রবিবার, ৩১ মে ২০২০, ১০:২৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম
প্রথমবারের মতো ‘সঞ্জীবন সম্মাননা পদক’ প্রদান ‘সঞ্জীবন সম্মাননা পদক – ২০২০’ পেলেন যাঁরা জাবি চিকিৎসা কেন্দ্রে পিপিই ও অসহায় ছাত্রদের সাহায্য করলেন আইআইটি’র শিক্ষক ড. ওয়াহিদুজ্জামান আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে জাবি শিক্ষার্থী সামিয়া করোনার উপসর্গ নিয়ে জাবির সাবেক শিক্ষার্থীর মৃত্যু করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত জাবির সাবেক শিক্ষার্থী আধুনিকতার সাথে সংস্কৃতির পরিবর্তন গৌরীপুরে সঞ্জীবনের নতুন কমিটি, সমন্বয়ক সাজ্জাদ, সভাপতি ইয়াসিন, সম্পাদক তুহিন হাসানকে সমন্বয়ক করে ত্রিশাল সঞ্জীবনের সভাপতি রুসাত, সম্পাদক পুনম ফুলপুরে কৃষকের ধান কেটে দিলেন শেকৃবি ছাত্রলীগ নেতা রুমন

সমাজের উপর নেতৃত্বের প্রভাব

সমাজের উপর নেতৃত্বের প্রভাব

নেতৃত্ব

গোবিন্দ মোদক: সমাজ কাঠামো ব্যাপারটি মানুষের তৈরি। মানুষ যেমন করে তার সমাজকে গুছিয়ে তুলবে, যেমন অভ্যাস গড়ে তুলবে, তেমন ভাবেই তার সমাজের কাঠামো গড়ে উঠবে। যেসকল মানুষের সামনে থাকে বিশেষ কিছু মানুষের চিন্তা ধ্যান-ধারণা, যা অনুসরণ করে অন্যরা চলে সমাজকে সমানে এগিয়ে নেয়ায় সেই বিশেষ মানুষ গুলোর ভূমিকা থাকে অপরিসীম। বিশেষ কিছু মানুষের মেধা, চিন্তা, ধারণায় কোনো কিছুর পরিবর্তন করা ও অন্যকে আকৃষ্ট করার ক্ষমতা থাকে তাদের অনুসরণ করে অন্যরা। সে বিশেষ ক্ষমতাসম্পূন ব্যক্তিদের নেতা বলা চলে। তবে নেতা ও তার নেতৃত্ব গুণ সমাজের ভালো খারাপ দু দিকেই বিরাজমান।

সমাজের উপর খারাপ প্রভাব ফেলা নেতার ধরণ- তাদের সমাজে কিছু সংখ্যক ব্যক্তি অনুসরণ করে চলে তার মাধ্যমে সমাজে বিভিন্ন ধরণের অপরাধ সংগঠিত হয় ধরুন কোনো ডাকাত দল তাদেরও একজন প্রধান থাকে যার সকল নির্দেশে সমস্ত কাজ করে তার অনুসারীরা সে প্রধান কিন্তু তাদের কাছে নেতার ভূমিকায়।

অন্যদিকে সমাজে ভালো কাজে নেতার ভূমিকা বিভিন্ন ধরণের- সমাজসেবামূলক কাজে কয়েকজন বিশেষ ব্যক্তির সুপরিকল্পনা তাদের শ্রমের অনুসারী হয়ে অন্য ব্যক্তিরা কাজ করে থাকে। এখানে নেতার নেতৃত্ব গুণের ভালো প্রভাব বিরাজ করে থাকে। নেতার নেতৃত্ব গুণ থাকে তা ভালো কাজের ক্ষেত্রেও যেমন দেখা যার খারাপ কাজের ক্ষেত্রেও।

এখন একজন নেতা তার নেতৃত্ব কে কিভাবে কাজে লাগাবে তার সমাজের জন্য সেটা তার উপর নির্ভর করে। একজন নেতা তার নেতৃত্ব গুণে চাইলে সমাজকে অনেকটা বদলে দিতে পারে সে ভালো দিক দিয়ে হোক কিংবা খারাপ। তবে সমাজ কাঠামো কে সুন্দর ভাবে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে একজন যোগ্য নেতার নেতৃত্ব গুণ খুব বড় ধরণের ভূমিকা পালন করে। যার উদাহরণ হিসেবে আমরা বিশ্বের শক্তিশালী ও উন্নত দেশ গুলোর দিকে তাকালে লক্ষ্য করতে পারি।

বিশ্বের বড় বড় নেতাদের নাম নিলেই দেখা যায় তাদের দ্বারা সমাজ কতটা পরিবর্তন হয়েছে! নেলসন ম্যান্ডেলা যার নেতৃত্বে পতন হয় বর্ণবাদের, রয়েছেন ভারতীয় মহান নেতা মাহাত্ম্য গান্ধী এবং বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। উনাদের মত আরও বড় বড় নেতাদের নেতৃত্ব গুণে তাদের সমাজ পরিবর্তন করতে সফল হয়েছেন তার জন্য শ্রম দিতে হয়েছে মেধা কাজে লাগাতে হয়েছে বড় ধরণের শাস্তিও পেতে হয়েছে।

যারা নিজেদের নেতৃত্ব গুণে সমাজ পরিবর্তনের কাজ করে যায় তাদের অনেক ধরণের বাধা আসে আর সেসকল বাধা মোকাবেলা করতে পারা একজন নেতার সবচেয়ে বড় গুণ। যেকোনো ভালো কাজে সফল হতে সময় লাগে বাধা আসে কিন্তু একজন নেতা তার নেতৃত্বে এগিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন দেখে চলেন সেভাবেই কাজ করে যান আর ঐসকল কাজের দিনশেষে সফলতা ও আসে যা পূর্বের নেতাদের অবদান লক্ষ্য করলেই বোঝা যায়।

একজন নেতার পিছনে সমালোচক থাকবে! তার কাজে ভেটো প্রদান করারও লোকের ও অভাব পড়বে না! এসবের সবকিছু ছাঁপিয়ে যখন সে নেতা এগিয়ে যাবে তখনই তিনি একজন আর্দশ নেতা হিসেবে বিবেচিত হবেন।সমাজের সকল কাঠামো গঠনে একজন নেতার প্রয়োজন পড়ে, তা পরিবার থেকে শুরু করে সকল জায়গায়।পরিবারে যিনি প্রধান পরিবার কে আগলে রাখে যার কথা মত সবাই চলে তাকে মান্য করে তিনিও কিন্তু তার পরিবারের নেতা।পরিবার, পড়া মহল্লা,গ্রাম সব জায়গায় নেতার ভূমিকা থাকে। নেতা মানে শুধু ক্ষমতার প্রভাব খাটানো নয় নেতা মানে নেতৃত্ব গুণে সকল কিছু আগলে রাখা সমস্যার সমাধান করতে পারা।কেউ নেতা হয়ে জন্মায় না কিন্তু নেতা সমাজেই তৈরি হয়।

লেখক: গোবিন্দ মোদক, শিক্ষার্থী,সমাজবিজ্ঞান বিভাগ,আনন্দ মোহন কলেজ, ময়মনসিংহ এবং সভাপতি, সঞ্জীবন, ময়মনসিংহ জেলা শাখা

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© ২০১৯ দৈনিক নবযুগ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Designed and developed by Smk Ishtiak