তেরঙ্গা পতাকায় নয়া প্রচারাভিযান মোদীর

তেরঙ্গা পতাকায় নয়া প্রচারাভিযান মোদীর

ভারতের স্বাধীনতা এবার পা রাখছে ৭৫ তম বর্ষে। গোটা বছর ধরেই উদযাপনের পরিকল্পনা নিয়েছে কেন্দ্র। স্বাধীনতার হীরক জয়ন্তী বর্ষে পালিত হচ্ছে ‘আজাদি কা অমৃত মহোৎসব’। আগস্ট অর্থাৎ স্বাধীনতার মাস পড়তেই শুরু হয়ে গিয়েছে সেলিব্রেশন। প্রধানমন্ত্রী নিজে আবেদন জানিয়েছিলেন, স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের অঙ্গ হিসেবে যেন দেশবাসী নিজেদের সোশ্যাল মিডিয়ার ছবিতে তেরঙ্গার ছোঁয়া রাখেন। তাঁর সেই আবেদনে সাড়া দিয়ে আজই বদলে গেল কেন্দ্রের নেতা, মন্ত্রীদের প্রোফাইল ছবি। তথ্য-সম্প্রচার মন্ত্রকের সোশ্যাল মিডিয়াতেও দেখা গেল তেরঙ্গার ছোঁয়া।

রবিবার, ৩১ জুলাই ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশবাসীর কাছে আবেদন জানিয়েছিলেন, ১৩ থেকে ১৫ অগাস্ট পর্যন্ত প্রত্যেকে নিজেদের বাড়িতে পতাকা উত্তোলন করুন। শেয়ার করুন তার ছবি। আর এর মধ্যে দিয়ে ‘হর ঘর তিরাঙ্গা’ অভিযানে শামিল হওয়ার আবেদন জানান তিনি।

এরপরেই তিনি দেশবাসীকে নিজেদের সোশ্যাল মিডিয়ার ছবি বদলে তেরঙ্গা রাখার আরজি জানান। বলেন, “আগামী ২ থেকে ১৫ অগাস্ট পর্যন্ত দেশবাসী নিজেদের সোশ্যাল মিডিয়ার ডিপি বদলে ফেলুন। নিজেদের ছবির পরিবর্তে ব্যবহার করুন তেরঙ্গা পতাকার ছবি।”

মোদী এও বলেছিলেন, ‘‘২ আগস্ট পিঙ্গালি বেঙ্কায়ার জন্মবার্ষিকী। ইনি ভারতীয় পতাকার নকশা এঁকেছিলেন। তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েই এই দিন থেকেই সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলের ডিপি হিসেবে ব্যবহার করুন তেরঙ্গার ছবি।’’ তাঁর সেই আবেদনে সাড়াও মিললো। মঙ্গলবার সকালে দেখা গেল, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সোশ্যাল মিডিয়ার প্রোফাইল ছবি বদলে গিয়েছে। তাঁর ছবির বদলে জ্বলজ্বল করছে ত্রিবর্ণরঞ্জিত পতাকা।

সোশ্যাল মিডিয়ার প্রোফাইল ছবি বদলেছে অমিত শাহরও। তাঁর বদলে জাতীয় পতাকার ছবি দেখা যাচ্ছে সেখানে। সেই সঙ্গে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ টুইটে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন পতাকার নকশা নির্মাতা পিঙ্গালি বেঙ্কাইয়ার প্রতি। উল্লেখ করেছেন তাঁর অবদানের কথা।

আরেক বিজেপি নেতা সম্বিৎ পাত্রও বদলেছেন নিজের ডিপি। এছাড়া তথ্য-সম্প্রচার মন্ত্রকের প্রোফাইল ছবিও তেরঙ্গায় বদলে গিয়েছে। অনেকেই মনে করছেন, মোদী নিজে স্বাধীনতা উদযাপনের সূচনা করে দিলেন। এবার দেশবাসীর পালা। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল প্রকাশ করা হবে না।

*