ঢাকা ০১:০৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

সুদানে থাকা ভারতীয়দের নিরাপত্তাই মূখ্য: কোয়াত্রা

বর্তমানে আফ্রিকার দেশ সুদানে চলমান সংঘর্ষের মাঝে আটকে পড়েছেন প্রায় ৩৫০০ ভারতীয় এবং ১০০০ ভারতীয় বংশোদ্ভূত, বৃহস্পতিবার ভারতের বিদেশ সচিব বিনয় কোয়াত্রা এই তথ্য জানিয়েছেন। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে এ কথা বলেন তিনি।

এদিকে, সুদানে চলতে থাকা সংঘর্ষে এক ভারতীয়র মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিদেশ মন্ত্রক এই তথ্য জানিয়েছে। মন্ত্রকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, নিহতের মৃতদেহ সুদানের রাজধানী খার্তুমে রয়েছে। বিদেশ সচিব বিনয় কোয়াত্রা বলেছেন যে সুদানে নিরাপত্তা সম্পর্কিত বর্তমান পরিস্থিতি অত্যন্ত অস্থির এবং ভারতের প্রচেষ্টা রয়েছে সেখানে বসবাসকারী নাগরিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য।

প্রেস ব্রিফিং এ বিদেশ সচিব বলেছেন যে হিংসা-বিধ্বস্ত সুদান থেকে সাধারণ নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়ার জন্য ভারতের অভিযান ‘অপারেশন কাবেরি’-এর অধীনে প্রায় ৬৭০ ভারতীয় বাড়িতে পৌঁছেছে বা বাড়ির পথে রয়েছে।

বিনয় কোয়াত্রা জানিয়েছেন যে বুধবার রাতে সৌদি আরব থেকে একটি বিমানে ৩৬০ জন ভারতীয় নাগরিক ভারতে এসেছিলেন এবং ২৪৬ নাগরিক ভারতীয় বিমান বাহিনীর সি১৭ বিমানে মহারাষ্ট্রে পৌঁছেছেন। সুদানে নিরাপত্তা-সম্পর্কিত বর্তমান পরিস্থিতি অত্যন্ত অস্থির বলে জানিয়েছেন কোয়াত্রা। ‘আমরা প্রতিনিয়ত সুদানের পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি’ বলেও জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, ভারত তার নাগরিকদের নিরাপত্তার জন্য সব পক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে। তিনি বলেছিলেন যে, “আমরা অনুমান করছি যে প্রায় ৩৫০০ ভারতীয় নাগরিক এবং প্রায় ১০০০ ভারতীয় বংশোদ্ভূত মানুষ সেখানে বসবাস করছেন’। কোয়াত্রা বলেন, ‘যেখানে লড়াই চলছে সেখানে পরিস্থিতি খুবই অস্থির ও পরিবর্তনশীল। যে কারণে সুদানে বিবাদমান দুই পক্ষের মধ্যে কোন এলাকায় আধিপত্য রয়েছে তা বলা মুশকিল। তবে আমরা আমাদের নাগরিকদের নিরাপত্তার জন্য সবার সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছি।”

বিদেশ সচিব বলেন, প্রায় ১৭০০ থেকে ২০০০ সাধারণ নাগরিক সংঘাতের এলাকা থেকে বেরিয়ে এসেছে। কোয়াত্রা বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নির্দেশ অনুসারে, ‘আমাদের সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা যে সমস্ত নাগরিক যারা সংঘর্ষের অঞ্চলে আটকা পড়েছেন, তাদের দ্রুততম সময়ে নিরাপদে বের করে আনা এবং তারপরে তাদের ভারতে আনার ব্যবস্থা করা’।

তিনি বলেছিলেন যে সুদান থেকে ভারতীয়দের আনার ক্ষেত্রে সৌদি আরব সরকারের কাছ থেকে দুর্দান্ত সাহায্য পাওয়া গিয়েছে। যার মধ্যে বিভিন্ন ব্যবস্থা করার পাশাপাশি ট্রানজিট সম্পর্কিত প্রক্রিয়াগুলি সম্পূর্ণ করা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। বিদেশ সচিব বলেছেন, ২৫ এপ্রিল আইএনএস সুমেধা সুদান থেকে ২৭৮ জন সাধারণ নাগরিককে জেড্ডায় নিয়ে আসে। একই দিনে, সি১৩০জে বিমানের দুটি ফ্লাইট যথাক্রমে ১২১ এবং ১৩৫ সাধারণ নাগরিককে সরিয়ে নিয়ে এসেছিল।

তিনি জানিয়েছিলেন যে ২৬ এপ্রিল, ২৯৭ জন সাধারণ নাগরিককে নৌবাহিনীর জাহাজ আইএনএস তেগ এবং ২৬৪ জন বেসামরিক নাগরিককে সি১৩০জে বিমানের মাধ্যমে সরিয়ে নেওয়া হয়েছিল।

কোয়াত্রা বলেছেন, বর্তমানে ৩২০ জন ভারতীয় পোর্ট সুদানে রয়েছে এবং তাঁদেরকে সৌদি আরবের জেড্ডা শহরে নিয়ে আসা হবে। তিনি বলেন, অপারেশন কাবেরিতে যোগ দিতে আরেকটি নৌ জাহাজ আইএনএস তর্কাশ পোর্ট সুদানে পৌঁছেছে। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

Tag :

Notice: Trying to access array offset on value of type int in /home/nabajugc/public_html/wp-content/themes/NewsFlash-Pro/template-parts/common/single_two.php on line 182

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

Popular Post

সুদানে থাকা ভারতীয়দের নিরাপত্তাই মূখ্য: কোয়াত্রা

Update Time : ০২:২৩:৫১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৭ এপ্রিল ২০২৩

বর্তমানে আফ্রিকার দেশ সুদানে চলমান সংঘর্ষের মাঝে আটকে পড়েছেন প্রায় ৩৫০০ ভারতীয় এবং ১০০০ ভারতীয় বংশোদ্ভূত, বৃহস্পতিবার ভারতের বিদেশ সচিব বিনয় কোয়াত্রা এই তথ্য জানিয়েছেন। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে এ কথা বলেন তিনি।

এদিকে, সুদানে চলতে থাকা সংঘর্ষে এক ভারতীয়র মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিদেশ মন্ত্রক এই তথ্য জানিয়েছে। মন্ত্রকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, নিহতের মৃতদেহ সুদানের রাজধানী খার্তুমে রয়েছে। বিদেশ সচিব বিনয় কোয়াত্রা বলেছেন যে সুদানে নিরাপত্তা সম্পর্কিত বর্তমান পরিস্থিতি অত্যন্ত অস্থির এবং ভারতের প্রচেষ্টা রয়েছে সেখানে বসবাসকারী নাগরিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য।

প্রেস ব্রিফিং এ বিদেশ সচিব বলেছেন যে হিংসা-বিধ্বস্ত সুদান থেকে সাধারণ নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়ার জন্য ভারতের অভিযান ‘অপারেশন কাবেরি’-এর অধীনে প্রায় ৬৭০ ভারতীয় বাড়িতে পৌঁছেছে বা বাড়ির পথে রয়েছে।

বিনয় কোয়াত্রা জানিয়েছেন যে বুধবার রাতে সৌদি আরব থেকে একটি বিমানে ৩৬০ জন ভারতীয় নাগরিক ভারতে এসেছিলেন এবং ২৪৬ নাগরিক ভারতীয় বিমান বাহিনীর সি১৭ বিমানে মহারাষ্ট্রে পৌঁছেছেন। সুদানে নিরাপত্তা-সম্পর্কিত বর্তমান পরিস্থিতি অত্যন্ত অস্থির বলে জানিয়েছেন কোয়াত্রা। ‘আমরা প্রতিনিয়ত সুদানের পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি’ বলেও জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, ভারত তার নাগরিকদের নিরাপত্তার জন্য সব পক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে। তিনি বলেছিলেন যে, “আমরা অনুমান করছি যে প্রায় ৩৫০০ ভারতীয় নাগরিক এবং প্রায় ১০০০ ভারতীয় বংশোদ্ভূত মানুষ সেখানে বসবাস করছেন’। কোয়াত্রা বলেন, ‘যেখানে লড়াই চলছে সেখানে পরিস্থিতি খুবই অস্থির ও পরিবর্তনশীল। যে কারণে সুদানে বিবাদমান দুই পক্ষের মধ্যে কোন এলাকায় আধিপত্য রয়েছে তা বলা মুশকিল। তবে আমরা আমাদের নাগরিকদের নিরাপত্তার জন্য সবার সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছি।”

বিদেশ সচিব বলেন, প্রায় ১৭০০ থেকে ২০০০ সাধারণ নাগরিক সংঘাতের এলাকা থেকে বেরিয়ে এসেছে। কোয়াত্রা বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নির্দেশ অনুসারে, ‘আমাদের সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা যে সমস্ত নাগরিক যারা সংঘর্ষের অঞ্চলে আটকা পড়েছেন, তাদের দ্রুততম সময়ে নিরাপদে বের করে আনা এবং তারপরে তাদের ভারতে আনার ব্যবস্থা করা’।

তিনি বলেছিলেন যে সুদান থেকে ভারতীয়দের আনার ক্ষেত্রে সৌদি আরব সরকারের কাছ থেকে দুর্দান্ত সাহায্য পাওয়া গিয়েছে। যার মধ্যে বিভিন্ন ব্যবস্থা করার পাশাপাশি ট্রানজিট সম্পর্কিত প্রক্রিয়াগুলি সম্পূর্ণ করা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। বিদেশ সচিব বলেছেন, ২৫ এপ্রিল আইএনএস সুমেধা সুদান থেকে ২৭৮ জন সাধারণ নাগরিককে জেড্ডায় নিয়ে আসে। একই দিনে, সি১৩০জে বিমানের দুটি ফ্লাইট যথাক্রমে ১২১ এবং ১৩৫ সাধারণ নাগরিককে সরিয়ে নিয়ে এসেছিল।

তিনি জানিয়েছিলেন যে ২৬ এপ্রিল, ২৯৭ জন সাধারণ নাগরিককে নৌবাহিনীর জাহাজ আইএনএস তেগ এবং ২৬৪ জন বেসামরিক নাগরিককে সি১৩০জে বিমানের মাধ্যমে সরিয়ে নেওয়া হয়েছিল।

কোয়াত্রা বলেছেন, বর্তমানে ৩২০ জন ভারতীয় পোর্ট সুদানে রয়েছে এবং তাঁদেরকে সৌদি আরবের জেড্ডা শহরে নিয়ে আসা হবে। তিনি বলেন, অপারেশন কাবেরিতে যোগ দিতে আরেকটি নৌ জাহাজ আইএনএস তর্কাশ পোর্ট সুদানে পৌঁছেছে। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক