওয়ার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী মোদীর। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক